শিরোনাম
২৩ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ ১৭:২৮

গোপালগঞ্জে বঙ্গবন্ধুকে জানি শীর্ষক শিশু সমাবেশ

গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি

গোপালগঞ্জে বঙ্গবন্ধুকে জানি শীর্ষক শিশু সমাবেশ

আগামী প্রজন্ম জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আদর্শে বেড়ে উঠবে। বঙ্গবন্ধুর আদর্শ বুকে ধারণ করে তারা মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় দেশপ্রেমে উদ্বুদ্ধ হবে। আজকের শিশুরা আগামীতে সমৃদ্ধ ও স্মার্ট সোনার বাংলা বিনির্মাণের সারথী হবে।     
এ প্রত্যাশায় প্রাথমিক স্তরের শিক্ষার্থীদের বঙ্গবন্ধুর আদর্শ, মুত্তিযুদ্ধের চেতনা ও দেশপ্রেমে উদ্বুদ্ধ করতে ‘এসো বঙ্গবন্ধুকে জানি’ শীর্ষক শিশু সমাবেশ করে চলছে গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়া উপজেলা পরিষদ ও প্রশাসন ।
অনন্য এ উদ্যোগটিকে টুঙ্গিপাড়াবাসী স্বাগত জানিয়েছেন। তারা এ উদ্যোগের সাফল্য কামনা করেছেন। 

বৃহস্পতিবার দিনব্যাপী টুঙ্গিপাড়া উপজেলার পাটগাতী ইউনিয়নের ১৪টি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৫শ শিশু ‘এসো বঙ্গবন্ধুকে জানি’ শীর্ষক শিশু সমাবেশ অংশ নেয়।
এদিন সকালে তারা জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সমাধিসৌধের বেদীতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করে। পরে তারা দোয়া-মোনাজাতে অংশ নেন।
এরপর বঙ্গবন্ধুর সাংগ্রামী জীবন, আদর্শ, ত্যাগ, সাহস  নিয়ে সেসন অনুষ্ঠিত হয়। এসব সেসন থেকে বিভিন্ন প্রশ্ন করা হয়। শিশুরা এসব প্রশ্নের উত্তর দেয়। পরে প্রশ্নোত্তর পর্বের বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করা হয় । 

এতে প্রধান অতিথি ছিলেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) মোঃ গোলাম কবির। সভাপতিত্ব করেন টুঙ্গিপাড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ মঈনুল হক। 
উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ মোঃ মঈনুল হকের উদ্যোগে চলতি মাসের শুরুর দিকে বঙ্গবন্ধুর বাল্যকালে শিক্ষা জীবন শুরু করা বিদ্যাপীঠ জিটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ২শ শিক্ষার্থীকে এ কর্মসূচি যাত্রা শুরু করে। সপ্তাহে একদিন এ কর্মসূচি অব্যাহত রয়েছে। 
এছাড়া বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে শিশুদের চিত্রাংকন প্রতিযোগিতা, শিক্ষা উপকরণ বিতরণসহ উদ্বুদ্ধ করণ বিভিন্ন কর্মসূচির আয়োজন করছে টুঙ্গিপাড়া উপজেলা পরিষদ ও প্রশাসন। 
কর্মসূচির উদ্যোক্তা  উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ মঈনুল হক বলেন, দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে শিশুরা টুঙ্গিপাড়া আসে। তারা বঙ্গবন্ধুকে জানে।

এ ব্যাপারে তারা জ্ঞান লাভ করে। কিন্তু টুঙ্গিপাড়ার শিশুরা এ সুযোগ পায় না। তাই টুঙ্গিপাড়ার শিশুদের বঙ্গবন্ধু সম্পর্কে জানান দিতে উপজেলা প্রশাসন উদ্যোগ নিয়েছে। বঙ্গবন্ধু জিটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষা জীবন শুরু করেছিলেন। এখানে তিনি ৩য় শ্রেণি পর্যন্ত পড়াশোনা করেছেন। ওই বিদ্যালয়ের শিশুদের দিয়ে আমরা চলতি মাসের ৬ তারিখে এ কার্যক্রম শুরু করি। শিশুদের বঙ্গবন্ধুর আদর্শ, মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ও দেশপ্রেমে উদ্বুদ্ধ করতে আমি এ উদ্যোগ নিয়েছি। এটি অব্যাহত রয়েছে। পর্যায়ক্রমে টুঙ্গিপাড়া উপজেলার সব প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিশুদের নিয়ে এই কার্যক্রম সম্পন্ন হবে।

বিডি প্রতিদিন/এএ

এই বিভাগের আরও খবর

সর্বশেষ খবর