শিরোনাম
প্রকাশ : রবিবার, ১৫ মার্চ, ২০২০ ০০:০০ টা
আপলোড : ১৪ মার্চ, ২০২০ ২১:৫৫

একাদশের প্রতিশ্রুতি

সত্য প্রকাশে অঙ্গীকারবদ্ধ থাকব আমরা

একাদশের প্রতিশ্রুতি

বাংলাদেশ প্রতিদিন আজ একাদশ বছরে পদার্পণ করছে। এক দশক আগে শুরু হয়েছিল নতুন প্রজন্মের এই দৈনিকের পথচলা। পূর্বপ্রস্তুতি ছাড়াই ধূমকেতুর মতো হঠাৎ আত্মপ্রকাশ করেছিল বাংলাদেশ প্রতিদিন। দেশবাসীকে ভরসার স্থল ভেবে এগিয়ে যাওয়ার শপথ নিয়েছিলেন এর প্রত্যেক কর্মী। প্রথম বছরেই বাংলাদেশ প্রতিদিন প্রচারসংখ্যার শীর্ষে পৌঁছতে সক্ষম হয়। দেশবাসীর ভালোবাসায় সে অবস্থান শুধু ধরে রাখা নয়, গত এক দশকে প্রতিদিনই সম্প্রসারিত হয়েছে। বাংলাদেশ প্রতিদিনের কাফেলায় প্রতিদিন জড়ো হয়েছেন আরও বেশি পাঠক। পথচলার ক্ষেত্রে সত্যকে মিথ্যার সঙ্গে মিশ্রিত না করার ঐশী নির্দেশনাকে অনুসরণ করেছে এ দৈনিকটি। মুক্তিযুদ্ধের চেতনা, গণতন্ত্র ও সমৃদ্ধ দেশ গড়ার প্রত্যয়কে আমরা পাথেয় হিসেবে নিয়েছি। প্রতিটি ক্ষেত্রে ইতিবাচক দৃষ্টিভঙ্গির পরিচয় দেওয়ার চেষ্টা করেছে বাংলাদেশ প্রতিদিন। মুক্তবুদ্ধি ও মুক্ত বিবেকের প্রতিধ্বনি হিসেবে নিজেদের চিহ্নিত করতে আমাদের প্রয়াসে কোনো ঘাটতি ছিল না। যা কিছু অসত্য তার বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়িয়েছে এই দৈনিক। দুর্নীতির বিরুদ্ধে আমাদের লড়াকু ভূমিকায় কখনো ছেদ টানা হয়নি। অসাম্প্রদায়িক চেতনাকে এগিয়ে নেওয়ার নিরন্তর চেষ্টা অব্যাহত রেখেছি আমরা। বাংলাদেশ প্রতিদিন চলার পথে কারও সঙ্গে প্রতিযোগিতা নয়, নিজেকে প্রতিনিয়ত অতিক্রম করাকে করণীয় বলে ভেবেছে। সাধ ও সাধ্যের বৈপরীত্য প্রত্যাশা পূরণে বহু ক্ষেত্রে বাধা সৃষ্টি করলেও ইপ্সিত লক্ষ্যে এগিয়ে যাওয়ার সংকল্পে আমরা কখনো পিছপা হইনি। একাদশ বছরে পদার্পণের এই স্মরণীয় দিনে আমরা পাঠককে আশ্বস্ত করতে চাই- যে কোনো মূল্যে বাংলাদেশ প্রতিদিন সত্য, সুন্দর ও কল্যাণের পথে চলা অব্যাহত রাখবে। মানুষের হৃদয়রাজ্যে স্থান পাওয়া দৈনিক হিসেবে নিজেদের যে গর্বিত পরিচিতি গড়ে উঠেছে তা সমুন্নত রাখাকে কর্তব্য বলে ভাববে। প্রচারসংখ্যায় শীর্ষে থাকার কৃতিত্বে আত্মতৃপ্তি নয়, বরং আরও বেশি দায়িত্বশীল হওয়ার চেষ্টা অব্যাহত রাখবে বাংলাদেশ প্রতিদিন। সংবাদ পরিবেশনে সক্রিয় নিরপেক্ষতার নীতিতে অটল থাকতেও আমরা বদ্ধপরিকর। ব্যক্তি, দল বা গোষ্ঠীর বদলে দেশবাসীর কাছে অঙ্গীকারবদ্ধ থাকার নীতি আগামী দিনগুলোতেও অব্যাহত থাকবে। মহান মুক্তিযুদ্ধের উত্তরসূরি হিসেবে মুক্তিযুদ্ধের স্বপ্নসাধ সমৃদ্ধ বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠায় ভ্যানগার্ডের ভূমিকা পালন করবে বাংলাদেশ প্রতিদিন। এ লক্ষ্য অর্জনে আমরা সর্বশক্তিমানের সহায়তা চাই। সহৃদয় পাঠক, লেখক, বিজ্ঞাপনদাতা ও শুভানুধ্যায়ীদের সমর্থন অব্যাহত রাখারও সনির্বন্ধ আবেদন জানাই।


আপনার মন্তব্য