শিরোনাম
প্রকাশ : রবিবার, ১ সেপ্টেম্বর, ২০১৩ ০০:০০ টা
আপলোড : ১ সেপ্টেম্বর, ২০১৩ ০০:০০

মনমোহনের শব্দ এক্সপাঞ্জ

মনমোহনের শব্দ এক্সপাঞ্জ

রাজ্যসভায় ভারতীয় প্রধানমন্ত্রীর মনমোহন সিংয়ের একটি অসংসদীয় শব্দ মুছে ফেলা (এক্সপাঞ্জ) হয়েছে। বিরোধীদলীয় নেতা বিজেপি সাংসদ অরুণ জেটলির সমালোচনার জবাব দিতে গিয়ে মনমোহন শব্দটি ব্যবহার করেছিলেন। শুক্রবার ভারতীয় রাজ্যসভার অধিবেশনে বিরল এই ঘটনাটি ঘটেছে বলে জানিয়েছে এনডিটিভি। বিজেপির অরুণ জেটলির ব্যবহৃত কয়েকটি শব্দও মুছে ফেলা হয়। মনমোহন একজন নিপাট ভদ্রলোক রাজনীতিবিদ হিসেবে পরিচিত। তিনি সবসময়ই মার্জিত ভাষা ব্যবহার করেন। কিন্তু এদিন কিছুটা আক্রমণাত্দক ভাষায় তিনি বিজেপি সাংসদের সমালোচনার জবাব দেন। বিভিন্ন অভিযোগের পাশাপাশি মনমোহন ভারতীয় অর্থনীতিকে নাজুক অবস্থায় নিয়ে যাচ্ছেন বলেও অভিযোগ করেছিলেন জেটলি। এর জবাবে ভারতীয় প্রধানমন্ত্রী পার্লামেন্টে বারবার বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি, গুরুত্বপূর্ণ আইন পাসে বাধা দেওয়া এবং বিনিয়োগকারীদের অনুভূতিতে আঘাত করার জন্য বিজেপিকে পাল্টা অভিযুক্ত করেন। রাজ্যসভার বিরোধীদলীয় নেতা জেটলিকে পাল্টা আক্রমণ করে তিনি বলেন, 'এমন কোনো দেশের কথা শুনেছেন যেখানে সাংসদরা চিৎকার চেঁচামেচি করে আসন ছেড়ে উঠে এসে বলেন 'প্রধানমন্ত্রী ** হ্যায়।' মনমোহনের বক্তব্যের '**' চিহ্নিত শব্দটি পরবর্তী সময়ে রাজ্যসভার রেকর্ড থেকে মুছে ফেলা (এঙ্পাঞ্জ) হয়। ভারতে 'গলি গলি মে শোর হ্যায়, প্রধানমন্ত্রী চোর হ্যায়' জাতীয় স্লোগান চালু আছে। বিরোধী সাংসদের আক্রমণে আহত মনমোহন প্রধানমন্ত্রী হিসেবে তার মর্যাদার সবাইকে স্মরণ করিয়ে দিয়ে বলেন, 'এই হাউসের কিছু সদস্য আমার সম্পর্কে যাই বলুক না কেন, প্রধানমন্ত্রী হিসেবে আমি জি-২০ কাউন্সিলে নির্দিষ্ট মর্যাদা, সম্মান ও শ্রদ্ধার অধিকারী।'-প্রতিদিন ডেস্ক

 

 


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর
Bangladesh Pratidin

Bangladesh Pratidin Works on any devices

সম্পাদক : নঈম নিজাম,

নির্বাহী সম্পাদক : পীর হাবিবুর রহমান । বসুন্ধরা মিডিয়া লিমিটেডের পক্ষে ময়নাল হোসেন চৌধুরী কর্তৃক প্লট নং-৩৭১/এ, ব্লক-ডি, বসুন্ধরা আবাসিক এলাকা, বারিধারা, ঢাকা থেকে প্রকাশিত এবং ইস্ট ওয়েস্ট মিডিয়া গ্রুপ লিমিটেড প্লট নং-সি/৫২, ব্লক-কে, বসুন্ধরা, খিলক্ষেত, বাড্ডা, ঢাকা-১২২৯ ও কালিবালা দ্বিতীয় বাইপাস রোড, বগুড়া থেকে মুদ্রিত।
ফোন : পিএবিএক্স-০৯৬১২১২০০০০, ৮৪৩২৩৬১-৩, ফ্যাক্স : বার্তা-৮৪৩২৩৬৪, ফ্যাক্স : বিজ্ঞাপন-৮৪৩২৩৬৫।
ই-মেইল : [email protected] , [email protected]

Copyright © 2015-2020 bd-pratidin.com