শিরোনাম
প্রকাশ : মঙ্গলবার, ২৩ জুলাই, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ২২ জুলাই, ২০১৯ ২৩:৫৮

বান্দরবান সাতক্ষীরায় দুই আওয়ামী লীগ নেতাকে গুলি করে হত্যা

প্রতিদিন ডেস্ক

বান্দরবান সাতক্ষীরায় দুই আওয়ামী লীগ নেতাকে গুলি করে হত্যা

সন্ত্রাসীদের গুলিতে সাতক্ষীরা ও বান্দরবানে গতকাল দুই আওয়ামী লীগ নেতা নিহত হয়েছেন। এ নিয়ে এসব এলাকায় উত্তেজনা দেখা দিয়েছে। সাতক্ষীরায় ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সহসভাপতি নজরুল ইসলামকে হত্যার ঘটনায় পূর্ববিরোধ ও বান্দরবানের তারাছা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি মংমং থোয়াই মারমা হত্যার জন্য আঞ্চলিক জনসংহতি সমিতিকে দায়ী করা হয়েছে। অবশ্য জনসংহতি সমিতি তা অস্বীকার করেছে। সাতক্ষীরা প্রতিনিধি জানান, গতকাল বেলা সাড়ে ১১টার দিকে শহরের কাশেমপুর হাজামপাড়া থেকে পুলিশ গুলিবিদ্ধ আগরদাঁড়ি ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সহসভাপতি নজরুল ইসলামের লাশ উদ্ধার করেছে। আগরদাঁড়ি ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি হাবিবুর রহমান হবি জানান, বেলা ১১টার দিকে নজরুল ইসলাম কদমতলা থেকে কেনাকাটা শেষে মোটরসাইকেলে বাড়ি ফিরছিলেন। এ সময় পেছন দিক থেকে অন্য একটি মোটরসাইকেলে এসে দুর্বৃত্তরা তাকে দুই রাউন্ড গুলি করে পালিয়ে যায়। এতে তিনি মাটিতে লুটিয়ে পড়েন। ঘটনার পরপরই এলাকাবাসী সাতক্ষীরা-বৈকারি সড়ক অবরোধ করে রাখে। খবর পেয়ে সাতক্ষীরা অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ইলতুৎমিশ ফোর্স নিয়ে গিয়ে নজরুলের গুলিবিদ্ধ লাশ উদ্ধার করেন।

বান্দরবান প্রতিনিধি জানান, গুলিতে নিহত মংমং থোয়াই মারমা (৪৮) জেলার রোয়াংছড়ি উপজেলার তারাছা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি। গতকাল বিকাল ৪টার দিকে বান্দরবান-রোয়াংছড়ি সড়কের সামুখ ঝিরি এলাকায় হত্যার ঘটনা ঘটে। পুলিশ ও আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীরা জানান, মংমং থোয়াই মারমা রোয়াংছড়ি উপজেলায় দলীয় মিটিং শেষে মোটরসাইকেলে বান্দরবান সদরে ফেরার পথে ওত পেতে থাকা জেএসএসের সশস্ত্র সন্ত্রাসীরা তাকে লক্ষ্য করে এলোপাতাড়ি গুলি চালায়। বুকে, পিঠে ও পায়ে গুলিবিদ্ধ হয়ে তিনি ঘটনাস্থলেই মারা যান। খবর পেয়ে আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীরা লাশ উদ্ধার করে বান্দরবান সদর হাসপাতালে নিয়ে আসেন।’

বান্দরবানে আওয়ামী লীগ নেতাকে হত্যার প্রতিবাদে আজ রোয়াংছড়ি উপজেলায় অর্ধদিবস হরতালের ডাক দিয়েছে  জেলা আওয়ামী লীগ। এ ছাড়া গতকাল সন্ধ্যায় এই হত্যার প্রতিবাদে জেলা সদরে মিছিল ও প্রতিবাদ সভা করেছে।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর