শিরোনাম
প্রকাশ : বুধবার, ৬ নভেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ৫ নভেম্বর, ২০১৯ ২৩:১৩

ঢাকায় চার দফা জানাজা হবে সাদেক হোসেন খোকার

নিজস্ব প্রতিবেদক

অবিভক্ত ঢাকা সিটি করপোরেশনের সাবেক মেয়র বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান সাদেক হোসেন খোকার মরদেহ যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্ক থেকে আগামীকাল বৃহস্পতিবার সকালে ঢাকায় পৌঁছবে। ওইদিন চার দফা জানাজা এবং কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে সর্বস্তরের মানুষের শ্রদ্ধা নিবেদনের পর জুরাইনে বাবা-মায়ের কবরের পাশে চিরনিদ্রায় শায়িত হবেন একাত্তরের এই  গেরিলা যোদ্ধা। এদিকে সাদেক হোসেন খোকার মৃত্যুতে আজ বুধবার সারা দেশে শোক কর্মসূচি পালন করবে বিএনপি। ক্যান্সারে আক্রান্ত খোকা সোমবার নিউইয়র্কের ম্যানহাটনে মেমোরিয়াল স্লোয়ান ক্যাটারিং ক্যান্সার সেন্টারে মারা যান। সোমবার রাতে কুইন্সের জ্যামাইকা মুসলিম সেন্টারে তার জানাজা হয়। এদিকে খোকার জানাজা ও দাফনের কর্মসূচি ঠিক করতে গতকাল দুপুরে নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলামের নেতৃত্বে  বৈঠক হয়। পরে সংবাদ সম্মেলনে বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী এই কর্মসূচি ঘোষণা করেন। তিনি জানান, সাদেক হোসেন খোকার মরদেহ বৃহস্পতিবার সকাল ৮টা ১০ মিনিটে হজরত শাহ জালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে এসে পৌঁছলে তার কফিন গ্রহণ করবেন দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য ইকবাল হাসান মাহমুদ টুকু। এরপর বেলা ১১টায় সংসদ ভবনের দক্ষিণ প্লাজা, বাদ  জোহর নয়াপল্টনের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে, বিকাল ৩টায় ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের নগর ভবন এবং বাদ আসর ধূপখোলা মাঠে তার জানাজা অনুষ্ঠিত হবে। প্রথম জানাজার পর প্রয়াত এই বীর মুক্তিযোদ্ধার মরদেহ দুপুর ১২টা থেকে ১টা পর্যন্ত  কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে রাখা হবে সর্বস্তরের জনগণের শ্রদ্ধা নিবেদনের জন্য। আর নগর ভবনের জানাজা  শেষে দাফনের আগে গোপীবাগের বাসায় তার কফিন কিছুক্ষণ রাখা হবে। চতুর্থ জানাজার পর সাদেক হোসেন খোকাকে জুরাইন কবরস্থানে বাবা-মায়ের কবরের পাশে দাফন করা হবে বলে জানান রিজভী। তিনি বলেন, সাদেক হোসেন খোকার মৃত্যুতে আজ বুধবার বিএনপির উদ্যোগে ঢাকাসহ সারা দেশে শোক দিবস পালন করা হবে। এ উপলক্ষে সারা দেশে দলীয় কার্যালয়ে কালো পতাকা উত্তোলন ও কালো ব্যাজ ধারণ এবং সব কার্যালয়ে  কোরআনখানি হবে। সংবাদ সম্মেলনে বিএনপির খায়রুল কবির খোকন, হাবিব-উন নবী সোহেল, ফজলুল হক মিলন, শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানী, শফিউল বারী বাবু, আবদুল কাদের জুয়েল, মুনির হোসেন, কাজী আবুল বাশার, মুন্সি বজলুল বাসিত আনজু প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।


আপনার মন্তব্য