শিরোনাম
প্রকাশ : শনিবার, ২৩ নভেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ২২ নভেম্বর, ২০১৯ ২৩:১৩

দ্বিপক্ষীয় সম্পর্কে আরও একটি ইতিবাচক ঘটনা

নিজস্ব প্রতিবেদক

দ্বিপক্ষীয় সম্পর্কে আরও একটি ইতিবাচক ঘটনা
শমসের মবিন চৌধুরী

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভারতের মাটিতে গোলাপি বলের প্রথম টেস্ট ম্যাচ উদ্বোধনকে দ্বিপক্ষীয় সম্পর্কের আরও একটি ইতিবাচক ঘটনা বলে অভিহিত করেছেন সাবেক পররাষ্ট্র সচিব শমসের মবিন চৌধুরী। তিনি বলেন, ভারত-বাংলাদেশের সম্পর্ক এখন অত্যন্ত গভীর। সেখানে ভারত-বাংলাদেশের একটি ঐতিহাসিক টেস্ট ম্যাচের উদ্বোধন করেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আর পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি। দ্বিপক্ষীয় সম্পর্কের ক্ষেত্রে এটা আরেকটি ইতিবাচক ঘটনা। একে মাইলফলক সফর বলা যাবে না। গতকাল সন্ধ্যায় বাংলাদেশ প্রতিদিনের সঙ্গে টেলিফোনে আলাপচারিতায় বিকল্পধারার প্রেসিডিয়াম সদস্য শমসের মবিন চৌধুরী বলেন, প্রধানমন্ত্রীর এ সফরে দ্বিপক্ষীয় সম্পর্ক উন্নয়নের ক্ষেত্রে তেমন প্রভাব পড়বে না। বিশেষ করে তিস্তা নদীর পানি বণ্টন বা অভিন্ন নদীর পানি বণ্টনে বরফ গলার কথা নয়। যদ্দুর জেনেছি, আমাদের প্রধানমন্ত্রী সেখানে পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জির সঙ্গে একটিমাত্র বৈঠক করবেন। এর বাইরে আর কোনো উচ্চ পর্যায়ের বৈঠক আছে বলে মনে হয় না। শমসের মবিন চৌধুরী বলেন, নদীর পানি বণ্টনের ক্ষেত্রে সংশ্লিষ্ট যে মন্ত্রণালয় বা দায়িত্বপ্রাপ্ত কেউ প্রধানমন্ত্রীর সফরসঙ্গী নেই। ভারত সরকারের পক্ষ থেকে পানি নিয়ে কথা বলারও সেখানে কাউকে দেখা যায়নি। এ ক্ষেত্রে এ সফর বলা যায় অনেকটাই প্রতীকী। এর বেশি কিছু আশা করাটা মনে হয় অবাস্তব হবে। তিনি বলেন, খেলাধুলার সম্পর্ক আন্তর্জাতিক সংস্কৃতির আদান-প্রদানের মধ্যেই পড়ে। সে ক্ষেত্রে এটা একটা ইতিবাচক দিক। ভারতে সর্বপ্রথম একটি দিনরাতের গোলাপি বলের টেস্ট ক্রিকেট ম্যাচের উদ্বোধন হলো। এটাই ইতিহাসে মাইলফলক। ওখানে ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের উচ্চ পর্যায়ের কেউ আছেন বলেও মনে হয় না। বিস্তারিত আলাপ হওয়ার সম্ভাবনা খুবই কম। তাই এ সফর প্রতীকী, সৌজন্যমূলক।


আপনার মন্তব্য