শিরোনাম
প্রকাশ : শনিবার, ১৫ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ০০:০০ টা
আপলোড : ১৪ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ২৩:৩০

কাপ্তাই লেকে নৌকাডুবিতে আট জনের মৃত্যু

রাঙামাটি প্রতিনিধি

কাপ্তাই লেকে নৌকাডুবিতে আট জনের মৃত্যু
কাপ্তাই লেকে উদ্ধারকৃত ডুবে যাওয়া নৌকা -বাংলাদেশ প্রতিদিন

রাঙামাটির দুই স্থানে পর্যটক বোঝাই তিনটি নৌকা ডুবে ৮ জন নিহত হয়েছেন। একটি ঘটনা ঘটেছে গতকাল বেলা ১১টায় রাঙামাটি ডিসি বাংলো কাপ্তাই হ্রদ এলাকায় এবং আরেকটি ঘটেছে দুপুর সাড়ে ১২টায় কাপ্তাই উপজেলার শিলছড়ি কয়লার ঘাট এলাকায়। কাপ্তাই হ্রদ এলাকার নৌকাডুবিতে  নিহত হয়েছেন, শিলা আক্তার (২২), আসমা আক্তার (৪০), রিনা বেগম (৪৫), আফরোজ (১২) ও রবিউল (২১)। শিলছড়ি কয়লার ঘাট এলাকায় নিহত হয়েছে বিনয় (৫), দেবলীলা (১০) ও টুম্পা মজুমদার (৩)।

জানা গেছে, চট্টগ্রাম থেকে ৫০ জনের নারী-পুরুষ রাঙামাটিতে পিকনিক করতে আসেন। তারা পৃথক দুটি স্থান  থেকে বোট ভাড়া করেন। তাদের মধ্যে ৩০ জনের একটি দল রাঙামাটি পর্যটন এলাকা থেকে একটি ট্যুরিস্ট বোট নিয়ে সুবলংয়ে যাত্রা করেন। অন্য ২০ জনের দলটি শহরের উন্নয়ন বোর্ড ঘাট থেকে একই স্থানে যাওয়ার জন্য নৌকা ভাড়া করেন। পরে দুই নৌকা একসঙ্গে হলে আরোহীরা নাচ-গান করতে থাকেন। এ অবস্থায় নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে দুটি নৌকাই কাপ্তাই হ্রদে ডুবে যায়। খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিস, পুলিশ ও সেনা সদস্যরা এসে উদ্ধার অভিযান চালান। এ সময় ৫০ জনের  মধ্যে ঘটনাস্থলেই ৫ জন মারা যান। রাঙামাটি জেনারেল হাসপাতালের আর এম ও শওকত আকবর জানান, দীর্ঘ সময় পানিতে থাকার কারণে শ্বাসরুদ্ধ হয়ে তারা মারা গেছেন। রাঙামাটি জেলা প্রশাসক এ কে এম মামুনুর রশিদ জানান, এ ঘটনায় ৫ জন ছাড়া আর কেউ মারা যাননি। বাকিরা অক্ষত আছেন। তিনি আরও বলেন, এ ধরনের ঘটনা এড়াতে তাৎক্ষণিক একটি জরুরি সভায় সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে যে, লাইভ জ্যাকেট ছাড়া রাঙামাটি কাপ্তাই হ্রদে যাত্রী নিয়ে কোনো বোট চলতে পারবে না। অন্যদিকে রাঙামাটি কাপ্তাই উপজেলায় শীলছড়ি কয়লার ঘাট এলাকায় ১৫০ জনের একটি ট্যুরিস্ট বোট কর্ণফুলী নদীতে ডুবে যায়। এ ঘটনায় নিহত হন ৩ জন। খবর পেয়ে কাপ্তাই শহীদ মোয়াজ্জম ঘাটের নৌ-বাহিনীর ডুবুরি দল উদ্ধার তৎপরতা চালায়। কাপ্তাই উপজেলা থানার তদন্ত কর্মকর্তা শফিউল আজাদ জানান, চট্টগ্রাম থেকে সনাতন ধর্মাবলম্বীদের দল শিলছড়ি মন্দিরে পূজা দিতে আসেন। পরে ফিরে যাওয়ার সময় বোটডুবির ঘটনা ঘটে। অতিরিক্ত যাত্রী থাকার কারণে বোটটি ডুবে যায়।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর