শিরোনাম
প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ৬ আগস্ট, ২০২০ ০০:০০ টা
আপলোড : ৫ আগস্ট, ২০২০ ২৩:৫৯

চট্টগ্রামে তিন কিশোরীকে আটকে রেখে ধর্ষণ

নিজস্ব প্রতিবেদক, চট্টগ্রাম

চট্টগ্রাম নগরীর খুলশী এলাকার তিন কিশোরীকে এক বাসায় আটকে রাতভর ধর্ষণের অভিযোগে দুই যুবককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গত মঙ্গলবার গভীর রাতে নগরীর সেগুনবাগান এলাকা থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারকৃতরা হলো- সেগুনবাগান এলাকার ৫ নম্বর লেনের কামাল উদ্দিনের ছেলে মোহাম্মদ লিটন (৩৭) ও লালখানবাজার তুলাপুকুর পাড় এলাকার শাহজাহান সরদারের ছেলে সোহেল রানা রাজু (২৮)। এ ঘটনায় একটি মোটরসাইকেল জব্দ করা হয়েছে। গ্রেফতারকৃত দুজনকে আদালতে হাজির করে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য রিমান্ডের আবেদন করা হয়েছে। খুলশী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) প্রণব চৌধুরী বলেন, ১৩-১৪ বছর বয়সী তিন কিশোরী নগরীর বায়েজিদ বোস্তামি থানার ধ্বনি পাহাড় এলাকার বাসিন্দা এবং প্রতিবেশী বান্ধবী। বাসায় রাগ করে গত ২৯ জুলাই সন্ধ্যার দিকে তিন বান্ধবী বের হয়ে নগরীর টাইগারপাস এলাকায় যায়। সেখানে এক লোকের সঙ্গে তাদের পরিচয় হয়। ওই লোক তাদের রাতে থাকার জায়গা দেওয়ার কথা বলে খুলশী আবাসিক এলাকার তিন নম্বর সড়কের একটি বাড়িতে নিয়ে যায়। বাড়িটি একজন প্রবাসীর। দারোয়ান ছাড়া সেই বাড়িতে আর কেউ থাকে না। নির্জন ওই বাড়িতে তিন কিশোরীকে আটকে রেখে রাতভর দুই যুবক ধর্ষণ করে। ভোরে দুই যুবক চলে যাওয়ার পর তিন কিশোরী বাসায় ফিরে যায় এবং অভিভাবকদের ঘটনা জানায়। পরে তারা থানায় এসে অভিযোগ করে। অভিযোগ পেয়ে ওই বাসার দারোয়ান ওমর ফারুককে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। তিনি প্রথমে ঘটনা অস্বীকার করলেও পরে সিসি ক্যামেরার ফুটেজে রাতে মোটরসাইকেল নিয়ে ওই বাসায় দুই যুবক প্রবেশের তথ্য পাওয়া যায়। ওই দারোয়ানকে গ্রেফতার দেখানো হয়েছে। গ্রেফতার লিটন খুলশীর ওই বাসার মালিকের গাড়িচালক ছিলেন। দারোয়ানের সঙ্গে তার আগে থেকে পরিচয় আছে। বাড়ির মালিক বিদেশে চলে যাওয়ার পর লিটন পরিবহন ব্যবসা শুরু করে। তার একটি বাস চট্টগ্রাম-নোয়াখালী রুটে চলাচল করে। গ্রেফতার আরেক যুবক সোহেল রানা বাসচালক।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর