শিরোনাম
প্রকাশ : মঙ্গলবার, ২০ জুলাই, ২০২১ ০০:০০ টা
আপলোড : ১৯ জুলাই, ২০২১ ২৩:১৮

দিনে মাত্র ৭ টাকায় হবে চিকিৎসা

নিজস্ব প্রতিবেদক

দিনে মাত্র ৭ টাকায় হবে চিকিৎসা
ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী
Google News

গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেছেন, দিনে মাত্র ৭ টাকায় রাজধানীর স্বল্প ও নিম্ন আয়ের জনগোষ্ঠীর জন্য চিকিৎসার ব্যবস্থা করেছি। কারণ এসব মানুষই হচ্ছেন বাংলাদেশের চালিকাশক্তি। এজন্য আমরা দুটি কাজ করেছি। একটি হচ্ছে সবার জন্য বিশেষ গণস্বাস্থ্য বীমা। দিনে মাত্র ৭ টাকা। ৭ টাকা খরচ করে আপনাদের সব চিকিৎসার ব্যবস্থা আমরা করে দেব।

গতকাল রাজধানীর যাত্রাবাড়ী থানার মীরহাজিরবাগ আবু হাজী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে গণস্বাস্থ্য কেন্দ্র কর্তৃক মা ও শিশুদের মধ্যে পুষ্টিকর খাবার বিতরণকালে জাফরুল্লাহ চৌধুরী এসব কথা বলেন।

এ সময় গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের ভ্রাম্যমাণ হাসপাতালের সমন্বয়ক অধ্যাপক শওকত আরমান, গণস্বাস্থ্য নগর হাসপাতালের পরিচালক বদরুল হক, স্থানীয় সমাজসেবী মোজাম্মেল হক প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

ডা. জাফরুল্লাহ শ্রমিকদের উদ্দেশে বলেন, আজকের বাংলাদেশ আপনারা বাঁচিয়ে রেখেছেন। আপনাদের পরিশ্রমে, আপনাদের কষ্টে আমরা শার্ট-প্যান্ট পরি, গাড়ি-ঘোড়ায় চড়ি। আমরা আপনাদের শিশুদের সুস্থতা চাই। আপনাদের শিশুদের লেখাপড়া করতে হবে। যাতে আপনাদের জীবনের উন্নতি হয়। তিনি বলেন, আপনারা বাসাবাড়িতে, কলকারখানায় প্রচুর কাজ করেন। কারও যদি অসুখ হয় তাহলে আপনাদের সারা মাসের সঞ্চয় শেষ হয়ে যায়। সেজন্য আমরা স্বাস্থ্যবীমা করেছি। মাসে ২০০ টাকা, অর্থাৎ দিনে ৭ টাকা। এ টাকা দিয়ে ডাক্তারের চিকিৎসা পাবেন, অস্থায়ী ওষুধ পাবেন, হাসপাতালে ভর্তি হলে পয়সা (টাকা) লাগবে না। আপনাদের সন্তানদের সুন্নতে খতনা করাতে টাকা লাগবে না। গর্ভবতী মায়েদের টাকা ছাড়াই প্রসব করিয়ে দেব। তবে আপনাদের পান খাওয়া বন্ধ করতে হবে। বিড়ি-সিগারেট খাওয়া বন্ধ করতে হবে। এসব শরীরের জন্য ক্ষতিকর। এ টাকা দিয়ে আপনার সন্তানদের পড়াশোনা করাবেন।

জাফরুল্লাহ চৌধুরী আরও বলেন, আপনার সন্তানরা যদি প্রাইমারি স্কুল শেষ করে, কলেজ শেষ করে; আমাদের একটা বিশ্ববিদ্যালয় আছে সেখানে অল্প খরচে লেখাপড়ার সুযোগ দেব। কারণ আপনারাই হলেন আমার জাতির ভবিষ্যৎ। আপনার সন্তানদের যেন আপনাদের মতো কষ্ট করতে না হয় সেজন্য আমরা এ ব্যবস্থা নিয়েছি। অনুষ্ঠানে ৫০০ পরিবারের মধ্যে মা ও শিশুদের বিশেষ পুষ্টিকর খাদ্য বিতরণ করা হয়।