শিরোনাম
সোমবার, ৮ মে, ২০২৩ ০০:০০ টা

শেখ হাসিনা না ফিরলে গণতন্ত্র ফিরত না

নিজস্ব প্রতিবেদক

শেখ হাসিনা না ফিরলে গণতন্ত্র ফিরত না

তথ্যমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, ২০০৭ সালের ৭ মে শেখ হাসিনা সব রক্তচক্ষুকে উপেক্ষা করে, নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে, জীবনকে হাতের মুঠোয় নিয়ে দেশে না ফিরলে বাংলাদেশে গণতন্ত্রও ফিরত না। গতকাল দুপুরে জাতীয় প্রেস ক্লাবে ‘বাংলার স্থপতি’ শীর্ষক সাত খন্ড বইয়ের প্রকাশনা এবং গ্রন্থকার অ্যালভিন দীলিপ বাগচীর সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।

অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ খ্রিস্টান যুব কল্যাণ সমিতির সভাপতি ইলারিশ আর গোমেজের সভাপতিত্বে বাংলাদেশ সংবাদ সংস্থা (বাসস) পরিচালনা পর্ষদের চেয়ারম্যান আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক, সাবেক সচিব মো. শহীদ উল্লাহ খন্দকার, বিশপ থিওটোনিয়াস গোমেজ প্রমুখ বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন। তথ্যমন্ত্রী বলেন, ১৯৮১ সালের ১৭ মে শেখ হাসিনা প্রথমবার আওয়ামী লীগের সভাপতি হিসেবে বাংলাদেশে পদার্পণ করেন। ২০০৭ সালের ৭ মে তার দ্বিতীয় দফা প্রত্যাবর্তনের দিন। প্রকৃতপক্ষে গণতন্ত্র এবং গণতন্ত্রের মানসকন্যার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস। বাংলাদেশের গণতান্ত্রিক আন্দোলনের ইতিহাসে দিনটি অত্যন্ত তাৎপর্যপূর্ণ। তার বিরুদ্ধে মামলা এবং দেশে ফেরার ওপর নিষেধাজ্ঞা থাকার পরও বঙ্গবন্ধুকন্যা বলেছিলেন, আমি ঢাকায় গিয়ে মামলায় লড়ব। আমি তখন তার বিশেষ সহকারী হিসেবে কাজ করতাম। অভ্যর্থনা জানাতে বিমানবন্দরে যাওয়ার সময় কোনো মানুষ দেখিনি। অথচ বিমানবন্দর থেকে যখন তিনি আসছিলেন তখন রাস্তার দুই ধার ছাপিয়ে হাজার হাজার, লাখ লাখ মানুষ চলে এলো শেখ হাসিনাকে বরণ করার জন্য। তিনি আরও বলেন, বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে বিভিন্ন জন বই লেখেন। অনেক ক্ষেত্রে লেখার প্রতিযোগিতাও তৈরি হয়েছে। সেটি করতে গিয়ে অনেক ইতিহাস বিকৃতি হচ্ছে। বইয়ের মান রক্ষিত হচ্ছে না। বঙ্গবন্ধুর ওপর দেশে-বিদেশে যে সব বই রচিত হয়েছে সেগুলো নির্দিষ্ট মানদন্ড মেনে চলা প্রয়োজন। কোনোভাবেই যেন ন্যূনতম ইতিহাস বিকৃতি যেন না ঘটে সে ব্যাপারে সচেতন থাকতে হবে।

সর্বশেষ খবর