শিরোনাম
প্রকাশ : শুক্রবার, ২ আগস্ট, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ১ আগস্ট, ২০১৯ ২২:০৯

রূপচর্চায় হার্বস

রূপচর্চায় হার্বস

আদা, মেথি, পুদিনাপাতা, তুলসীপাতা আরও কত কি! ভাবছেন সৌন্দর্যের পাতায় রেসিপি লিখতে বসেছি? না ভুল হচ্ছে না। রান্নার এসব উপকরণ শরীরের জন্য যতটা ভালো ততটাই ভালো রূপচর্চায়।

 

তুলসীপাতা

প্রাচীনকাল থেকেই আজ অবধি তুলসী ব্যবহৃত হয়ে আসছে রূপচর্চায়। তাজা তুলসীপাতার ওপর কয়েক ফোঁটা পানি দিয়ে নাকের দুই পাশে ৫ মিনিট রেখে দিন। ব্লাকহেডস থেকে মুক্তি পাবেন। এ ছাড়াও সমপরিমাণ আমলকী গুঁড়া ও শুকনো তুলসীপাতা গুঁড়া মিশিয়ে সামান্য পানি দিয়ে সারা রাত রেখে দিন। সকালে তাতে নারিকেল তেল মিশিয়ে পুরো চুলে লাগিয়ে রাখুন। চুল পড়া কমবে।

 

পুদিনাপাতা

ঔষধি গুণে ভরপুর এই পাতায় আছে ভিটামিন এ, সি এবং বি-৬, যা পা ফাটা রোধে দারুণ কার্যকরী। অলিভ অয়েল এবং পুদিনাপাতা বেটে ফাটা গোড়ালিতে লাগালে উপকার পাবেন। এক কাপ পানিতে পুদিনাপাতা দিয়ে ৫ মিনিট ফুটিয়ে নিন। তাতে অর্ধেক লেবুর রস এবং গোলাপজল মিশিয়ে ফ্রিজে স্টোর করে টোনার হিসেবে ব্যবহার করতে পারবেন।

 

মেথি

কুসুম গরম পানির সঙ্গে ১ টেবিল চামচ মেথি মিশিয়ে নিন। এবার মিশ্রণটিতে পরিষ্কার কাপড় ভিজিয়ে ফোলা জায়গায় লাগান। মিশ্রণটির সঙ্গে মধু মিশিয়ে নিলেই ফেস মাস্ক হিসেবে ব্যবহার করতে পারবেন। এ ছাড়া মেথির টোনার বানাতে চার কাপ পানির সঙ্গে এক মুঠো মেথি দিয়ে ১৫ মিনিট ফুটিয়ে ঠান্ডা হলে ছেঁকে স্টোর করুন।

 

আদা

ত্বকের আর্দ্র ঠিক রাখার দাদা হিসেবে খ্যাত আদা। এক চা চামচ আদার রসের সঙ্গে মধু মিশিয়ে নিন। সঙ্গে কয়েক ফোঁটা গোলাপজল দিন। মিশ্রণটি মুখে লাগিয়ে শুকিয়ে গেলে ধুয়ে ফেলুন। খুশকি তাড়াতে ২ টেবিল চামচ আদার সঙ্গে ৩ টেবিল চামচ তিলের তেল বা অলিভ অয়েল আর কয়েক ফোঁটা লেবুর রস মিশিয়ে স্ক্যাল্পে লাগান। উপকার পাবেন।

 

নিমপাতা

নিমের কদর সম্পর্কে তো আর বলার কিছু নেই। এক মুঠো নিমপাতা ৪-৫ কাপ পানিতে ফুটিয়ে নিন। শ্যাম্পু করার পর ফোটানো নিম পানি দিয়ে চুল ধুয়ে নিলে দেখবেন খুশকির সমস্যা কমবে। গোসলে নিমের পানি ব্যবহার করলে ত্বকের ইনফেকশন কমবে।

 

হলুদ

ত্বকের উজ্জ্বলতা বাড়াতে এবং ত্বকের দাগছোপ দূর করতে হলুদের জুড়ি নেই। এক চিমটি হলুদের গুঁড়ার সঙ্গে ২ টেবিল চামচ চন্দনের গুঁড়া, ২ চা চামচ দুধ এবং কয়েক ফোঁটা লেবুর রস মিশিয়ে মুখে ও গলায় লাগিয়ে নিন। শুকিয়ে গেলে কুসুম গরম পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। উপকার পাবেন।

 

কালো গোলমরিচ

৫ চা চামচ মুলতানি মাটির সঙ্গে ২ চা চামচ দই ও এক চা চামচ  গোলমরিচ গুঁড়া দিয়ে পেস্ট তৈরি করে স্ক্যাল্পে ব্যবহার করতে পারেন। এরপর মাইল্ড শ্যাম্পু দিয়ে ধুয়ে নিন। নিয়মিত ব্যবহারে চুলপড়া কমবে। এ ছাড়া আধা চা চামচ গোলমরিচের গুঁড়ার সঙ্গে এক চা চামচ দই মিশিয়ে ফেস স্ক্রাব হিসেবেও ব্যবহার করতে পারেন। ব্ল্যাক হেডস দূর হবে। ত্বকে অস্বস্তি হলে ঠান্ডা পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলুন। লিখেছেন- নূরজাহান জেবিন


আপনার মন্তব্য