শিরোনাম
প্রকাশ : ১৬ মার্চ, ২০১৯ ১১:২৭

আদালতে হাসছিলেন সেই হামলাকারী

অনলাইন ডেস্ক

আদালতে হাসছিলেন সেই হামলাকারী

নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চে মসজিদে সন্দেহভাজন হামলাকারী সেই ২৮ বছর বয়সী অস্ট্রেলীয় বংশোদ্ভূত ব্রেন্টন ট্যারেন্টকে ৫ এপ্রিল পর্যন্ত রিমান্ডে নেওয়া হয়েছে। হামলার প্রধান সন্দেহভাজন হিসেবে শনিবার ট্যারেন্টকে আদালতে হাজির করে তার বিরুদ্ধে হত্যার অভিযোগ আনা হয়। এবং জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তার বিরুদ্ধে রিমান্ডের আবেদন জানানো হয়। শুনানি শেষে আদালত ২০ দিনের এ রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

নিউজিল্যান্ড হেরাল্ডের খবর, শনিবার সকালে ব্রেন্টন ট্যারেন্টকে ক্রাইস্টচার্চ ডিস্ট্রিক্ট কোর্টে হাজির করা হয়। এ সময় তার পরনে ছিল সাদা পোশাক, হাতে হাতকড়া এবং খালি পা। আদালতে তার ছবি তোলার সময় তিনি আলোকচিত্রীদের দিকে তাকিয়ে হাসছিলেন। এ সময় তার পাশে দুই পুলিশ সদস্য ছিলেন।

আদালতের বিচারক পল কেলার হামলাকারী ব্রেন্টনের ছবি তোলার অনুমতি দিলেও বিচার–সম্পর্কিত অধিকার বজায় রাখতে তার ছবি প্রকাশের সময় মুখ ঝাপসা করে দেওয়ার নির্দেশ দেন।

এদিকে, ব্রেন্টনকে আদালতে নেওয়ার খবর পেয়ে আদালতকক্ষের বাইরে বিপুলসংখ্যক দেশি-বিদেশি গণমাধ্যম কর্মী উপস্থিত হন। একই সঙ্গে ছিল আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর বিপুল উপস্থিতি। তবে শুধু অনুমতি পাওয়া নিউজিল্যান্ডের তিনটি গণমাধ্যম আদালত কক্ষের ভেতরে ছবি তোলা ও ফুটেজ নেওয়ার অনুমতি পায়। 

প্রতিবেদনে আরও বলা হয়, সন্দেহভাজন হামলাকারী ব্রেন্টনের ঠোঁটের ওপরে কাটা ছিল। শুনানি চলাকালে তিনি কোনো কথা বলেননি। কেবল জনসাধারণের গ্যালারিতে উপস্থিত সাংবাদিকদের দিকে তাকিয়ে ছিলেন।

বিডি-প্রতিদিন/১৬ মার্চ, ২০১৯/মাহবুব


আপনার মন্তব্য