শিরোনাম
প্রকাশ : ২৪ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ০৬:২৭

গাঁজা কিনতে চারজনকে পিটিয়ে হত্যা

অনলাইন ডেস্ক

গাঁজা কিনতে চারজনকে পিটিয়ে হত্যা
প্রতীকী ছবি

২০ বছর বয়সী এম অন্দিস্বামী। ছিলেন স্কুলের সেরা ছাত্র। ধীরে ধীরে আসক্ত হলেন গাঁজা সেবনে। গাঁজা কেনার অর্থ জোগাড়ের জন্য পাথর দিয়ে নির্মমভাবে পিটিয়ে চারজনকে হত্যা করেছে সে।

২০১৯ সালের ডিসেম্বরে অন্দিস্বামী প্রথম হত্যাকাণ্ড ঘটায়। ভারতের নাগাপাত্তিনামে এ হত্যাকাণ্ড ঘটা বাকিগুলো হত্যাগুলো এর পরবর্তী সময়ে করে। এ চারজনকে হত্যার দায়ে গত শুক্রবার তাকে গ্রেফতার করেছে তামিলনাডু পুলিশ। তার হত্যা তালিকার তিনজনই ভিক্ষুক, অন্যজন নিরাপত্তা কর্মী।

২০১৪ সালে স্কুলে পড়াকালীন সময়ে ক্লাস টেনের পরীক্ষায় সেরা হয়েছিল সে। পরিবারে আর্থিক অনটনের জেরে পড়াশোনা চালিয়ে যেতে পারেনি সে। হাতখরচ চালাতে কাজ ধরেছিল সে। যদিও এর পরেই গাঁজার নেশায় ডুবে যায়। মাকেও টাকা চেয়ে হুমকি দিত। একদিন আচমকাই বাড়ি ছেড়ে বেরিয়ে পড়ে।

পুলিশের কমিশনার টি সেনথিল জানিয়েছেন, গত ডিসেম্বরে পাথর দিয়ে থেঁতলে এক নিরাপত্তারক্ষীকে খুন করে সে। গ্রেফতার হওয়ার ভয়ে পরে পালিয়ে গিয়েছিল। এর পরেই ফের টাকায় টান পরায় ফেব্রুয়ারির শুরুতে পর পর তিনটি  ভিক্ষুককে খুন করে সে।

শহরের পুলিশ পর পর একইভাবে খুনের ধরন দেখে রাস্তার সিসিটিভি ফুটেজের সাহায্যে নাগাল পায় অভিযুক্তের। ১৬ জনের স্পেশ্যাল টিম তৈরি করে খোঁজা শুরু হয় তার। পরে ১৮ ফেব্রুয়ারি অন্দিস্বামীকে গ্রেফতার করে পুলিশ।


বিডি-প্রতিদিন/বাজিত হোসেন


আপনার মন্তব্য