শিরোনাম
প্রকাশ : ৩০ নভেম্বর, ২০২০ ১৯:০৭
আপডেট : ৩০ নভেম্বর, ২০২০ ২০:৪৯
প্রিন্ট করুন printer

ভারতীয় সীমান্ত ঘেঁষে উড়ছে পাকিস্তানি ড্রোন!

অনলাইন ডেস্ক

ভারতীয় সীমান্ত ঘেঁষে উড়ছে পাকিস্তানি ড্রোন!

নতুন করে উত্তেজনা বিরাজ করছে ভারত-পাকিস্তান সীমান্তে। গত কয়েকদিন আগে দুই দেশের সীমান্তে গোলাগুলিতে ভারতের দুই সেনাসহ বেশ কয়েকজন সাধারণ মানুষ নিহত হয়। এরপর থেকেই লাগাতার উত্তপ্ত হয়ে উঠেছে আন্তর্জাতিক সীমান্ত। 

এদিকে ভারতের দাবি, লাগাতার সংঘর্ষ বিরতি চুক্তি লঙ্ঘন করছে পাকিস্তান সেনারা। আর এ উত্তেজনার মধ্যেই একেবারে ভারত সীমান্ত বরাবর ড্রোন ওড়াল পাকিস্তান।

ভারতীয় সেনা বাহিনীর পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে যে, শনিবার রাতে সীমান্ত বরাবর পাকিস্তানের আকাশে রহস্যজনক কিছু বস্তু উড়তে দেখে কর্তব্যরত ভারতীয় সেনারা। এতে করে সীমান্ত সংলগ্ন সেনা ছাউনিতে অ্যালার্ট জারি করা হয়। রহস্যজনক বস্তুটিকে ভালো করে দেখার পরেই সেটিকে লক্ষ্য করে ফায়ারিং শুরু করে বিএসএফ। পরে পাকিস্তানের দিকেই চলে যায় বলে সেনার তরফে জানানো হচ্ছে।

মনে করা হচ্ছে, রাতের অন্ধকারে ড্রোনের সাহায্যে সীমান্ত সংলগ্ন ভারতীয় সেনা ছাউনির উপর নজরদারি চালানো হচ্ছিল। শুধু তাই নয়, ড্রোনের সাহায্যে অস্ত্র কিংবা অন্য কিছু হয়তো নামানোর চেষ্টা হতে পারে বলেও মনে করছে সেনাবাহিনী।

সূত্র: কলকাতা২৪।

বিডি-প্রতিদিন/বাজিত হোসেন


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর

প্রকাশ : ২৫ জানুয়ারি, ২০২১ ১৬:৫৬
প্রিন্ট করুন printer

ভারতে ঘরে বসেই ভোট দেওয়া যাবে!

অনলাইন ডেস্ক

ভারতে ঘরে বসেই ভোট দেওয়া যাবে!
প্রতীকী ছবি

নির্বাচনে প্রযুক্তির ব্যবহার আরও বাড়ানোর পরিকল্পনা করছে ভারতীয় নির্বাচন কমিশন। দেশটির নির্বাচন কমিশনের দাবি, আগামী দিনে দেশের যে কোনো প্রান্তে বসেই নিজের বুথে গিয়ে ভোট দেওয়ারও প্রয়োজন হবে না। ঘরে বসেই ভোট দেওয়ার সুযোগ পাবেন সাধারণ মানুষ। আইআইটি মাদ্রাজের গবেষকরা নতুন এই প্রকল্পে কাজ করছেন।

আজ ২৫ জানুয়ারি, দেশটির জাতীয় নির্বাচন কমিশনের প্রতিষ্ঠা দিবস। দিনটিকে ভারতে জাতীয় ভোটার দিবস হিসেবে পালন করা হয়। আজ সকালে সে উপলক্ষে সংবাদ সম্মেলন করেন মুখ্য নির্বাচন কমিশন সুনীল আরোরা। এ মুহূর্তে পশ্চিমবঙ্গের আসন্ন বিধানসভা নির্বাচন নিয়ে ব্যস্ত তিনি। তারই মধ্যে তিনি জানান, দ্রুত রিমোট ভোটিংয়ের ব্যবস্থা করা হবে। কিছুদিনের মধ্যেই এর মহড়া শুরু হবে। 

ইভিএমের সাহায্যে এখন ভোট হয় ভারতে। কিন্তু ভোটারদের নিজের কেন্দ্রে নির্দিষ্ট বুথে গিয়ে ভোট দিতে হয়। কাজের সূত্রে যারা বাইরে থাকেন, তারা ভোট দিতে পারেন না। নতুন পদ্ধতিতে দেশের যে কোনো প্রান্তে বসে নিজের কেন্দ্রে ভোট দেওয়া যাবে। প্রযুক্তির সাহায্যে সে ব্যবস্থা করা হবে বলে জানিয়েছেন তিনি।

শুধু দেশ নয়, বিদেশে যেসব ভারতীয় আছেন, তারাও ভোটাধিকার থেকে বঞ্চিত হন। নতুন ব্যবস্থায় তারাও যাতে ভোট দিতে পারেন, সে ব্যবস্থা করা হবে বলে জানিয়েছেন মুখ্য নির্বাচন কমিশনার।

এপ্রিল-মে মাসে পশ্চিমবঙ্গে নির্বাচন। সেখানেই কি নতুন ব্যবস্থা চালু হবে? নির্বাচন কমিশন সূত্র জানাচ্ছে, এত দ্রুত নতুন ব্যবস্থা চালু করা যাবে না। তবে কিছু দিনের মধ্যেই নতুন ব্যবস্থার মহড়া চালু হবে। মহড়া হলে বোঝা যাবে, নতুন ব্যবস্থায় কী কী সমস্যা হতে পারে। তা বুঝে নিয়েই ব্যবস্থাটিকে কার্যকর করা হবে। এখনো প্রযুক্তিটি গবেষণার স্তরে আছে। মাদ্রাজ আইআইটির গবেষকরা বিষয়টি নিয়ে কাজ করছেন।

সূত্র: ডয়চে ভেলে, পিটিআই, রয়টার্স

বিডি প্রতিদিন/জুনাইদ আহমেদ

 

 


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর

প্রকাশ : ২৫ জানুয়ারি, ২০২১ ১৫:৪৫
প্রিন্ট করুন printer

ডেনমার্কে তুর্কি মসজিদে আপত্তিকর লেখা, প্রতিবাদ তুরস্কের

অনলাইন ডেস্ক

ডেনমার্কে তুর্কি মসজিদে আপত্তিকর লেখা, প্রতিবাদ তুরস্কের
আলী ইরবাস

ডেনমার্ক-জার্মানি সীমান্তে গত শুক্রবার তুর্কি একটি মসজিদের দেয়ালে আপত্তিকর লেখা লিখেছে দুর্বৃত্তরা। এ ঘটনার তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন তুরস্কে ধর্মবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের দিয়ানেত বিভাগের প্রধান আলী ইরবাস।

এক টুইটবার্তায় রবিবার তিনি বলেন, দিন দিন যেভাবে ইসলামবিদ্বেষী প্রচার চালাচ্ছে একটি বর্ণবাদী গ্রুপ, তাদের বিরুদ্ধে দ্রুত আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা উচিত। 
 
স্থানীয় সময় শুক্রবার সন্ধ্যায় জার্মান সীমান্তে তুর্কি ওই মসজিদে উগ্রবাদী ও বর্ণবাদী দুর্বৃত্তরা মসজিদের দেয়ালে আপত্তিকর লেখা লিখে যান।
 
মসজিদটি পরিচালনা করে আসছে ড্যানিশ-টার্কিশ ইসলামিক ফাউন্ডেশন।  এ বিষয়ে তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

বিডি প্রতিদিন/ফারজানা


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর

প্রকাশ : ২৫ জানুয়ারি, ২০২১ ১৪:৫৪
প্রিন্ট করুন printer

আমেরিকা অভ্যন্তরীণ ব্যাপারে হস্তক্ষেপ করছে: রাশিয়া

অনলাইন ডেস্ক

আমেরিকা অভ্যন্তরীণ ব্যাপারে হস্তক্ষেপ করছে: রাশিয়া

রাশিয়ার অভ্যন্তরীণ ব্যাপারে আমেরিকা হস্তক্ষেপ করছে বলে অভিযোগ করেছে রাশিয়া। মস্কো জানিয়েছে, আমেরিকার উসকানিতে বিরোধী নেতা অ্যালেক্সি নাভালনি ইস্যুতে সম্প্রতি দেশটিতে বিক্ষোভ হয়েছে। 

অবশ্য আমেরিকা এই বিক্ষোভের ব্যাপারে বলেছে দেশটির নাগরিকদের বিক্ষোভ করার অধিকার রয়েছে। এরপর ক্রেমলিনের মুখপাত্র দিমিত্রি পেসকভ এই মন্তব্য করেন।

মস্কোর মার্কিন দূতাবাসের মুখপাত্র রেবেকা রস টুইটারের দেয়ো এক পোস্টে দাবি করেন, রাশিয়া জনগণের মতপ্রকাশের স্বাধীনতার প্রতি আমেরিকার পূর্ণ সমর্থন রয়েছে। তিনি আরও বলেছেন, বিক্ষোভ মোকাবেলার জন্য রাশিয়ার সরকার যে পদক্ষেপ নিয়েছে তা জনগণের এই অধিকার লঙ্ঘনের শামিল। এছাড়া রাশিয়ায় অবস্থানরত মার্কিন জনগণের জন্য বিশেষ সতর্কতা জারি করেছে মার্কিন দূতাবাস।

গতকাল রাশিয়ার একটি সরকারি টেলিভিশন চ্যানেলকে দেয়া সাক্ষাৎকারে ক্রেমলিনের মুখপাত্র দিমিত্রি পেসকভ বলেছেন, আমেরিকার পক্ষ থেকে এই সমস্ত বক্তব্য-বিবৃতি এবং পদক্ষেপ রাশিয়ার অভ্যন্তরীণ বিষয়ে সরাসরি হস্তক্ষেপ।

বিডি প্রতিদিন/আবু জাফর


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর

প্রকাশ : ২৫ জানুয়ারি, ২০২১ ১৪:২১
আপডেট : ২৫ জানুয়ারি, ২০২১ ১৬:৫১
প্রিন্ট করুন printer

প্রথম কৃত্রিম কর্নিয়া প্রতিস্থাপন করে ইসরায়েলের চমক

অনলাইন ডেস্ক

প্রথম কৃত্রিম কর্নিয়া প্রতিস্থাপন করে ইসরায়েলের চমক
সংগৃহীত ছবি

বিশ্বে প্রথমবারের মতো সফলভাবে কৃত্রিম কর্নিয়া প্রতিস্থাপনে করেছে ইসরায়েল। গত ১১ জানুয়ারি দেশটির বেলিংসন হসপিটালে বিশ্বের প্রথম কৃত্রিম কর্নিয়া প্রতিস্থাপন করা হয়। সেখানকার চক্ষু বিভাগের প্রধান প্রফেসর ইরিত বাহার অস্ত্রোপচারটি করেন।

এর মাধ্যমে দৃষ্টিশক্তি ফিরে পেয়েছেন ৭৮ বছর বয়সী এক ইসরায়েলি নাগরিক। ওই বৃদ্ধ ১০ বছর আগে দৃষ্টিশক্তি হারিয়েছিলেন। 

অদ্রবনীয় সিন্থেটিক ন্যানো টিস্যু ব্যবহার করে নির্মিত এ থ্রিডি কর্নিয়া— যা কে-প্রো নামে পরিচিত, সেটি নষ্ট বা অস্বচ্ছ কর্নিয়া প্রতিস্থাপন করতে সক্ষম। ইসরায়েলি প্রতিষ্ঠান ‘কর্নিট’ (CorNeat) এ প্রক্রিয়া সম্পন্ন করে। গত বছরের জুলাই মাসে কৃত্রিম কর্নিয়া প্রতিস্থাপনের প্রক্রিয়া ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালের জন্য অনুমোদন পায়।

চোখের পাতা এবং অক্ষিগোলকের ওপরের অংশের পাতলা পর্দা অর্থাৎ কনজাংকটিভার নিচে পাতলা ওই কৃত্রিম কর্নিয়া স্থাপন করা হয়।

কর্নিট ভিশনের প্রধান চিকিৎসা কর্মকর্তা এবং কে-প্রোর উদ্ভাবক ডা. গিলাড লিটভিন বলেন, ‘অস্ত্রোপচারটি তুলনামূলক সহজ ছিল এবং এটি করতে এক ঘণ্টারও কম সময় লেগেছে। ’

দৃষ্টিশক্তি ফেরাতে কর্নিয়া প্রতিস্থাপন আগে থেকেই হয়ে আসছে। তবে শুধু কোনো দাতার কর্নিয়ার মাধ্যমেই সেটি সম্ভব। এক্ষেত্রে কৃত্রিম কর্নিয়া প্রতিস্থাপন যুগান্তকারী সাফল্য হয়ে উঠবে।

সূত্র: বিজনেস ইনসাইডার


বিডি প্রতিদিন/ ওয়াসিফ


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর

প্রকাশ : ২৫ জানুয়ারি, ২০২১ ১৪:০৫
প্রিন্ট করুন printer

ধর্ষণের অভিযোগে জেলে, ডিএনএ পরীক্ষায় জানা গেল সন্তান অভিযুক্তের নয়

অনলাইন ডেস্ক

ধর্ষণের অভিযোগে জেলে, ডিএনএ পরীক্ষায় জানা গেল সন্তান অভিযুক্তের নয়
প্রতীকী ছবি

১৭ মাস ধরে জেলে থেকেছেন ভারতের মুম্বাইয়ের বাসিন্দা। তার বিরুদ্ধে অভিযোগ ছিল প্রতিবেশী প্রতিবন্ধী এক নাবালিকাকে ধর্ষণ করেছেন তিনি। সেই কারণে ওই নাবালিকা অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়ে। এই অভিযোগের ভিত্তিতে চার্জশিট দিয়েছিল পুলিশ।

আদালতে পাল্টা জামিনের আবেদন করেছিলেন অভিযুক্ত। কিন্তু তদন্ত চলছিল বলে আবেদনে সাড়া দেয়নি আদালত। শেষ পর্যন্ত ডিএনএ পরীক্ষা করে দেখা গেল, ওই নাবালিকার সন্তানের বাবা নন অভিযুক্ত। সেই কারণে ১৭ মাস জেলে থাকার পর তাকে জামিনে মুক্তি দিয়েছে আদালত।

আদালত জানিয়েছে, দু’পক্ষের মন্তব্য শুনানির পর আদালত অভিযুক্তকে জামিন দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এই বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত ঘোষণা করতে আরও বেশ কিছুটা সময় লাগবে বলে জানিয়েছে আদালত। তবে আপাতত ডিএনএ পরীক্ষার রিপোর্টের ভিত্তিতে জামিন দেওয়া হলো।

২০১৯ সালের ২৩ জুলাই ওই প্রতিবন্ধী নাবালিকার হঠাৎ করেই পেটে ব্যথা শুরু হয়। হাসপাতালে চিকিৎসক পরীক্ষা করে জানান, ওই নাবালিকা অন্তঃসত্ত্বা। তারপরই পুরো ঘটনা জানাতে নাবালিকাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়।

সে জানায় প্রতিবেশী এক রেস্তোরাঁ কর্মী দুই বার তাকে ধর্ষণ করেছে। সেই মর্মে অভিযোগ দায়ের করা হয় পুলিশে। পুলিশ সেই নিয়ে তদন্ত করে অভিযোগ দায়ের করে, চার্জশিট জমা দেয়। তারপর অভিযুক্তকে আটক করে পুলিশ।

বিচার চলাকালীন একাধিক বার জামিনের আবেদন করেও কোনো লাভ হয়নি। কারণ, আদালত তখন জানিয়েছিল, তদন্ত চলছে, এখন জামিন দেওয়া যাবে না। সেই সময়ে সরকারি পক্ষের আইনজীবীর বক্তব্য ছিল, অভিযুক্তকে মুক্তি দিলে প্রমাণ লোপাটের সম্ভাবনা থেকে যাবে।  

তার পরেই ডিএনএ টেস্ট করা হয়। সেখানে দেখা যায়, ওই নাবালিকার ভ্রূণের ডিএনএ ওই প্রতিবেশীর ডিএনএ-এর সঙ্গে মিলছে না। তার পরেই জামিন দেন আদালত।

সূত্র : আনন্দবাজার

বিডি প্রতিদিন/এমআই


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর