২৯ সেপ্টেম্বর, ২০২১ ১০:০২

সামরিক হঠকারিতার নিয়ে আর্মেনিয়াকে সতর্ক করল আজারবাইজান

সামরিক হঠকারিতার নিয়ে আর্মেনিয়াকে সতর্ক করল আজারবাইজান

আজারবাইজানের প্রেসিডেন্ট ইলহাম আলিয়েভ

গেল বছরের সেপ্টেম্বরে নাগোরনো-কারাবাখ নিয়ে আর্মেনিয়া ও আজারবাইজানের মধ্যে ৬ সপ্তাহব্যাপী যুদ্ধ চলে। দুই দেশের মধ্যে চলা যুদ্ধে ৬ হাজার ৬০০ মানুষ প্রাণ হারায়। পরে রাশিয়ার মধ্যস্থতায় দেশদুটি শান্তি চুক্তিতে আসে।

সেই বিতর্কিত নাগোরনো-কারাবাখ অঞ্চল নিয়ে দুই প্রতিবেশী যুদ্ধের বর্ষপূর্তিতে আবারও উত্তেজনা ছড়ালো।

এদিকে, আজারবাইজানের প্রেসিডেন্ট ইলহাম আলিয়েভ তার প্রতিবেশী দেশ আর্মেনিয়াকে যেকোনো ধরনের সামরিক হঠকারিতার ব্যাপারে সতর্ক করে দিয়েছেন।

মঙ্গলবার ফ্রান্স২৪ নিউজ চ্যানেলকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, আর্মেনিয়ার সঙ্গে একটি শান্তি চুক্তিতে উপনীত হতে তার সরকার সব রকম প্রচেষ্টা চালাতে প্রস্তুত রয়েছে। কিন্তু গত বছরের সংঘর্ষে নিজের হারানো ভূখণ্ড ফিরে পাওয়ার জন্য আর্মেনিয়া যদি কোনো ধরনের সামরিক তৎপরতা চালায় তাহলে বাকু তার কঠোর জবাব দেবে।

আলিয়েভ বলেন, গত সপ্তাহে নিউইয়র্কে আর্মেনিয়া ও আজারবাইজানের পররাষ্ট্রমন্ত্রীরা যে বৈঠক করেছেন তাকে আদর্শ হিসেবে গ্রহণ করে দু’দেশের মধ্যে এ ধরনের আরো আলোচনা অনুষ্ঠিত হতে পারে।

আজারবাইজানের প্রেসিডেন্ট বলেন, নাগোরনো-কারাবাখ নিয়ে দু’দেশের মধ্যে সাংঘর্ষিক অবস্থান একবার চিরতরে সমাধান হয়ে গেছে; কাজেই এ বিষয়ে আগের উত্তেজনাকর পরিস্থিতিতে ফিরে যাওয়া ঠিক হবে না।

তিনি এমন সময় এ বক্তব্য দিলেন যখন আর্মেনিয়ার জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা আরমান গ্রেগরিয়ান সম্প্রতি বলেছিলেন, এখনো আজারবাইজানের সঙ্গে তার দেশের কারাবাখ সংকটের সমাধান হয়নি। তার এ বক্তব্যের জের ধরে বাকুতে এই ধারণা সৃষ্টি হয়েছে যে, নাগোরনো-কারাবাখের হাতছাড়া হয়ে যাওয়া ভূখণ্ড পুনরুদ্ধারের জন্য আর্মেনিয়ার আবার হামলা চালাতে পারে।

২০২০ সালের সেপ্টেম্বরে নাগোরনো-কারাবাখ নিয়ে আর্মেনিয়া ও আজারবাইজানের মধ্যে প্রায় এক মাসব্যাপী যুদ্ধ শুরু হয়। ওই যুদ্ধে আজারবাইজানের সেনাবাহিনী ১৯৯০’র দশকে আর্মেনিয়ার দখলে যাওয়া বেশ কিছু ভূখণ্ড পুনরুদ্ধার করে।

বিডি-প্রতিদিন/বাজিত হোসেন

এই বিভাগের আরও খবর

সর্বশেষ খবর