২ জানুয়ারি, ২০২৩ ১৪:১৪

সত্যিই কি পুতিনকে যুদ্ধাপরাধের দায়ে বিচারের কাঠগড়ায় দাঁড়াতে হবে?

অনলাইন ডেস্ক

সত্যিই কি পুতিনকে যুদ্ধাপরাধের দায়ে বিচারের কাঠগড়ায় দাঁড়াতে হবে?

ভ্লাদিমির পুতিন। ছবি: সংগৃহীত

রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনকে যুদ্ধাপরাধের দায়ে চলতি বছর ইউক্রেনে বিচারের কাঠগড়ায় দাঁড়াতে হবে বলে মন্তব্য করেছেন একজন ব্রিটিশ আইনজীবী। 

জিওফ নাইস নামের ওই আইনজীবী সাবেক সার্ব নেতা স্লোভোদান মিলোসেভিচের বিচারে প্রসিকিউশন প্যানেলের নেতৃত্ব দিয়েছিলেন। 

তিনি বিবিসিকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে বলেছেন, ইউক্রেন যুদ্ধে দেশটির বেসামরিক লক্ষ্যবস্তুতে হামলার জন্য ‘প্রধান অভিযুক্ত ব্যক্তি’ ভ্লাদিমির পুতিন। বিষয়টি নিয়ে রাজনীতিবিদদের পাশাপাশি আইনজীবীরা ‘আরও স্বাধীন ও খোলামেলাভাবে’ আলোচনা না করায় বিস্ময় প্রকাশ করেন এই ব্রিটিশ ব্যারিস্টার।

রাশিয়া ইউক্রেনকে মার্কিন নেতৃত্বাধীন সামরিক জোট ন্যাটোর প্রভাব থেকে মুক্ত করার পাশাপাশি ‘নব্য নাৎসিমুক্ত’ করতে দেশটির বিরুদ্ধে গত বছরের ২৪ ফেব্রুয়ারি থেকে ‘বিশেষ সামরিক অভিযান’ চালিয়ে আসছে। এই অভিযানে যেকোনও ধরনের যুদ্ধাপরাধ বা বেসামরিক অবস্থানে হামলার অভিযোগ প্রত্যাখ্যান করে এসেছে মস্কো।  

কিন্তু ব্রিটিশ এই আইনজীবী দাবি করেন, রাশিয়া ইউক্রেনে বেসামরিক লক্ষ্যবস্তুতে হামলা চালাচ্ছে যা ‘মানবতাবিরোধী অপরাধ’ হিসেবে বিবেচিত। কথিত ‘যুদ্ধ আইনে’ মানবতাবিরোধী অপরাধকে সবচেয়ে গুরুতর অপরাধ হিসেবে ধরা হয়। জেনেভা কনভেনশনসহ আরও কিছু চুক্তিতে যুদ্ধের সময় বেসামরিক অবস্থানে হামলা চালানো নিষিদ্ধ।

এটি কেবলই ব্রিটিশ আইনজীবী জিওফ নাইসের ব্যক্তিগত মতামত। সত্যিই ইউক্রেনে হামলার জন্য পুতিনকে যুদ্ধাপরাধের কাঠগড়ায় দাঁড়াতে হবে কি না, বিষয়টি এখনই নিশ্চিত নয়। ভবিষ্যতে এ ধরনের পদক্ষেপ হবে কি না, তা জানতে অপেক্ষা থাকতে হবে বিশ্ববাসীকে। সূত্র: বিবিসি

বিডি প্রতিদিন/কালাম

এই রকম আরও টপিক

এই বিভাগের আরও খবর

সর্বশেষ খবর