শিরোনাম
১৫ ডিসেম্বর, ২০২২ ১৩:৫৮
বিহার

বিষাক্ত মদ পানে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ২২, যা বললেন বিহারের মুখ্যমন্ত্রী

দীপক দেবনাথ, কলকাতা

বিষাক্ত মদ পানে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ২২, যা বললেন বিহারের মুখ্যমন্ত্রী

মুখ্যমন্ত্রী নীতীশ কুমার (ফাইল ছবি)

বিষাক্ত মদ পানে ভারতের বিহার রাজ্যের সরণ জেলার ছাপরা এলাকায় মৃত্যু বেড়ে হয়েছে ২২ জনের। মঙ্গলবার সকাল থেকেই ওই জেলার একাধিক গ্রামে বিষাক্ত মদ পানের ঘটনা ঘটেছে। এর পর থেকেই গত দুই দিনে মৃত্যুর সংখ্যা বাড়তে থাকে।

মৃত্যুর পরই ঘটনাস্থলে পৌঁছায় রাজ্য পুলিশের ডেপুটি সুপারিনটেনডেন্ট অফ পুলিশ (মাধেপুর) সহ পুলিশের শীর্ষ কর্মকর্তারা। গোটা ঘটনা তদন্ত করে দেখা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন ডিএসপি। 

নিহত ব্যক্তিদের স্বজনরাও জানিয়েছে, বিষাক্ত মদ পানের ফলেই তাদের মৃত্যু হয়েছে। 

মহারাজগঞ্জ কেন্দ্রের সাংসদ জনার্ধন সিং সিগ্রিওয়াল জানান, ‌‘বিষাক্ত মদ পান করে একাধিক মানুষের মৃত্যু হয়েছে’। 
 
২০১৬ সালের এপ্রিল মাসে বিহারে মদ্যপান ও বিক্রি নিষিদ্ধ ঘোষণা করা হয়। স্বাভাবিকভাবেই প্রশ্ন উঠছে, তারপরেও কীভাবে ওই গ্রামগুলিতে মদ ঢুকলো, কারা বিক্রি করলো। এসব নিয়ে তদন্ত শুরু করেছে স্থানীয় প্রশাসন। পুলিশের ধারণা আরও একাধিক ব্যক্তি ওই মদ পান করে অসুস্থ হয়ে গা ঢাকা দিয়ে থাকতে পারে। তাদের খোঁজে তল্লাশি চালানো হচ্ছে। 

বৃহস্পতিবার এই ঘটনায় রাজনৈতিক চাপানোতর শুরু হয়েছে। এদিকে, বিষাক্ত মদ পানে মৃত্যুর ঘটনায় উত্তপ্ত হয়ে ওঠে বিহার বিধানসভাও। 
বিহারের বিজেপি নেতা এবং কেন্দ্রীয় মন্ত্রী গিরিরাজ সিং রাজ্য সরকারকে নিশানা করে বলেছেন, ‘মদ বিক্রি নিয়ে রাজ্য সরকারের ভ্রান্ত নীতির কারণে এতগুলো মানুষের মৃত্যু হয়েছে’।

এদিন গণমাধ্যমের প্রশ্নের উত্তরে মুখ্যমন্ত্রী নীতীশ কুমার জানান, ‘মানুষের আরও সচেতন থাকা প্রয়োজন। যারা মদ খাবে তারা তো মরবেই’। 

বিডি প্রতিদিন/ফারজানা

এই রকম আরও টপিক

এই বিভাগের আরও খবর

সর্বশেষ খবর