শিরোনাম
প্রকাশ : সোমবার, ২৪ অক্টোবর, ২০১৬ ০০:০০ টা
আপলোড : ২৩ অক্টোবর, ২০১৬ ২৩:১৬

খাদিজাকে কোপানোয় বদরুলকে বহিষ্কার

ফাও খাওয়া নিয়ে ভাঙচুরে ছাত্রলীগ নেতা সাসপেন্ড

শাবি প্রতিনিধি

খাদিজাকে কোপানোয় বদরুলকে বহিষ্কার

কলেজছাত্রী খাদিজা বেগমের ওপর হামলার ঘটনায় ছাত্রলীগ নেতা বদরুল আলমকে আজীবনের জন্য বহিষ্কার করেছে শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (শাবি) কর্তৃপক্ষ। গতকালের বিশ্ববিদ্যালয়ের সিন্ডিকেট সভায় তাকে বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্থায়ীভাবে বহিষ্কারের সিদ্ধান্ত হয় বলে বলে জানা গেছে।

বদরুল বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০০৮-০৯ শিক্ষাবর্ষে অর্থনীতি বিভাগে ভর্তি হয়ে অনিয়মিত ছাত্র হিসেবে পড়ছিলেন। তিনি ছাত্রলীগের বিশ্ববিদ?্যালয় শাখার সহ-সম্পাদক ছিলেন। গত ৩ অক্টোবর সিলেট এমসি কলেজে পরীক্ষা দিতে যাওয়া সিলেট সরকারি মহিলা কলেজের স্নাতক (পাস কোর্স) দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী খাদিজাকে কুপিয়ে জখম করে। চাঞ্চল্যকর এই ঘটনার পরদিন বদরুলকে সাময়িকভাবে বহিষ্কার করেছিল বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টরিয়াল কমিটি। ওই দিন বিশ্ববিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রক্টর অধ্যাপক রাশেদ তালুকদারকে প্রধান করে তিন সদস্যের একটি ‘ফ্যাক্ট ফাইন্ডিং’ কমিটি গঠন করা হয়েছিল। সুনামগঞ্জের ছাতক উপজেলার দক্ষিণ খুরমা ইউনিয়নের মুনিরজ্ঞাতি গ্রামের বদরুল ঘটনার পরপরই গ্রেফতার হয়ে এখন সিলেটের কারাগারে রয়েছেন।    

তিনি আদালতে দোষ স্বীকার করে জবানবন্দিও দিয়েছেন। তার বিরুদ্ধে মামলা চলছে। হামলায় আহত খাদিজা বর্তমানে ঢাকার স্কয়ার হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। তিন দিন লাইফসাপোর্টে থাকার পর বর্তমানে তার অবস্থা উন্নতির দিকে বলে চিকিৎসকরা জানিয়েছেন। এদিকে ফাও খেতে না দেওয়ায় রেস্টুরেন্টে হামলা ও ভাঙচুরের ঘটনায় শাবি ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সম্পাদক ও কেমিক্যাল অ্যান্ড পলিমার সাইন্স বিভাগের চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থী মোশাররফ হোসেন রাজুকে এক সেমিস্টারের জন্য বহিষ্কার করেছে সিন্ডিকেট। দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গের দায়ে তাকে গত সোমবার ছাত্রলীগ থেকে অব্যাহতি দিয়েছে কেন্দ্রীয় সংসদ। রাজু বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগ সভাপতি সঞ্জীবন চক্রবর্তী পার্থের অনুসারী।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর