শিরোনাম
প্রকাশ : বুধবার, ২৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০০:০০ টা
আপলোড : ২৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ২৩:১২

পদ্মা সেতুতে রেলওয়ে স্ল্যাব বসানো শুরু

মুন্সীগঞ্জ প্রতিনিধি

পদ্মা সেতুতে রেলওয়ে স্ল্যাব বসানো শুরু

দেশবাসীর স্বপ্নের পদ্মা সেতুর স্প্যানে (সুপার স্ট্রাকচার) রেলের স্ল্যাব বসানোর কাজ শুরু হয়েছে। গতকাল পদ্মা সেতুর জাজিরা প্রান্তে সেভেন এফ স্প্যানের ওপর প্রথম সেকশনে স্ল্যাব বসানোর কাজ শুরু হয় । এর আগে মাওয়া থেকে স্ল্যাবগুলো জাজিরা প্রান্তে আনা হয়। একেকটি স্প্যানে ৪টি সেকশনে ৮টি করে মোট ৩২টি স্ল্যাব বসবে। সেই হিসেবে ৪১টি স্প্যানে রেলওয়ে স্ল্যাব বসবে ১ হাজার ৩১২টি। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক পদ্মা সেতুর একজন প্রকৌশলী জানান, বর্তমানে ৪১ ও ৪২ নম্বর পিলারের মধ্যবর্তী ৭-এফ স্প্যানের উপর রেলওয়ে স্ল্যাব বসানো হচ্ছে। এরপর স্ল্যাবের মধ্যবর্তী স্থানে কংক্রিট ঢালাইয়ের কাজ করা হবে।  এর আগে মাওয়া  থেকে ৮টি স্ল্যাব আনা হয় জাজিরা প্রান্তে। স্ল্যাব নিয়ে মাওয়া  থেকে জাজিরা পৌঁছাতে একদিন সময়  লাগে।  ৮ টন ওজনের একেকটি স্লাবের দৈর্ঘ্য ২ এবং প্রস্থ ৫.১৫ মিটার। স্প্যানের ওপর রাখার আগে লোড টেস্টসহ বিভিন্ন পরীক্ষা-নিরীক্ষা করা হয়। মাওয়া প্রান্তে ৭০০’র বেশি স্ল্যাব প্রস্তুত রয়েছে। জাজিরা প্রান্তে এখন যে ৬টি পিলারে ৫টি স্প্যান বসানো হয়েছে তাতে রেলওয়ে স্ল্যাব বসানো হচ্ছে। এছাড়া স্ট্রিংগার বসানো হবে স্ল্যাবের সঙ্গেই।  ইতিমধ্যে সেতুর ৩৭, ৩৮, ৩৯, ৪০, ৪১ ও ৪২ নম্বর পিলারের ওপর পাঁচটি স্প্যান বসানোর মাধ্যমে জাজিরা প্রান্তে সেতুর পৌনে ১ কিলোমিটার দৃশ্যমান হয়েছে। ২০১৫ সালের ডিসেম্বরে সেতুর কাজ শুরু হয়। ২০১৭ সালের ৩০ সেপ্টেম্বর বসানো হয় প্রথম স্প্যানটি। এর পর চলতি বছরের ২৮ জানুয়ারি দ্বিতীয় স্প্যানটি বসে। এর মাত্র দেড় মাস পর ১১ মার্চ শরীয়তপুরের জাজিরা প্রান্তে তৃতীয় স্প্যান বসানো হয়। এর ২ মাস পর ১৩ মে বসে চতুর্থ স্প্যান এবং পঞ্চম স্প্যানটি বসে তার মাত্র এক মাস ১৬ দিনের মাথায়। ৬.১৫ কিলোমিটার দীর্ঘ এ সেতুতে ৪২টি পিলারের ওপর বসবে ৪১টি স্প্যান। কংক্রিট আর স্টিল দিয়ে নির্মিত এ সেতুর উপর দিয়ে এক সঙ্গে ট্রেন ও মোটর যান চলাচল করবে। পদ্মা সেতুর কাজ শেষ হলে দক্ষিণ বঙ্গের ২৩ জেলার মানুষের ভাগ্যের চাকা আরও কয়েক ধাপ এগিয়ে যাবে।


আপনার মন্তব্য