Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : শনিবার, ২৩ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ২২ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ২৩:২২

মুক্তিযোদ্ধা কোটার দাবি

আওয়ামী লীগ সভানেত্রীর কার্যালয়ের সামনে অবস্থান

নিজস্ব প্রতিবেদক

আওয়ামী লীগ সভানেত্রীর কার্যালয়ের সামনে অবস্থান

মুক্তিযোদ্ধা কোটা বহাল রাখার ছয় দফা নিয়ে আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনার ধানমন্ডি কার্যালয়ের সামনে অবস্থান নেয় মুক্তিযোদ্ধার সন্তান ও প্রজন্ম সংগঠনের নেতা-কর্মীরা। গতকাল বিকালে তারা অবস্থান নেন। তাদের দাবিগুলোর মধ্যে রয়েছে, জাতির পিতা ও তার পরিবারসহ বীর মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের অবমাননাকারীদের বিচার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির ব্যবস্থা নিশ্চিত করতে হবে; সরকারি সব চাকরিতে ৩০ শতাংশ মুক্তিযোদ্ধা কোটা পুনর্বহাল সংরক্ষণ বিশেষ কমিশন গঠন করে প্রিলিমিনারি  থেকে শতভাগ বাস্তবায়ন এবং স্বাধীনতা পরবর্তী সময়  থেকে বর্তমান সময় পর্যন্ত মুক্তিযোদ্ধা কোটায় সংরক্ষিত পথগুলো বিশেষ নিয়োগের মাধ্যমে পূরণ করতে হবে।

সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক অহিদুল ইসলাম তুষার বলেন, ‘আমরা বিকাল ৫টায় শাহবাগে বিক্ষোভ সমাবেশ করি, সেখান থেকে মিছিল নিয়ে এখানে এসে অবস্থান কর্মসূচি পালন করছি। আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও পানি সম্পদ উপমন্ত্রী এ কে এম এনামুল হক শামীম আমাদের কাছে এসেছিলেন এবং আমাদের কর্মসূচি স্থগিত করতে বলেছেন। আমরা ওনাকে বলেছি, প্রধানমন্ত্রীর কাছ থেকে আশ্বাস না পাওয়া পর্যন্ত আমরা এখানেই থাকব।’

দাবির মধ্যে রাজাকারসহ স্বাধীনতাবিরোধীদের সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত, রাজনীতি নিষিদ্ধকরণ, তাদের বংশধরদের সরকারি সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ভর্তি ও নিয়োগ অযোগ্য  ঘোষণা এবং চাকরিজীবীদের ক্ষেত্রে চাকরিচ্যুত করতে হবে; বীর মুক্তিযোদ্ধাদের সাংবিধানিক স্বীকৃতি ও পারিবারিক সুরক্ষা আইন প্রণয়ন এবং প্রয়োগ নিশ্চিত করতে হবে।

‘সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে মুক্তিযুদ্ধের চেতনাবিরোধী সব প্রকার অপপ্রচার বন্ধ, কোটা সংস্কার আন্দোলনের নামে সব রাজাকার ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসির বাসভবনে হামলাসহ সব প্রকার অরাজকতা সৃষ্টিকারী স্বাধীনতাবিরোধীদের বিরুদ্ধে যথাযথ এবং দ্রুত আইনানুগ ব্যবস্থা নিশ্চিত করতে হবে; সরকারি চাকরিতে নিয়োগের ক্ষেত্রে মুক্তিযোদ্ধার সন্তান ও প্রজন্মের বয়সসীমা প্রচলিত নিয়ম অনুযায়ী আনুপাতিক হারে বৃদ্ধি করতে হবে’- বলে দাবি করা হয়েছে।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর