Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ১৬ মে, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ১৫ মে, ২০১৯ ২৩:৩২

পাচারচক্রের পাঁচজন চিহ্নিত

ভূমধ্যসাগরে নৌকাডুবিতে বাংলাদেশিদের মৃত্যু

নিজস্ব প্রতিবেদক

পাচারচক্রের পাঁচজন চিহ্নিত

ভূমধ্যসাগরে নৌকাডুবির শিকার বাংলাদেশিরা যে মানব পাচার চক্রের খপ্পরে পড়েছিলেন সেই চক্রটির হোতাসহ পাঁচজনের বিষয়ে তথ্য পেয়েছে সরকার। তাদের তিনজনের বাড়ি নোয়াখালী এবং দুজন মাদারীপুরের। এই চক্র অবৈধভাবে তাদের ইতালি নিয়ে যাওয়ার পথে গত শুক্রবার নৌকাডুবি হয়েছে। পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে এ মোমেন গতকাল পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে তার কার্যালয়ে এক ব্রিফিংয়ে এসব তথ্য জানান। তিনি বলেন, নৌকাডুবির ঘটনায় বেঁচে যাওয়া বাংলাদেশিদের সঙ্গে কথা বলে তিউনিসিয়ায় অবস্থানরত বাংলাদেশি কর্মকর্তারা এ তথ্য পেয়েছেন। এ সময় পররাষ্ট্রমন্ত্রী জানান, নৌকাডুবিতে নিখোঁজ ৩৯ জন বাংলাদেশির নাম-পরিচয় পাওয়া গেছে, যাদের কোনো খোঁজ এখনো মেলেনি। এ কে এ মোমেন বলেন, পাচার চক্রের হোতা নোয়াখালীর তিনজন হচ্ছেন আপন ভাই। তাদের সঙ্গে রয়েছে মাদারীপুরের আরও দুজন। এই পাঁচজনের বিষয়ে আমরা খোঁজখবর নিচ্ছি। তবে পররাষ্ট্রমন্ত্রী পাঁচজনের কারও নামই প্রকাশ করেননি। এদিকে তিউনিসিয়ায় বাংলাদেশের দূতাবাস না থাকায় নৌকাডুবির ঘটনার পর প্রতিবেশী লিবিয়া থেকে বাংলাদেশ দূতাবাসের একজন কর্মকর্তা এ এস এম আশরাফুল ইসলামকে তিউনিসিয়ায় পাঠানো হয়। সেখান থেকে তিনি জানিয়েছেন, নৌকাডুবির পর যেসব বাংলাদেশি এখনো নিখোঁজ, তাদের লাশ উদ্ধারের সম্ভাবনা ‘খুবই কম’। ধারণা করা হচ্ছে, পানিতে ডুবে তাদের সবারই মৃত্যু হয়েছে।

এখন পর্যন্ত উদ্ধার হওয়া লাশের মধ্যে শরীয়তপুরের নড়িয়ার উত্তম কুমার নামে একজনকে শনাক্ত করা গেছে।

ব্রিফিংয়ে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ওই একজনের বাইরে ৩৯ বাংলাদেশির নাম পরিচয় তারা নিশ্চিত হয়েছেন। তাদের মধ্যে ২২ জনই বৃহত্তর সিলেট অঞ্চলের।


আপনার মন্তব্য