শিরোনাম
প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ১২ জুন, ২০১৯ ২৩:৪৮

বঙ্গবন্ধু মেডিকেলে খালেদা জিয়ার দাঁতের পরীক্ষা

১১ মামলার শুনানি ১৭ জুলাই

নিজস্ব প্রতিবেদক

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে (বিএসএমএমইউ) চিকিৎসাধীন কারাবন্দী বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াকে দাঁতের চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। গতকাল দুপুরে হাসপাতালের ডেন্টাল ও ম্যাক্সিলোফেশিয়াল বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক মাহমুদা আকতারের তত্ত্বাবধানে খালেদা জিয়াকে দাঁতের চিকিৎসা দেওয়া হয়। গত ১ এপ্রিল থেকে বিএসএমএমইউর কেবিন ব্লকের ৬২১ নম্বর কেবিনে ভর্তি রয়েছেন কারাবন্দী বেগম জিয়া। গতকাল দুপুরে একটি মাইক্রোবাসে করে হাসপাতালের ‘এ’ ব্লকে তাকে নেওয়া হয়। পরে হুইল চেয়ারে বসিয়ে নিয়ে যাওয়া হয় চতুর্থ তলায় ডেন্টাল ইউনিটে। ঘণ্টা দেড়েক পর কড়া নিরাপত্তার মধ্যে আবার কেবিনে ফিরিয়ে নেওয়া হয় বলে হাসপাতালের অতিরিক্ত পরিচালক নাজমুল করিম জানান। হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল এ কে মাহবুবুল হক পরে সংবাদ সম্মেলনে বলেন, ‘বিএনপি চেয়ারপারসনের দাঁতে কিছুটা সমস্যা ছিল। ডেন্টাল ডিপার্টমেন্টে তাকে নিয়ে সেটা কারেক্ট করে দেওয়া হয়েছে। আর কিছু নয়।’

খালেদার ১১ মামলার শুনানি ১৭ জুলাই : বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে থাকা রাজধানীর দারুস সালাম থানার আট মামলাসহ ১১ মামলার পরবর্তী শুনানির জন্য আগামী ১৭ জুলাই দিন ঠিক করেছে আদালত। গতকাল মামলাগুলোর ওপর শুনানি শেষে ঢাকার মহানগর দায়রা জজ কে এম ইমরুল কায়েশ নতুন এ দিন ধার্য করেছেন।

এসব মামলার মধ্যে একটি অভিযোগপত্র গ্রহণের জন্য ও বাকি ১০ মামলা অভিযোগ গঠন বিষয়ে শুনানির জন্য গতকাল দিন ঠিক ছিল। মামলাগুলোর অধিকাংশই হাই কোর্টে স্থগিত আছে জানিয়ে সময়ের আবেদন করেন খালেদার আইনজীবীরা। মামলাগুলোর মধ্যে রাজধানীর দারুস সালাম থানার নাশকতার ৮ মামলা, যাত্রাবাড়ী থানার একটি হত্যা মামলাসহ ২ মামলা ও রাষ্ট্রদ্রোহের একটি মামলা।

খালেদা জিয়ার বক্তব্যকে দেশদ্রোহী অ্যাখ্যা দিয়ে ২০১৬ সালের ২৫ জানুয়ারি সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সাবেক সম্পাদক ড. মোমতাজ উদ্দিন আহমদ মেহেদী রাষ্ট্রদ্রোহ মামলাটি দায়ের করেন। এ ছাড়াও ২০১৫ সালের ২৪ জানুয়ারি যাত্রাবাড়ীর কাঠেরপুল এলাকায় যাত্রীবাহী বাসে আগুন দিয়ে নূর আলম নামে এক যাত্রীকে হত্যার অভিযোগে যাত্রাবাড়ী থানায় ২ মামলা করা হয়। একই বছর বিভিন্ন সময় দারুস সালাম থানা এলাকায় নাশকতার অভিযোগ এনে দারুস সালাম থানায় খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে আটটি মামলা দায়ের করা হয়।


আপনার মন্তব্য