Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ২২ আগস্ট, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ২১ আগস্ট, ২০১৯ ২৩:৫১

সুন্দরবনে বাঘিনীর মৃতদেহ উদ্ধার

বাগেরহাট প্রতিনিধি

সুন্দরবনে বাঘিনীর মৃতদেহ উদ্ধার

বাগেরহাটের পূর্ব সুন্দরবন বিভাগের শরণখোলা রেঞ্জের ছাপড়াখালী অভয়ারণ্য থেকে একটি বাঘিনীর মৃতদেহ উদ্ধার করেছে বন বিভাগ। লেজসহ ৭ ফুট ৭ ইঞ্চি লম্বা ও আড়াই ফুট উচ্চতার পূর্ণবয়স্ক বাঘিনীটির মৃতদেহের ময়নাতদন্ত গতকাল বিকালে শরণখোলা রেঞ্জে সম্পন্ন হয়েছে। সুন্দরবনে বাঘিনীর মৃত্যুর খবর শুনে ভোরে শরণখোলা রেঞ্জ অফিসে ছুটে যান পূর্ব সুন্দরবন বিভাগের ডিএফও মাহমুদুল হাসান। তিনি উপস্থিত থেকে প্রাণিসম্পদ বিভাগের ভেটেরিনারি সার্জন দিয়ে বাঘিনীর ময়নাতদন্ত করান। তবে, মৃত্যু বার্ধক্যের কারণে না অন্য কোনো কারণে, তা নিশ্চিত করতে লিভার, কিডনিসহ কিছু অঙ্গপ্রত্যঙ্গ বন বিভাগের ফরেনসিক ল্যাবে পাঠানো হচ্ছে। এদিকে সুন্দরবনে মৃত বাঘ উদ্ধারের খবরে শঙ্কা প্রকাশ করেছেন এই হ্যারিটেজ বনের প্রাণ-প্রকৃতি নিয়ে কাজ করা পরিবেশবাদীরা। বাগেরহাটের পূর্ব সুন্দরবন বিভাগের বিভাগীয় বন কর্মকর্তা (ডিএফও) মাহমুদুল হাসান জানান, ‘সুন্দরবনের শরণখোলা রেঞ্জের কটকা বন অফিসের বনরক্ষীরা মঙ্গলবার দুপুরে টহল দেওয়ার সময় ছাপড়াখালী অভয়ারণ্যের মধ্যে মৃত বন্যপ্রাণীর গন্ধ পান। তারা তল্লাশি চালিয়ে একটি মৃত বাঘিনীকে পড়ে থাকতে দেখেন। সেটি উদ্ধার করে শরণখোলা রেঞ্জ অফিসে নিয়ে আসা হয়। ময়নাতদন্তের পর সন্ধ্যায় শরণখোলা রেঞ্জ অফিস প্রাঙ্গণে বাঘিনীটিকে মাটিচাপা দিয়ে রাখা হয়েছে। তবে, বাঘিনীটির শরীরে কোনো আঘাতের চিহ্ন না থাকা এবং দাঁত-নখসহ সব অঙ্গপ্রত্যঙ্গ থাকায় প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, বার্ধক্যের কারণেই স্বাভাবিক মৃত্যু হয়েছে।’ খুলনা অঞ্চলের বন্যপ্রাণী ও প্রকৃতি সংরক্ষণ বিভাগের ডিএফও বলেন, ‘বাঘটির বয়স আনুমানিক ১৭-১৮ বছর। স্বাভাবিকভাবে একটি বাঘ এ রকমই বয়স পায়। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, এটি স্বাভাবিক মৃত্যু।’ এ বিষয়ে সুন্দরবন নিয়ে নিরন্তর কাজ করে চলা সেভ দ্য সুন্দরবন ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান ড. ফরিদুল ইসলাম বলেন, ‘সুন্দরবনে চোরা শিকারিরা বিষ টোপসহ বিভিন্ন উপায়ে বাঘ হত্যা করে। এ ছাড়া বিভিন্ন খালে বিষ প্রয়োগ করে মাছ ধরার কারণে নদী ও খালের পানি বিষযুক্ত থাকে। ফলে শুধু মাছ নয়, অন্যান্য বন্যপ্রাণীও বিষক্রিয়ায় আক্রান্ত হচ্ছে। মৃত বাঘিনীটিও এর প্রভাবে মারা যেতে পারে।’ বাঘিনীর মৃত্যুর সঠিক কারণ উদ্ঘাটনে বন বিভাগকে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি জানান তিনি।


আপনার মন্তব্য