শিরোনাম
প্রকাশ : মঙ্গলবার, ২৩ মার্চ, ২০২১ ০০:০০ টা
আপলোড : ২২ মার্চ, ২০২১ ২৩:৩৫

করোনার মুখে মায়ামি বিচে কারফিউ

ভারতে কুম্ভমেলা নিয়ে শঙ্কা পাকিস্তানের ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা

প্রতিদিন ডেস্ক

Google News

নতুন করে করোনাভাইরাসের বিস্তৃতির সময় যুক্তরাষ্ট্রের মায়ামি বিচে জনসমাগম ঠেকাতে কারফিউ জারি করা হয়েছে। ঠিক একইভাবে ভারতের উত্তরাখন্ডে শুরু হতে যাওয়া হিন্দু সম্প্রদায়ের অন্যতম বৃহত্তম উৎসব কুম্ভমেলা নিয়েও গভীর শঙ্কা তৈরি হয়েছে। কারণ ভারতেও ভয়াবহভাবে করোনা বিস্তৃত হতে শুরু করেছে। এদিকে সার্বিক পরিস্থিতি বিবেচনায় পাকিস্তান সরকার ১২টি দেশ থেকে পাকিস্তানে ভ্রমণের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে। সূত্র : বিবিসি, রয়টার্স। খবরে বলা হয়েছে, যুক্তরাষ্ট্রের মায়ামি বিচে বসন্তের ছুটিতে প্রচুর লোক জড়ো হওয়ার পর করোনাভাইরাস ঝুঁকির শঙ্কায় শহরটিতে জরুরি অবস্থা ঘোষণা করা হয়েছে। দ্বীপ শহরটিতে অন্তত ১২ এপ্রিল পর্যন্ত স্থানীয় সময় রাত ৮টা থেকে পরদিন ভোর ৬টা পর্যন্ত নিয়মিত কারফিউ জারি থাকবে। কারফিউ চলাকালে গাড়ি চলাচলের ওপর বিধিনিষেধ আরোপ করা হয়েছে। ওই সময় সাউথ বিচের সব ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। হাজার হাজার পর্যটক হাজির হওয়ায় শহরজুড়ে ‘বিশৃঙ্খল’ পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে বলেও মায়ামি বিচের মেয়র ড্যান গেলবার জানিয়েছেন। তিনি সিএনএনকে বলেন, ‘যেন এখানে রক কনসার্ট হচ্ছে, ব্লকে ব্লকে এক দেয়াল থেকে অন্য দেয়াল পর্যন্ত লোকে গিজগিজ করছে। ভারতে কুম্ভমেলা করোনার নতুন হটস্পট : ভারতে করোনা সংক্রমণ দিন দিন বাড়ছে। গত চার মাসের মধ্যে দেশটিতে শনিবার সবচেয়ে বেশি কভিড-১৯ রোগী শনাক্ত হয়েছে। মহারাষ্ট্র রাজ্যের মুম্বাই এখন করোনা সংক্রমণের সবচেয়ে মারাত্মক হটস্পট। এর পাশাপাশি উদ্বেগ বাড়ছে উত্তরাখন্ডেও। এ রাজ্যে শুরু হতে যাচ্ছে হিন্দু সম্প্রদায়ের অন্যতম বৃহত্তম উৎসব কুম্ভমেলা। মাসব্যাপী এ আয়োজনে জমায়েত হতে পারে ১৫ কোটির বেশি ভক্ত-দর্শনার্থী। করোনা সংক্রমণ বৃদ্ধির এই সময়ে এত মানুষের সমাগম মুম্বাইয়ের পরে উত্তরাখন্ডকে নতুন হটস্পট হিসেবে চিহ্নিত করতে পারে বলে আশঙ্কা বিশ্লেষকদের। ১২ দেশ থেকে ভ্রমণ নিষিদ্ধ করল পাকিস্তান : করোনাভাইরাসের সংক্রমণরোধে পাকিস্তানের সিভিল এভিয়েশন কর্তৃপক্ষ (সিএএ) গত শনিবার ১২টি দেশ থেকে পাকিস্তানে ভ্রমণের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে। দক্ষিণ আফ্রিকা ও ব্রাজিলে পাওয়া করোনার নতুন ধরন সম্প্রতি পাকিস্তানে ছড়িয়ে পড়ায় এ পদক্ষেপ নিল কর্তৃপক্ষ। এক্ষেত্রে বিভিন্ন দেশকে এ, বি ও সি ক্যাটাগরিতে ফেলা হয়েছে। পাকিস্তানের শীর্ষ সংবাদপত্র ডন এ খবর জানিয়েছে। ক্যাটাগরি সি অংশে তালিকাভুক্ত ১২টি দেশে ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞার পাশাপাশি এসব থেকে পাকিস্তানে ভ্রমণও নিষিদ্ধ করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (২৩ মার্চ) থেকে এই নিষেধাজ্ঞা কার্যকর হবে। এক নির্দেশনায় সিএএ জানায়, করোনাভাইরাস প্রতিরোধে গঠিত ‘ন্যাশনাল কমান্ড অপারেশন সেন্টার (এনসিওসি) অনুযায়ী, ক্যাটাগরি সি এর দেশগুলো থেকে পাকিস্তানে ভ্রমণ সম্পূর্ণ নিষিদ্ধ ঘোষণা করা হলো। পাকিস্তানি পাসপোর্টধারী, পাকিস্তানের জাতীয় পরিচয়পত্রধারী প্রবাসী ও সাবেক পাকিস্তানি নাগরিকরা এই নিষেধাজ্ঞার আওতার বাইরে থাকবেন। পাকিস্তানে কভিড-১৯-এর সংক্রমণরোধে সাময়িকভাবে এই পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে।’ এভিয়েশন বিভাগের এক মুখপাত্র জানান, সিএএ এবার ক্যাটাগরি সি হালনাগাদ করেছে এবং যুক্তরাজ্যকে ক্যাটাগরি সি থেকে বি-তে স্থানান্তর করেছে। ক্যাটাগরি এ-এর দেশগুলো হলো- অস্ট্রেলিয়া, ভুটান, চীন, ফিজি, জাপান, কাজাখস্তান, লাওস, মঙ্গোলিয়া, মৌরিতানিয়া, মরক্কো, মিয়ানমার, নেপাল, নিউজিল্যান্ড, সৌদি আরব, সিঙ্গাপুর, দক্ষিণ কোরিয়া, শ্রীলঙ্কা, তাজিকিস্তান, ত্রিনিদাদ ও টোবাগো এবং ভিয়েতনাম।