শিরোনাম
প্রকাশ : বুধবার, ১৪ এপ্রিল, ২০২১ ০০:০০ টা
আপলোড : ১৩ এপ্রিল, ২০২১ ২৩:৩৬

ফেব্রুয়ারির তুলনায় ছয় গুণ বেড়েছে দৈনিক মৃত্যু

২৪ ঘণ্টায় শনাক্ত ৬০২৮, মৃত্যু ৬৯

নিজস্ব প্রতিবেদক

ফেব্রুয়ারির তুলনায় ছয় গুণ বেড়েছে দৈনিক মৃত্যু
Google News

দেশে করোনাভাইরাস সংক্রমণে গত ১৩ দিনেই মৃত্যু হয়েছে ৮৪৫ জনের। গড়ে দৈনিক মারা গেছেন ৬৫ জন। ফেব্রুয়ারির তুলনায় এপ্রিলে ছয় গুণের বেশি বেড়েছে দৈনিক মৃত্যু। মার্চের তুলনায় বেড়েছে ৩ গুণ। দেশে করোনাভাইরাস সংক্রমণ শুরুর পর এত মৃত্যু আগে কখনো দেখেনি দেশের মানুষ। গত জানুয়ারিতে গড়ে দৈনিক ১৮ দশমিক ৩২, ফেব্রুয়ারিতে ১০ ও মার্চে ২০ দশমিক ৫৮ জনের মৃত্যু হয়।

স্বাস্থ্য অধিদফতরের তথ্যানুযায়ী গত ২৪ ঘণ্টায় মারা গেছেন ৬৯ জন। নতুন করে সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছে ৬ হাজার ২৮ জনের দেহে। এ নিয়ে দেশে মোট শনাক্ত রোগীর সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৬ লাখ ৯৭ হাজার ৯৮৫-এ। মোট মৃত্যু হয়েছে ৯ হাজার ৮৯১ জনের। গত বছরের ৮ মার্চ দেশে প্রথম করোনা সংক্রমণ শনাক্তের পর জুন-জুলাই-আগস্টে সংক্রমণ ও মৃত্যু সর্বোচ্চ পর্যায়ে পৌঁছায়। মাসের হিসাবে এখন পর্যন্ত সর্বোচ্চ মৃত্যু হয়েছে গত বছরের জুলাইয়ে। ওই মাসের ৩১ দিনে ১ হাজার ২৬৪ জনের মৃত্যুর খবর দেয় স্বাস্থ্য অধিদফতর। গড়ে দৈনিক মারা গেছেন ৪০ দশমিক ৭৭ জন। ভয়াবহ ওই মৃত্যুর মাসের তুলনায় চলতি এপ্রিলে এসে দৈনিক মৃত্যু বেড়েছে ২৪ জনের বেশি। এর মধ্যে ১২ এপ্রিল এক দিনেই ৮৩ জনের মৃত্যুর খবর দেয় স্বাস্থ্য অধিদফতর। এদিকে সংকটাপন্ন রোগী বেড়ে যাওয়ায় আইসিইউ নিয়ে হাহাকার পড়ে গেছে। হাসপাতাল থেকে হাসপাতাল ঘুরেও মিলছে না আইসিইউ। পথেই মৃত্যু হচ্ছে অনেকের। আবার অনেকে হাসপাতালে আনার কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়ছেন। বাড়িতেও মারা যাচ্ছেন কেউ কেউ। গতকাল রাজধানীর ১০টি কভিড-১৯ ডেডিকেটেড সরকারি হাসপাতালের মধ্যে নয়টিতে কোনো আইসিইউ ফাঁকা ছিল না। শুধু রাজারবাগ পুলিশ হাসপাতালে একটি আইসিইউ ফাঁকা ছিল। এ ছাড়া ১৭টি বেসরকারি হাসপাতালের ৪৪৫টি আইসিইউর মধ্যে ফাঁকা ছিল মাত্র সাতটি। এক মাসের ব্যবধানে সারা দেশের আইসিইউ সংখ্যা ১৭২ বেড়ে মোট ৭৩৮টি হলেও গতকাল ফাঁকা ছিল মাত্র ১৩৯টি।

স্বাস্থ্য অধিদফতরের তথ্যানুযায়ী গত এক দিনে মৃতের মধ্যে ৪৩ জন পুরুষ ও ২৬ জন নারী। হাসপাতালে ৬৩ জনের ও বাড়িতে পাঁচজনের মৃত্যু হয়েছে। একজনকে মৃত অবস্থায় হাসপাতালে আনা হয়। বয়স বিবেচনায় মৃতের মধ্যে ৩৯ জন ষাটোর্ধ্ব, ২০ জন পঞ্চাশোর্ধ্ব, সাতজন চল্লিশোর্ধ্ব ও তিনজনের বয়স ৩১ থেকে ৪০ বছরের মধ্যে। এর মধ্যে ৪১ জন ঢাকা, ১৩ জন চট্টগ্রাম, তিনজন করে রাজশাহী, খুলনা, বরিশাল ও রংপুর, দুজন সিলেট ও একজন ময়মনসিংহ বিভাগের বাসিন্দা ছিলেন। গত ২৪ ঘণ্টায় ৩২ হাজার ৯৫৫ জনের নমুনা পরীক্ষায় ১৮ দশমিক ২৯ শতাংশ মানুষের দেহে সংক্রমণ শনাক্ত হয়। গত এক দিনে সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৪ হাজার ৮৫৩ জন। এ পর্যন্ত মোট সুস্থ হয়েছেন ৫ লাখ ৮৫ হাজার ৯৬৬ জন।

এই বিভাগের আরও খবর