শিরোনাম
প্রকাশ : রবিবার, ২৭ জুন, ২০২১ ০০:০০ টা
আপলোড : ২৬ জুন, ২০২১ ২৩:৪৫

শুধু সরকারি কর্মকর্তা নয়, সম্পৃক্ত করতে হবে জনপ্রতিনিধিদের

-এ এইচ এম খায়রুজ্জামান লিটন

শুধু সরকারি কর্মকর্তা নয়, সম্পৃক্ত করতে হবে জনপ্রতিনিধিদের
Google News

রাজশাহী সিটি করপোরেশনের মেয়র এ এইচ এম খায়রুজ্জামান লিটন বলেছেন, করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়েছে। এখন সবচেয়ে বড় প্রয়োজন মানুষের জীবন ও জীবিকা রক্ষা করা। শুধু সরকারি কর্মকর্তাদের দিয়ে করোনা মোকাবিলা সম্ভব নয়। রাজনৈতিক দল, সংগঠন, ব্যক্তি সব স্তরের মানুষকে সম্পৃক্ত এবং সচেতনতা বৃদ্ধি করতে হবে। এ জন্য সরকারি কর্মকর্তাদের পাশাপাশি আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নেতা, নির্বাচিত জনপ্রতিনিধি, জোট শরিকদের দায়িত্ব দিতে হবে। গতকাল বাংলাদেশ প্রতিদিনের সঙ্গে আলাপকালে তিনি এসব কথা বলেন। আলাপকালে রাজশাহীর সিটি মেয়র খায়রুজ্জামান লিটন বলেন, করোনার ঢেউ যে হারে বাড়ছে এবং নতুন করে পুরো দেশ লকডাউনের ফলে সমস্যার সৃষ্টি হবে। করোনার সংকট মোকাবিলায় জনগণের নির্বাচিত প্রতিনিধিদের সম্পৃক্ত করা প্রয়োজন। শুরু থেকেই সরকারি কর্মকর্তাদের সঙ্গে রাজনীতিবিদদের সমন্বয় করা উচিত ছিল। তিনি বলেন, সিটি এলাকা বা জেলায় জেলায় কী সমস্যা হচ্ছে, মানুষের কী কী চাহিদা সেগুলো জনগণের নির্বাচিত প্রতিনিধিরাই বেশি ভালো জানেন এবং চিহ্নিত করতে সক্ষম হন। কারণ নির্বাচিত প্রতিনিধিদের যেহেতু নিবিড়ভাবে মানুষের সঙ্গে মিশতে হয়, আবার জনগণও সমস্যার কথা জনপ্রতিনিধিদেরই বলে থাকেন। সে কারণে করোনা মোকাবিলায় যদি রাজনীতিবিদ ও জনপ্রতিনিধিরা গাইড করতে পারতেন তাহলে ভালো হতো। লিটন বলেন, ‘এখনো সময় আছে সমন্বয়ের জন্য জেলা-উপজেলা থেকে শুরু করে ইউনিয়ন পর্যায়ে কমিটি করে করোনা পরিস্থিতি মোকাবিলা করা সম্ভব। রাজনীতিবিদদের সিদ্ধান্তকে অগ্রাধিকার দিয়ে কাজ করা উচিত বলে মনে করি।’ রাজশাহী বিভাগে করোনার পরিস্থিতি তুলে ধরে লিটন বলেন, ‘রাজশাহীতে এখন পরিস্থিতি খারাপের দিকে। করোনা মোকাবিলায় রাজশাহী বিভাগীয় কমিশনারের নেতৃত্বে একটা কমিটি আছে। এ কমিটি পুরোপুরি সরকারি কর্মকর্তাদের নিয়ে করা কমিটি। আর রাজশাহী মহানগরে পৃথক কমিটি রয়েছে। মেয়র হিসেবে এ কমিটিতে আমি এবং ওয়ার্ড কাউন্সিলর ও কিছু সরকারি কর্মকর্তা আছেন। আমরা কাজ করছি। পুরো দায়িত্ব আমাদের হাতে পেলে কাজ আরও সহজ হতো। আমরা যারা নির্বাচিত জনপ্রতিনিধি আছি, তারা সরকারি কর্মকর্তাদের গাইড করতাম, তারা কাজগুলো বাস্তবায়ন করতেন।’

এই বিভাগের আরও খবর