শিরোনাম
প্রকাশ : মঙ্গলবার, ১৩ জুলাই, ২০২১ ০০:০০ টা
আপলোড : ১২ জুলাই, ২০২১ ২৩:৩৮

অষ্টম কলাম

স্বামী-স্ত্রীর টাকার কারখানা!

নিজস্ব প্রতিবেদক

Google News

স্বামী-স্ত্রীর টাকার কারখানা, প্রচুর জাল নোট। রাজধানী বাড্ডার নুরেরচালা সাঈদনগরের একটি বাসায় মেশিন বসিয়ে জাল নোট বানানোর কারখানা শুরু করেন আবদুর রহিম শেখ ও তার স্ত্রী ফাতেমা বেগম। এতে জড়ান আরও কয়েকজন। সামনে ঈদ থাকায় জাল নোট ছাপানোর পরিমাণও বাড়ানোর পরিকল্পনা ছিল তাদের।

গতকাল সাঈদনগরের বাসাটিতে অভিযান চালায় ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) গুলশান বিভাগ। এ সময় রহিম-ফাতেমা ছাড়াও আরও তিনজনকে গ্রেফতার করা হয়। তারা হলেন- গার্মেন্টস ব্যবসায়ী হেলাল খান, আনোয়ার হোসেন ও ইসরাফিল আমিন।

অভিযান শেষে ডিবি গুলশান বিভাগের উপ-কমিশনার (ডিসি) মশিউর রহমান বলেন, সাঈদনগরের একটি সাততলা বাড়ির ষষ্ঠ তলায় অভিযান চালিয়ে বিপুল পরিমাণ জাল টাকা তৈরির একটি ঘরোয়া কারখানা পাওয়া গেছে। কারখানাটি থেকে ১০০০ টাকা ও ৫০০ টাকা মূল্যমানের প্রায় ৪৩ লাখ জাল নোট ও প্রচুর পরিমাণে জাল টাকা তৈরির উপকরণ জব্দ করা হয়েছে।

ডিবি পুলিশ সূত্র জানায়, আবদুর রহিম শেখ ও তার স্ত্রী ফাতেমা কারখানাটি পরিচালনা করতেন। বাকিরা তাদের সহযোগী হিসেবে কাজ করতেন। তারা দীর্ঘদিন ধরে জাল টাকা খুচরা এবং পাইকারি বিক্রি করে আসছেন। তবে ঈদকে কেন্দ্র করে তাদের কার্যক্রম আরও বেড়ে যায়। গত তিন বছর ধরে ঈদসহ অন্যান্য উৎসবের আগে বিপুল পরিমাণ জাল টাকা বাজারে ছেড়েছে। আর ফাতেমা বেগম ২০১৯ সালে হাতিরঝিল এলাকার একটি বাসায় জাল টাকার তৈরির সময় সহযোগীসহ পুলিশের হাতে গ্রেফতার হয়েছিলেন। তবে ওই সময় তার স্বামী রহিম পালিয়ে যান। এর আগে তারা বেশ কয়েকবার জাল টাকা অথবা মাদক ক্রয়-বিক্রয়ের কাজে জড়িত থাকার অভিযোগে গ্রেফতার হয়েছিলেন।