শিরোনাম
প্রকাশ : সোমবার, ২ আগস্ট, ২০২১ ০০:০০ টা
আপলোড : ১ আগস্ট, ২০২১ ২৩:২৫

জয়পুরহাটে বসুন্ধরার ত্রাণ পেয়ে খুশিতে চোখের জল

জয়পুরহাট প্রতিনিধি

জয়পুরহাটে বসুন্ধরার ত্রাণ পেয়ে খুশিতে চোখের জল
জয়পুরহাটের তিনটি উপজেলায় গতকাল ১ হাজার অসহায় ও দরিদ্র মানুষের মাঝে ত্রাণ বিতরণ করে বসুন্ধরা গ্রুপ। এ সময় অসহায় পরিবারগুলোর মাঝে ১৬ কেজি ওজনের খাদ্যসামগ্রী বিতরণ করা হয় -বাংলাদেশ প্রতিদিন
Google News

দেশের শীর্ষস্থানীয় শিল্পপ্রতিষ্ঠান বসুন্ধরা গ্রুপের খাবার সহায়তা পেয়ে খুশিতে কান্না এসেছে অনেকের চোখে। অসহায় মানুষের বিপদে সাথী হিসেবে বসুন্ধরা গ্রুপকে পেয়ে দোয়া করেছে অসহায়রা। তারা বিপদে এভাবে বসুন্ধরাকে  কাছে পাওয়ার আকুতিও জানান। গতকাল জয়পুরহাটের তিনটি উপজেলায় ১ হাজার অসহায় ও দরিদ্র মানুষের মুখে হাসি ফুটিয়েছে বসুন্ধরা গ্রুপের সহায়তা। জেলার আক্কেলপুর, ক্ষেতলাল, কালাই উপজেলার অসহায় পরিবারগুলোর মাঝে ১৬ কেজি ওজনের খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করেছে গ্রুপটি।

কালাই উপজেলার বৃদ্ধ গোলাম রাব্বানী খাবার সহায়তা পেয়ে চোখ দিয়ে পানি ঝরান। তিনি বলেন, করোনাকালে খায়া না খায়া দিন চলিছে। এ খাবারটি মোর ১৫ দিন চলিবে। কেহ ভাবিনি বউ ছাওয়াল নিয়ে       খাবার পামু। এই ত্রাণটা পাইয়ে মোর খুব উপকার হইল। আক্কেলপুর উপজেলার কেশবপুর গ্রামের আবদুল হান্নান বলেন, মুই তো কাজ করবা পারুনা। আগে রিকশা চালাছুনু এখন বয়সের কারণে আর রিকশা চালাবা পারু না। এর আগে মোক কেউ ত্রাণ দেয়নি। আল্লাহ তোমা ঘরেক ভালো করিবে।

কয়েক মাস আগে স্বামী হারানো ক্ষেতলাল উপজেলার উত্তর বস্তা গ্রামের বৃদ্ধা আমেনা বেওয়া বসুন্ধরা গ্রুপের ত্রাণ পেয়ে বলেন, মোর স্বামী কয়েক মাস আগে মারা গেছে। ছেলে মেয়ে কেউ নেই বাবা অনেক কষ্ট করে দিন পার হয় মোর। তোমরা যে খাবার দিলেন মুই কয়ডাদিন খাইবার পারমু।

গতকাল দিনব্যাপী বসুন্ধরা গ্রুপের সহযোগিতায় কালের কণ্ঠ শুভসংঘের আয়োজনে জেলার আক্কেলপুর, ক্ষেতলাল, কালাই উপজেলার বিভিন্ন স্থানে ১ হাজার অসহায় ও দুস্থ মানুষের মাঝে ত্রাণসামগ্রী বিতরণের সময় ত্রাণগ্রহীতারা এমন অভিমত ব্যক্ত করেন। আক্কেলপুরে ত্রাণসামগ্রী বিতরণ করেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) এস এম হাবিবুল হাসান। এ সময় উপস্থিত ছিলেন আক্কেলপুর পৌর মেয়র শহিদুল আলম চৌধুরী, আক্কেলপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সাইদুর রহমান, আক্কেলপুর মুজিবর রহমান ডিগ্রি কলেজের অধ্যক্ষ মোকছেদ আলীসহ অন্যরা।

ত্রাণ বিতরণকালে ক্ষেতলাল উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) আবু সুফিয়ান বলেন, করোনার মধ্যে এতদূর থেকে জয়পুরহাট জেলায় ত্রাণ সহায়তা দেওয়ায় বসুন্ধরা গ্রুপকে ধন্যবাদ জানাই। এ সময় উপস্থিত ছিলেন, ক্ষেতলাল উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোস্তাকিম মন্ডল, ক্ষেতলাল পৌর মেয়র সিরাজুল ইসলাম বুলু, ক্ষেতলাল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নৃরেন্দ্রনাথ মন্ডলসহ অন্যরা।

কালাইয়ে ত্রাণ বিতরণের সময় কালাই উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মিনফুজুর রহমান মিলন বলেন, বসুন্ধরা গ্রুপ যেন তাদের মানবিক হাতটা সমাজের অসহায় মানুষের মাঝে এভাবেই আরও বাড়িয়ে দেয়। এ সময় উপস্থিত ছিলেন, কালাই উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) টুকটুক তালুকদার, কালাই থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সেলিম মালিকসহ অন্যরা। ত্রাণ বিতরণ কার্যক্রমে আরও উপস্থিত ছিলেন শুভসংঘের পরিচালক জাকারিয়া জামান, শুভসংঘ জয়পুরহাটের স্বেচ্ছাসেবী মোস্তাকিম বিল্লাহ, তরিকুল ইসলাম, আবু তালহা সাঈদ প্রমুখ।