Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : ২২ মে, ২০১৯ ১৯:৪১

ভোটযুদ্ধের পর টুইটারেও জয়জয়কার মোদির

অনলাইন ডেস্ক

ভোটযুদ্ধের পর টুইটারেও জয়জয়কার মোদির
সংগৃহীত ছবি

ভারতের লোকসভা নির্বাচনের ফল গণনা হবে আগামীকাল বৃহস্পতিবার। ৫৪৩ আসন বিশিষ্ট ভারতের লোকসভায় সপ্তম দফায় ভোট নেওয়া হয়েছে ৫৪২ আসনে। অনিয়মের অভিযোগে একটি আসনে ভোট গ্রহণ স্থগিত রাখা হয়েছে। 

এদিকে রাজপথ বা মাঠ-ময়দান ছেড়ে ভোট যুদ্ধ এখন ছড়িয়ে পড়েছে সোশ্যাল মিডিয়াতেও। সোশ্যাল মিডিয়ার কতটা দখল কার হাতে থাকছে, সে দিকে বিশেষ নজর রেখেছিল প্রায় সমস্ত রাজনৈতিক দলই। সেখানেও দেখা যাচ্ছে জয়জয়কার প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিরই। 
  
সাত দফার নির্বাচনে শুধুমাত্র ভোটগ্রহণের দিনগুলোকে নিয়ে একটি সমীক্ষা করে নয়াদিল্লির ইন্দ্রপ্রস্থ ইনস্টিটিউট অফ ইনফরমেশন টেকলোলজি। সেখানেই দেখা গেল বাকি সবাইকে পেছনে ফেলে অনেক এগিয়ে মোদি।

শুধু মাত্র ভোটের দিনগুলোতেই মোট ১৭ লাখ ৪০ হাজার করা হয়েছে টুইটারে। সেখান থেকেই বেছে নেওয়া হয়েছিল মোট ৮৬১ টি হ্যাশট্যাগকে। দেখা যাচ্ছে সেই হ্যাশট্যাগের লড়াই তে সবার আগে নরেন্দ্র মোদি। প্রতিটি দফাতেই প্রথম পাঁচটি হ্যাশট্যাগের মধ্যে জায়গা করে নিয়েছে #Namo অথবা #Modi।

যারা এ সমীক্ষাটি করেছেন, তাদের তরফে অধ্যাপক পন্নুরঙ্গম কুমারগুরু বলেছেন, ‘‘যারা রাজনৈতিক বিষয়ে টুইট করছেন, তাদের মধ্যে ভোট দেওয়ার প্রবণতা অনেক বেশি, এই সিদ্ধান্তে আমরা পৌঁছেছি এই সমীক্ষার ফলেই। প্রতিটি দফাতেই প্রথম পাঁচটি বিষয়ের মধ্যে দু’টি বিজেপি সম্পর্কিত, একটি দফায় প্রথম পাঁচটি বিষয়ের মধ্যে চারটিই বিজেপি সম্পর্কিত। তৃতীয় দফায় প্রথম পাঁচটির মধ্যে চারটিই হল @narendramodi, @BJP4India, @Amit Shah এবং @BJP4Rajasthan।

নির্বাচনে সোশ্যাল মিডিয়া যে একটা বড় ভূমিকা নিয়েছিল, তা এক বাক্যে স্বীকার করে নিয়েছেন অনেক বড় রাজনৈতিক পণ্ডিতই। এই নির্বাচনে বিভিন্ন রাজনৈতিক দল, ব্যক্তি, নেতা বা প্রার্থীর ‘ভেরিফায়েড’ বা সরকারি হ্যান্ডলের সংখ্যা ছিল ৩,২১৮। এই টুইটার হ্যান্ডলগুলোর মাধ্যমে দ্রুতগতিতে নিজের রাজনৈতিক প্রচার ছড়িয়ে দেওয়া হত সারা দেশে।সূত্র:আনন্দবাজার


বিডি-প্রতিদিন/বাজিত হোসেন


আপনার মন্তব্য