শিরোনাম
প্রকাশ : ২৭ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ০৪:০১
প্রিন্ট করুন printer

সমুদ্রের সঙ্গে ১৪ ঘণ্টার লড়াই নাবিকের, অতঃপর...

অনলাইন ডেস্ক

সমুদ্রের সঙ্গে ১৪ ঘণ্টার লড়াই নাবিকের, অতঃপর...
ছবি : গেটি ইমেজেস

অন্ধাকার সমুদ্রে রাত তখন চারটে। কিছুই দেখা যাচ্ছে না। কিন্তু প্রাণপণে কোনো রকমে ভেসে থাকার চেষ্টা করে যাচ্ছেন তিনি। একটু পরে অল্প অল্প ভোরের আলো ফোটে। তখনও ভেসে থাকা।

বেশ কিছু দূরে সমুদ্রে আবর্জনার টুকরো দেখা যায়। সমস্ত শক্তি সংগ্রহ করে তখন সাঁতার দেন সেই দিকেই। মৃত্যু আর জীবনের মধ্যে সামান্য একটু আবর্জনা। সেটাকে আঁকড়েই বিশাল সমুদ্রে ১৪ ঘণ্টা ধরে বেঁচে থাকার চেষ্টা করে যান বিদাম পেরেভার্তিলোভ নামে এক নাবিক।

দক্ষিণ প্রশান্ত মহাসাগরে নিউজিল্যান্ডের টওরাঙ্গা পোর্ট ও পিটকেয়ার্ন দ্বীপের মাঝে এমন ঘটনা ঘটেছে। বিদাম পড়ে গিয়েছিলেন এক মালবাহী জাহাজ থেকে। কিন্তু জাহাজের কেউ জানতেই পারেননি তা।
  
বিদামের গায়ে কোনো লাইফ জ্যাকেট ছিল না। হঠাৎ পড়ে গিয়েছিলেন তিনি। কিন্তু ভয় না পেয়ে একা বিশাল সমুদ্রে মৃত্যুর সঙ্গে লড়াই করেছেন তিনি।

প্রশান্ত মহাসাগরে ১৪ ঘণ্টা আবর্জনা আঁকড়ে ভেসে থাকেন। পরে তার জাহাজের সতীর্থরা জাহাজে তাকে খুঁজে না পেয়ে বুঝতে পারেন, তিনি পানিতে পড়ে গেছেন। তখনই জাহাজ পেছন দিকে ফেরে তাকে খুঁজতে থাকেন। খবর দেওয়া হয় অন্যান্য জাহাজগুলোতেও।

১৪ ঘণ্টা পরে বিদাম একটি জাহাজ দেখতে পান। ওটাই তখন তার কাছে লাইফলাইন। যতটুকু শক্তি তার তখনও টিকে আছে শরীরে, তা দিয়ে চিৎকার শুরু করেন। সেই জাহাজটিই তাকে উদ্ধার করে। পানিতে এত দীর্ঘ সময় থাকায় তখন যথেষ্ট দুর্বল ও অসুস্থ বিদাম। তবে অদম্য ইচ্ছা আর সাহসের জেরে জীবনের আলো দেখতে পান এই নাবিক।

সূত্র : বিবিসি

বিডি প্রতিদিন/এমআই


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর