শিরোনাম
প্রকাশ : ৩ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ১৯:৫২
প্রিন্ট করুন printer

চট্টগ্রামে প্রথম ইভিএম ভোট হবে পাঁচ পৌরসভায়

সাইদুল ইসলাম, চট্টগ্রাম:

চট্টগ্রামে প্রথম ইভিএম ভোট হবে পাঁচ পৌরসভায়

চট্টগ্রামে ৪র্থ ও ৫ম ধাপে হতে যাওয়া পৌরসভার নির্বাচনে প্রথমবারের মতো ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনের (ইভিএম) ভোট হবে পাঁচ পৌরসভায়। ভোটারদের মাঝে এই ইভিএম ভোট কিভাবে প্রদান-গ্রহণ করবেন, সেই বিষয়েও প্রস্তুতি নিচ্ছে নির্বাচন কমিশন ৪র্থ ধাপের পটিয়ায় নির্বাচনের জন্য ইভিএম পৌঁছলেও ৫ম ধাপের ইভিএমগুলো বৃহস্পতিবার ভোরেই স্ব স্ব পৌরসভায় পৌঁছে যাবে এবং ৫ম ধাপের পৌর নির্বাচনে রাউজান, রাঙ্গুনীয়া, মীরসরাই ও বারইয়ারহাট পৌরসভার মধ্যে রাউজান পৌরসভায় বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় সকলেই নির্বাচিত হওয়ার পথে রয়েছেন মেয়র-কাউন্সিলর প্রার্থীরা। 

এতে রাউজানে ইভিএম গেলেও নিয়মতান্ত্রিকভাবে ইভিএম ফেরতের ব্যবস্থা করা হবে বলেও জানান নির্বাচনের দায়িত্বশীলরা। তবে ৫ম ধাপে হতে যাওয়া নির্বাচনে রাউজান ছাড়া তিন পৌরসভায় মেয়র পদে ৬, কাউন্সিলর পদে ১৫৫ প্রার্থীর মনোনয়ন জমা দেন এবং রাউজান পৌসভায় মেয়রসহ ১১ জন প্রার্থী বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হওয়ার পথে রয়েছেন বলে দায়িত্বশীল সূত্রে জানা গেছে।

চট্টগ্রামের রাউজান উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) এবং পৌরসভা নির্বাচনের রির্টানিং কর্মকর্তা জোনায়েদ কবির সোহাগ বাংলাদেশ প্রতিদিনকে বলেন, পৌর নির্বাচনের জন্য সকল প্রকার প্রস্তুতি সম্পনন রয়েছে। বৃহস্পতিবারের মধ্যেই ভোটের জন্য ইভিএম চলে আসছে। তবে এখানে নির্বাচনের প্রতিদ্ব›দ্বী প্রার্থী না থাকে, তাহলে নিয়মতান্ত্রিক ভাবেই ইভিএম ফেরত দেয়া হবে বলে জানান তিনি।

নির্বাচন কমিশন সূত্রে জানা গেছে, চট্টগ্রামে ৪র্থ ও ৫ম ধাপে পৃথকভাবে হতে যাওয়া পৌরসভা নির্বাচনের জন্য ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনের (ইভিএম) পৌঁছে যাচ্ছে স্ব স্ব নির্বাচনী এলাকায়। 

বৃহস্পতিবার এই ইভিএম স্ব স্ব পৌরসভার নির্বাচনী দায়িত্বশীল কর্মকর্তারা রিসিভ করবেন। এর আগে ১৪ ফেব্রুয়ারী পটিয়া পৌরসভা নির্বাচনের জন্য ইভিএম পৌছে গেছে। এবার ২৮ ফেব্রুয়ারীতে চারটি পৌরসভায় যথাক্রমে রাউজান, রাঙ্গুনীয়া, মীরসরাই ও বারইয়াহাট পৌরসভার নির্বাচনের জন্য ইভিএম পৌঁছে যাবে বৃহস্পতিবার। চার পৌরসভায় মোট ভোট কেন্দ্র হচ্ছে ৪৯টি, ভোট কক্ষ হচ্ছে ২’শ ৬৫টি। এখানে অস্থায়ী ভোট কেন্দ্র ২টি এবং স্থায়ী ভোটকক্ষের সংখ্যা রয়েছে ৪২টি। চার পৌরসভায় ৫ম ধাপে হতে যাওয়া পৌর মোট ভোটার হচ্ছে ৯৭ হাজার ৮’শ ৮৫ জন। এদের মধ্যে পুরুষ রয়েছেন ৫১ হাজার ৩ জন এবং মহিলা ভোটার রয়েছেন ৪৬ হাজার ৮’শ ৮২ জন। ৪র্থ ধাপের ভোট হওয়া পটিয়া পৌরসভায় ভোটার রয়েছেন ৩৯ হাজার ৭’শ ৮৭ জন।

অন্যদিকে রাউজান ছাড়া তিন পৌরসভায় মেয়র পদে ৬, কাউন্সিলর পদে ১৫৫ প্রার্থীর মনোনয়ন জমা দেন এবং রাউজান পৌসভায় মেয়রসহ ১১ জন প্রার্থী বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হওয়ার পথে রয়েছেন। রাউজানে ৬ নম্বর ওয়ার্ড ছাড়া অন্য ওয়ার্ডগুলোতে প্রতিদ্ব›দ্বী প্রার্থী কেউই পত্র জমা দেননি। রাউজান পৌরসভায় আওয়ামী লীগ মনোনীত মেয়র প্রার্থী জমির উদ্দিন পারভেজ মনোনয়নপত্র জমা দেন। এ পদে কেউই দেননি জমা। 
রাঙ্গুনীয়া পৌরসভায় জমা দেন মেয়রসহ ৪৭ জন প্রার্থী:
 রাঙ্গুনীয়া পৌরসভা নির্বাচনে দুই মেয়র প্রার্থীসহ কাউন্সিলর প্রার্থীরা তাদের মনোনয়ন পত্র জমা দিয়েছেন। মেয়র পদে আওয়ামী লীগ মনোনীত ও বর্তমান মেয়র মো. শাহজাহান সিকদার এবং বিএনপি মনোনীত প্রার্থী হেলাল উদ্দিন শাহ। সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর পদে ৮ জন এবং সাধারণ কাউন্সিলর পদে ৩৭ জন মনোনয়নপত্র জমা দেন। 
মীরসরাইয়ে ও বারইয়ারহাটে মেয়রসহ ১১৪ প্রার্থীর মনোনয়ন জমা:
 মীরসরাইয়ে আওয়ামী লীগ মনোনীত মেয়র পদপ্রার্থী গিয়াস উদ্দিন, বিএনপি মনোনীত প্রার্থী নুর মোহাম্মদ, বারইয়ারহাট পৌরসভায় আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী রেজাউল করিম খোকন ও বিএনপি মনোনীত প্রার্থী দিদারুল আলম মিয়াজী মনোনয়ন পত্র জমা দিয়েছেন।  এছাড়া মীরসরাই পৌরসভা থেকে কাউন্সিলর পদে মনোনয়পত্র জমা দেন ৪৯ জন এবং সংরক্ষি কাউন্সিলর প্রার্থী হিসেবে জমা দেন ৭ জন। বারইয়ারহাট পৌরসভায় সাধারণ কাউন্সিলর পদে জমা দেন ৫৮ জন এবং সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর পদে  ৭ জন মনোনয়ন পত্র জমা দিয়েছেন। এবার রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত চট্টগ্রামের চার পৌরসভায় মেয়র পদে ৭ জন, সংরক্ষি মহিলা কাউন্সিলর পদে ২৫ জন এবং সাধারণ কাউন্সিলর পদে ১৫৩ জন নির্বাচনে প্রার্থী রয়েছেন।

বিডি প্রতিদিন/ মজুমদার 


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর