শিরোনাম
প্রকাশ : ২৮ সেপ্টেম্বর, ২০২০ ১৮:৪১

শেখ হাসিনার দীর্ঘায়ু কামনায় কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের বিশেষ দোয়া

নিজস্ব প্রতিবেদক

শেখ হাসিনার দীর্ঘায়ু কামনায় কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের বিশেষ দোয়া

আওয়ামী লীগ সভানেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ৭৪তম জন্মদিন উপলক্ষে দীর্ঘায়ু কামনা করে বিশেষ দোয়া মাহফিল করেছে আওয়ামী লীগ। আজ সোমবার বিকালে ২৩ বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ে দলীয় কার্যালয়ে এই দোয়ার আয়োজন করা হয়।

বিশেষ দোয়ায় অংশ নেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের, প্রেসিডিয়াম সদস্য বেগম মতিয়া চৌধুরী, ড. আবদুর রাজ্জাক, আবদুল মতিন খসরু, শাজাহান খান, জাহাঙ্গীর কবির নানক ও আবদুর রহমান যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ, ড. হাছান মাহমুদ, সাংগঠনিক সম্পাদক আহমদ হোসেন, বিএম মোজাম্মেল হক, মির্জা আজম, এসএম কামাল হোসেন, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ড. আব্দুস সোবহান গোলাপ, ত্রাণ ও  সমাজকল্যাণ সম্পাদক সুজিত রায় নন্দী, দফতর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া, যুব ক্রীড়া সম্পাদক হারুনুর রশিদ, তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক ড. সেলিম মাহমুদ, মহিলা বিষয়ক সম্পাদক মেহের আফরোজ চুমকি, শিক্ষা  ও মানব সম্পদ সম্পাদক শামসুর নাহার চাপা, স্বাস্থ্য সম্পাদক ডা. রোকেয়া সুলতানা, উপদপ্তর সম্পাদক সায়েম খান, সদস্য ডা. মোস্তফা জালাল মহিউদ্দিন, অ্যাডভোকেট এবিএম রিয়াজুল কবির কাওছার, আনোয়ার হোসেন, আনিসুর রহমান, সাহাবুদ্দিন ফরাজি, ইকবাল হোসেন অপু প্রমুখ।

এসময় লিখিত বক্তব্যে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেন, বাংলার দুঃখী মানুষের মুখে হাসি ফোটানোর জন্য মুজিব কন্যা শেখ হাসিনা ফিরে এসেছিলেন বলেই বাংলাদেশ আজ ঘুরে দাঁড়িয়েছে বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়তে। যে দেশ এনে দিয়েছিলেন বঙ্গবন্ধু, সে দেশ সাজিয়ে তুলছেন তাঁর কন্যা শেখ হাসিনা। বঙ্গবন্ধু এদেশের ভৌগোলিক মুক্তির রোল মডেল আর তাঁর কন্যা এদেশের অর্থনৈতিক মুক্তির রোল মডেল। উন্নয়ন সমৃদ্ধিতে আজ বাংলাদেশ বিশ্বের বিস্ময়। শেখ হাসিনা আজ দেশের সীমানা ছাড়িয়ে বিশ্বনেতাদের কাতারে, মর্যাদার আসনে। বৈশ্বিক সংকট মোকাবিলায় তাঁর দক্ষতা এবং দূরদর্শিতার প্রসংশা করে যাচ্ছে বিশ্ব সম্প্রদায়। সীমান্ত খুলে দিয়ে রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দিয়ে মানবিক নেতৃত্বের এক অনন্য নজির স্থাপন করেছেন শেখ হাসিনা।
স্বীকৃতি পেয়েছেন মাদার অব হিউম্যানিটির। তিনি দক্ষতার সাথে এগিয়ে চলেছেন রাজনীতির সর্পিল আর কণ্টকময় পথ মাড়িয়ে। শেখ হাসিনা আছেন বলেই ৭৫ এর খুনিদের বিচার হয়েছে, যুদ্ধাপরাধীদের বিচার হয়েছে। এতে জাতি আজ কলংকমুক্ত হয়েছে। শেখ হাসিনা নিছক কোন সরকার প্রধান নন, তিনি একজন সফল রাষ্ট্রনায়ক, যার ভাবনায় পরবর্তী নির্বাচন নয়, তাঁর ভাবনার আকাশ জুড়ে পরবর্তী প্রজন্ম- তাই গ্রহণ করেছেন শতবছরের বদ্বীপ পরিকল্পনা। এদেশের রাজনীতিতে সততা আর স্বচ্ছতার অনুপম উদাহরণ বঙ্গবন্ধু পরিবার। সরকার প্রধান হয়েও অতিসাধারণ জীবনযাপন তাকে করে তুলেছে অসাধারণ একজন। আজকের এই দিনে আপনাকে জানাই সশ্রদ্ধ সালাম এবং জন্মদিনের শুভেচ্ছা। এদেশের কোটি মানুষ এবং আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের অগণিত নেতাকর্মী আপনার সুস্বাস্থ্য এবং দীর্ঘায়ু কামনা করছে। আপনিই এদেশের এগিয়ে যাওয়ার অফুরন্ত প্রেরণা, সাহসের বর্ণিল ঠিকানা।

পরে বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার সুস্বাস্থ্য ও দীর্ঘায়ু কামনা করে বিশেষ দোয়া করা হয়।

বিডি প্রতিদিন/ফারজানা


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর