শিরোনাম
প্রকাশ : ১৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ১৯:২৩
আপডেট : ১৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ১৯:২৬
প্রিন্ট করুন printer

সরস্বতী পূজা উদযাপিত

অনলাইন ডেস্ক

সরস্বতী পূজা উদযাপিত
স্বাস্থ্যবিধি মেনে দেশে হিন্দু সম্প্রদায়ের অন্যতম বড় ধর্মীয় উৎসব বিদ্যার দেবী সরস্বতীর পূজা উদযাপন হয়েছে

করোনাভাইরাসের স্বাস্থ্যবিধি মেনে দেশে হিন্দু সম্প্রদায়ের অন্যতম বড় ধর্মীয় উৎসব বিদ্যার দেবী সরস্বতীর পূজা উদযাপন হয়েছে। প্রতি বছরের ন্যায় আজ মঙ্গলবার রাজধানী ঢাকাসহ সারাদেশে পূজার আয়োজন ছিল। তবে করোনা পরিস্থিতির কারণে সীমিত পরিসরে তা করা হয়েছে। মন্দিরগুলোতে সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত আরাধনা হয়েছে। 

সরস্বতী পূজা উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পৃথক বাণীতে হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানান।

আজ সকাল ৮টা থেকে পূজা শুরু হয়। সন্ধ্যায় ছিল আরুতি অনুষ্ঠান। পূজা ছাড়াও পুষ্পাঞ্জলি প্রদান, হাতেখড়ি, প্রসাদ বিতরণ, ধর্মীয় আলোচনা সভা, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, সন্ধ্যা আরতি ও আলোকসজ্জার আয়োজন ছিল। ভক্ত ও দর্শনার্থীরা রাজধানীর বিভিন্ন স্থান ঘুরে পূজা দেখেছেন। তারা অঞ্জলি দিয়েছেন ও প্রসাদ গ্রহণ করেছেন। সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান উপভোগ করেছেন।

করোনা পরিস্থিতির কারণে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ছুটি থাকায় এবার আয়োজন ছিল কম। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের জগন্নাথ হলের মাঠে পূজা উপলক্ষে বিশাল উৎসবের আয়োজন হয়নি। সেখানে সীমিত আয়োজনে স্বাস্থ্যবিধি মেনে ঢাকায় অবস্থানকারী বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা অংশ নেন। এবার শুধু উপসনালয়ে বিদ্যার দেবীর আরাধানার ব্যবস্থা করা হয়। দুপুরে উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান জগন্নাথ হলের পূজামণ্ডপ পরিদর্শন করেন।  

মানিকমিয়া এভিনিউস্থ রাজধানী স্কুল মাঠে জাতীয় সংসদের পক্ষ থেকে পূজার আয়োজন করা হয়। সন্ধ্যায় সেখানে পূজার অনুষ্ঠানে অংশ নেন স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী। তিনি হিন্দু সম্প্রদায়ের সকলকে আন্তরিক শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানিয়ে বলেন, ধর্ম, বর্ণ ও সম্প্রদায় নির্বিশেষে পূজা উৎসবে সকলের অংশগ্রহণ দেশের অসাম্প্রদায়িক চেতনায় ও ঐতিহ্যে ভিন্ন মাত্রা যোগ করেছে। এই ঐতিহ্য আরো সুদৃঢ় করতে হবে।

এরআগে সকালে রাজধানী উচ্চ বিদ্যালয়ের পূজা মণ্ডপ পরিদর্শন করেন ভারতীয় হাই কমিশনার বিক্রম দোরাইস্বামী। দুপুরে সেখানে আসেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল। আয়োজকদের পক্ষ থেকে ওই অতিথিদের স্বাগত জানান সংসদ সদস্য বীরেন শিকদার, মনোরঞ্জন শীল গোপাল, রনজিত কুমার রায় ও পংকজ দেবনাথসহ সংসদ সচিবালয়ের কর্মকর্তারা।

মহানগর সার্বজনীন পূজা কমিটির উদ্যোগে ঢাকেশ্বরী জাতীয় মন্দির মেলাঙ্গনের কেন্দ্রীয় পূজামণ্ডপে পূজার আয়োজন করা হয়। এ ছাড়া সিদ্ধেশ্বরী মন্দির, শাখারী বাজার, তাঁতি বাজার, বনানী ও রমনা কালী মন্দিরসহ মণ্ডপে মণ্ডপে সরস্বতী পূজা উপলক্ষে নানা আয়োজন ছিল।  

বিডি প্রতিদিন/জুনাইদ আহমেদ


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর

প্রকাশ : ২৫ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ১৯:০৮
প্রিন্ট করুন printer

পরিস্থিতি স্বাভাবিক থাকলে বৃক্ষমেলা ৫ জুন

অনলাইন ডেস্ক

পরিস্থিতি স্বাভাবিক থাকলে বৃক্ষমেলা ৫ জুন
সংগৃহীত ছবি

করোনা সংক্রমণ পরিস্থিতি স্বাভাবিক থাকলে জাতীয় বৃক্ষরোপণ অভিযান ও বৃক্ষমেলা ৫ জুন বাণিজ্য মেলার মাঠে আয়োজন করা হবে বলে জানিয়েছেন পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রী শাহাব উদ্দিন।

আজ পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে বিশ্ব পরিবেশ দিবস ও পরিবেশ মেলা-২০২১ এবং জাতীয় বৃক্ষরোপণ অভিযান ও বৃক্ষমেলা-২০২১ উদযাপনের প্রাক-প্রস্তুতিমূলক আন্তঃমন্ত্রণালয় সভায় এ কথা বলেন তিনি।

মন্ত্রী বলেন, দেশের প্রাণ প্রকৃতিকে সবুজে শ্যামলে ভরিয়ে দিতে কাজ করছে সরকার। জনগণের নিকট এ বার্তা পৌঁছে দিতে ‘মুজিববর্ষে অঙ্গীকার করি, সোনার বাংলা সবুজ করি’ প্রতিপাদ্যে উদযাপিত হবে এবারের জাতীয় বৃক্ষরোপণ অভিযান ও বৃক্ষ মেলা-২০২১। সব শ্রেণি-পেশার মানুষের সম্মিলিত অংশগ্রহণের মাধ্যমেই আমরা দেশকে সবুজে শ্যামলে ভরে দিতে সক্ষম হব।

মন্ত্রী বলেন, জলবায়ু পরিবর্তনের বিরূপ প্রভাব মোকাবিলা, জীববৈচিত্র্য সংরক্ষণ ও দারিদ্র্য বিমোচন, কর্মসংস্থান সৃষ্টি, আর্থ-সামাজিক উন্নয়নসহ পরিবেশ উন্নয়নে দেশের সর্বত্র ব্যাপক হারে বৃক্ষরোপণ করা হচ্ছে। এ বৃক্ষরোপণ অভিযানকে গতিশীল রাখার লক্ষ্যে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ পরিস্থিতি স্বাভাবিক থাকলে প্রধানমন্ত্রীর অনুমোদন গ্রহণ করে বিশ্ব পরিবেশ দিবস ও পরিবেশ মেলা এবং জাতীয় বৃক্ষরোপণ অভিযান ও বৃক্ষমেলা-এ দুটি কর্মসূচিই ৫ জুন উদ্বোধন অনুষ্ঠান বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে এবং বৃক্ষমেলা বাণিজ্য মেলার মাঠে আয়োজন করা হবে। 

বিডি প্রতিদিন/আরাফাত


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর

প্রকাশ : ২৫ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ১৬:৫৩
প্রিন্ট করুন printer

ফরিদপুরের দুই ভাইয়ের ৫৭০৬ বিঘা জমি ও ৫৫ গাড়ি ক্রোকের নির্দেশ

অনলাইন ডেস্ক

ফরিদপুরের দুই ভাইয়ের ৫৭০৬ বিঘা জমি ও ৫৫ গাড়ি ক্রোকের নির্দেশ
সাজ্জাদ হোসেন বরকত ও ইমতিয়াজ হাসান রুবেল (ফাইল ছবি)

ফরিদপুর শহর আওয়ামী লীগের অব্যাহতিপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক সাজ্জাদ হোসেন বরকত ও তার ভাই ইমতিয়াজ হাসান রুবেলের ৪৮৭টি তফসিলে পাঁচ হাজার ৭০৬ বিঘা সম্পত্তি ক্রোকের আদেশ দিয়েছেন আদালত। একইসঙ্গে ১৮৮ ব্যাংক হিসাবের পৌনে ১০ কোটি টাকা এবং বাস, ট্রাক, মাইক্রোবাস, প্রাইভেটকারসহ ৫৫টি গাড়ি জব্দের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

দুই হাজার কোটি টাকা পাচারের মামলায় আজ বৃহস্পতিবার সকালে ঢাকা মহানগর দায়রা জজ কে এম ইমরুল কায়েশের আদালত এ আদেশ দেন। এর আগে, মামলার তদন্তের স্বার্থে তাদের তফসিল সম্পত্তি, ব্যাংক হিসাব ও গাড়ি জব্দের জন্য আদালতে আবেদন করে সিআইডি। পরে আদালত আবেদন মঞ্জুর করে এ আদেশ দেন। 

উল্লেখ্য, গত বছরের ২৬ জুন সিআইডির পরিদর্শক এস এম মিরাজ আল মাহমুদ বাদী হয়ে অর্থপাচারের অভিযোগে ঢাকার কাফরুল থানায় বরকত ও রুবেলের বিরুদ্ধে অবৈধভাবে দুই হাজার কোটি টাকা উপার্জন ও পাচারের অভিযোগে মামলা করেন। 

বিডি-প্রতিদিন/শফিক


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর

প্রকাশ : ২৫ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ১৬:৩৪
প্রিন্ট করুন printer

ঢাকা-জলপাইগুড়ি ট্রেন চালু ২৬ মার্চ

অনলাইন ডেস্ক

ঢাকা-জলপাইগুড়ি ট্রেন চালু ২৬ মার্চ
ফাইল ছবি

আগামী ২৬ মার্চ বাংলাদেশের স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীতে ভারতের পশ্চিমবঙ্গের জলপাইগুড়ি ও ঢাকার মধ্যে চালু হচ্ছে রেল যোগাযোগ। সপ্তাহে দু'দিন এ ট্রেন চলাচল করবে। এটি হবে দু'দেশের মধ্যে তৃতীয় যাত্রীবাহী ট্রেন।

বুধবার দুই দেশের কর্মকর্তাদের বৈঠকে ট্রেন চালুর চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। বৈঠকে বাংলাদেশের পক্ষে নেতৃত্ব দেন পাকশি রেলওয়ে বিভাগের ম্যানেজার মো. শহিদুল ইসলাম এবং ভারতের পক্ষে কাটিহার বিভাগের ম্যানেজার রবীন্দ্র কুমার ভার্মা।

সোম এবং বৃহস্পতিবার ট্রেনটি এনজেপি থেকে ছেড়ে আসবে এবং ঢাকা ক্যান্টনমেন্ট স্টেশন থেকে ছাড়বে মঙ্গল এবং শুক্রবার। জলপাইগুড়ি থেকে ঢাকার দূরত্ব ৫৩০ কিলোমিটার। এর মধ্যে বাংলাদেশ অংশে রয়েছে ৪৪৬ কিলোমিটার।

ভারতীয় সংবাদ মাধ্যম দ্য টেলিগ্রাফের খবরে বলা হয়েছে, বিরতিহীন ৯ ঘণ্টার যাত্রায় ট্রেনটি গন্তব্যে পৌঁছবে। ১০টি শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত কোচ নিয়ে একটি ডিজেল ইঞ্জিনের মাধ্যমে এটি চলবে। 

বৈঠক শেষে কাটিহার বিভাগের ম্যানেজার রবীন্দ্র কুমার ভার্মা বলেন, ‘মূলত পর্যটন শিল্পকে সামনে রেখেই এই রেল পরিষেবা চালু করা হচ্ছে। প্রথম পর্যায়ে সপ্তাহে দু'দিন এই ট্রেন চলবে। ২৬ মার্চ এনজেপি থেকে দুপুর ২টায় ট্রেনটি যাত্রা শুরু করবে। দুই দেশের প্রধানমন্ত্রী ভার্চুয়ালি এর উদ্বোধন করবেন।’

এর আগে দুই দেশের মধ্যে দুটি রেল পরিষেবা চালু হয়। ২০০৮ সালের ১৪ এপ্রিল চালু হয় মৈত্রী এক্সপ্রেস। বন্ধন এক্সপ্রেস চালু হয় ২০১৭ সালের ৯ নভেম্বর। এছাড়া ভারতের হলদিবাড়ি থেকে বাংলাদেশের চিলাহাটি পর্যন্ত ট্রেন চলাচল শুরুর প্রক্রিয়া চলছে।

বিডি-প্রতিদিন/বাজিত হোসেন


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর

প্রকাশ : ২৫ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ১৪:৪৭
আপডেট : ২৫ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ১৫:৫১
প্রিন্ট করুন printer

টিকা নিলেন রওশন এরশাদ

অনলাইন ডেস্ক

টিকা নিলেন রওশন এরশাদ
বিরোধীদলীয় নেতা রওশন এরশাদের টিকা গ্রহণ

করোনা ভাইরাসের টিকা নিয়েছেন জাতীয় সংসদের বিরোধীদলীয় নেতা রওশন এরশাদ। আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে জাতীয় সংসদের মেডিকেল সেন্টারে করোনা ভাইরাসের টিকা নেন তিনি। গণ টিকাদান কর্মসূচির অংশ হিসেবে তিনি আজ টিকা নিলেন।

ভ্যাকসিন গ্রহণ শেষে রওশন এরশাদ বলেন, ‘ভ্যাকসিনটি সম্পূর্ণ নিরাপদ। মানুষের জীবন রক্ষার্থে ভ্যাকসিন দেওয়া হচ্ছে। সবার এই ভ্যাকসিন নেওয়া জরুরি।’ এসময় জাতীয় সংসদ সচিবালয়ের মেডিক্যাল সেন্টারের চিকিৎসকরা উপস্থিত ছিলেন।

বিডি-প্রতিদিন/শফিক


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর

প্রকাশ : ২৫ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ১৪:১৯
প্রিন্ট করুন printer

বিশ্বে বাংলাদেশের ভাবমূর্তি আরও উজ্জ্বল করার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর

অনলাইন ডেস্ক

বিশ্বে বাংলাদেশের ভাবমূর্তি আরও উজ্জ্বল করার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা (ফাইল ছবি)

সারা বিশ্বে বাংলাদেশের ভাবমূর্তি আরও উজ্জ্বল করতে মেরিন ক্যাডেটসহ প্রবাসী বাংলাদেশিদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেছেন, ‘নিজ দায়িত্ব সততা, দক্ষতা এবং কর্তব্য নিষ্ঠার সঙ্গে পালন করতে হবে। যাতে বিদেশে বাংলাদেশের ভাবমূর্তি উজ্জ্বল হয়। সেই বিষয়টার দিকে সব সময় লক্ষ রাখতে হবে।’

আজ বৃহস্পতিবার বাংলাদেশ মেরিন একাডেমি চট্টগ্রাম ক্যাম্পাসে, ৫৫তম ব্যাচের ক্যাডেটদের মুজিববর্ষ গ্র্যাজুয়েশন প্যারেড অনুষ্ঠানে গণভবন থেকে ভার্চুয়ালি যুক্ত হয়ে এ আহ্বান জানান তিনি। তিনি বলেন, অর্থনৈতিক উন্নয়ন ও তরুণদের কর্মসংস্থান বাড়াতে কাজ করছে সরকার। 

প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমাদের ক্যাডেটরা নতুন জীবনে পদার্পণ করবে। সেখানে দেশে বিদেশে দেশের মান রক্ষা করে চলতে হবে। আর সেই সাথে যখন যে দেশে যাবে আমাদের সভ্যতা, আমাদের কৃষ্টি, আমাদের সংস্কৃতি, সেটাও আদান-প্রদান করতে পারবে। অন্য জায়গা থেকে ভালো কিছু শিক্ষা নিয়ে আসতে হবে।

বিডি-প্রতিদিন/শফিক


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর