২ আগস্ট, ২০২১ ১৯:৫৩

প্রাভা হেলথের কার্যক্রম সাময়িক বন্ধের নির্দেশ

নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রাভা হেলথের কার্যক্রম সাময়িক বন্ধের নির্দেশ

বেসরকারি স্বাস্থ্যসেবা প্রতিষ্ঠান প্রাভা হেলথের করোনা পরীক্ষাসহ যাবতীয় কার্যক্রম সাময়িক বন্ধ রাখার নির্দেশ দিয়েছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর

বেসরকারি স্বাস্থ্যসেবা প্রতিষ্ঠান প্রাভা হেলথের করোনা পরীক্ষাসহ যাবতীয় কার্যক্রম সাময়িক বন্ধ রাখার নির্দেশ দিয়েছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। সোমবার অধিদপ্তরের হাসপাতাল ও ক্লিনিক শাখা থেকে চিঠি দিয়ে তাদের এ নির্দেশনা দেওয়া হয়।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের হাসপাতাল ও ক্লিনিক শাখার পরিচালক ডা. ফরিদ উদ্দিন বাংলাদেশ প্রতিদিনকে বলেন, ‘তাদের বিরুদ্ধে নানা অভিযোগ থাকায় কার্যক্রম সাময়িক বন্ধ রাখার নির্দেশ দিয়ে চিঠি দেওয়া হয়েছে।’

অধিদপ্তর সূত্রে জানা যায়, প্রাভা হেলথের বিরুদ্ধে ভুল রিপোর্ট দেওয়া ছাড়াও আরও কয়েকটি অনিয়ম পাওয়া গেছে। কমিটির সদস্যরা প্রতিষ্ঠান পরিদর্শনের সময় এই অনিয়মগুলো দেখতে পান। এর আগে প্রাভা হেলথ করোনা টেস্টের ভুল রিপোর্ট দিয়েছে এমন অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে তদন্ত শুরু করে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। আর এজন্য একটি তদন্ত টিম গঠন করে অধিদপ্তর। সাবেক আইনমন্ত্রী ব্যারিস্টার শফিক আহমেদের ছেলে মাহফুজ শফিকের অভিযোগ আমলে নিয়ে এই তদন্ত শুরু করে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর।

ভুক্তভোগী মাহফুজ শফিক তখন জানান, গত ৭ জুলাই বিকালে তার স্ত্রী ফারজানা রহমান, দুই মেয়ের করোনা পরীক্ষার নমুনা দেওয়া হয়। তার দুইদিন পর ৯ জুলাই তাদের যুক্তরাষ্ট্রে যাওয়ার কথা ছিল। বিদেশগামী যাত্রীদের করোনা পরীক্ষা বাধ্যতামূলক হওয়ায় তারা এই বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে নমুনা দেন। ৭ জুলাই রাতে তার স্ত্রীর ফোনে এসএমএস আসে তিনি করোনায় আক্রান্ত। কিছুক্ষণ পর পৃথক এসএমএসে তাদের দুই মেয়েও পজিটিভ বলে জানানো হয় প্রাভা হেলথের পক্ষ থেকে। এরপর মাহফুজ শফিক গত ৮ জুলাই রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠানে (আইইডিসিআর) পরিবারের সবাইসহ মোট ২০ জনের নমুনা দেন। ৯ জুলাই তারা সবাই নেগেটিভ বলে জানানো হয় আইইডিসিআর থেকে।

এই রিপোর্ট ভুলের বিষয় জানিয়ে স্বাস্থ্য অধিপ্তরে অভিযোগ করেছিলেন মাহফুজ শফিক। তার অভিযোগ যাচাইয়ে তদন্ত কমিটি গঠন করেছিল স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। 

কমিটির তদন্তের ভিত্তিতে আজ ওই বন্ধের সিদ্ধান্ত নেওয়া হলো।  

বিডি প্রতিদিন/জুনাইদ আহমেদ

 

 


 

এই বিভাগের আরও খবর