শিরোনাম
প্রকাশ : ১৩ নভেম্বর, ২০১৯ ২০:২০

মালয়েশিয়ায় বীমার আওতায় দুই লাখ বাংলাদেশি

মালয়েশিয়া প্রতিনিধি:

মালয়েশিয়ায় বীমার আওতায় দুই লাখ বাংলাদেশি

মালয়েশিয়ায় বিদেশি কর্মীদের সামাজিক নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে নতুন বীমার আওতায় বিদেশি কর্মীদের পাশাপাশি প্রবাসী বাংলাদেশিরাও নিবন্ধিত হচ্ছেন। এ বীমার আওতায় দুই লাখেরও অধিক বাংলাদেশি কর্মী নিবন্ধিত হয়েছেন বলে সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে।

এ প্রক্রিয়ায় কোম্পানি সকসো’র অধীনে কর্মীদের নাম নিবন্ধন কর হচ্ছে। এ ক্ষেত্রে বাংলাদেশ দ্বিতীয় স্থানে থাকলেও ইন্দোনেশিয়াকে ছাড়িয়ে যাবে বলে ধারণা করছেন সংশ্লিষ্টরা।

এদিকে দেশটিতে কর্মরত বৈধ বাংলাদেশি কর্মীদের শতভাগ বীমার আওতায় নিয়ে আসতে মালয়েশিয়াস্থ বাংলাদেশ দূতাবাসের সংশ্লিষ্টরা চেষ্টা অব্যাহত রেখেছেন। নিবন্ধন নিশ্চিত করার জন্য নিয়োগকর্তা এবং সকোসো'র সাথে নিয়মিত বৈঠক করে অগ্রগতি ফলোআপ করছেন বলে দূতাবাসের সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছেন।

মালয়েশিয়ার সোশ্যাল সিকিউরিটি অর্গানাইজেশন বাংলাদেশ হাইকমিশন এবং বাংলাদেশে ওয়েজ আনার্স ওয়েল ফেয়ার বোর্ডের সহযোগিতায় বেনিফিট প্রদান করবে। গত ২৩ অক্টোবর প্রবাসী কল্যাণ বোর্ডের অতিরিক্ত সচিব মো. শফিকুল ইসলামের নেতৃত্বে ৫ সদস্য বিশিষ্ট একটি প্রতিনিধি দল মালয়েশিয়ার সকসোর ডেপুটি চীফ এক্সিকিউটিভ অফিসার মি. ইনকিক জন রিবা অনাক মারিনের নেতৃত্বে সকসোর সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের সঙ্গে বৈঠক করেছেন।

বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন ওয়েজ আর্নার্স কল্যাণ বোর্ডের উপসচিব মো. আমিনুর রহমান, বাংলাদেশ দূতাবাসের শ্রম কাউন্সিলর মো. জহিরুল ইসলাম, ওয়েজ আর্নার্স কল্যাণ বোর্ডের প্রোগ্রামার পাপ্পু মজুমদার ও দূতাবাসের লিগ্যাল এ্যাডভাইজার মি. সিলভা।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, ২০১৮ সালের ২১ নভেম্বর মালয়েশিয়ায় কর্মরত বিদেশি কর্মীদের সামাজিক নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে নতুন বিধান চালু করার ঘোষণা দিয়েছিল দেশটির মন্ত্রিপরিষদ। ওইদিনই সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে সে দেশের মানবসম্পদমন্ত্রী এম কুলাসেগারান এ সিদ্ধান্তের কথা জানিয়েছিলেন।

বিডি প্রতিদিন/মজুমদার


আপনার মন্তব্য