শিরোনাম
প্রকাশ : ২০ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ১০:৪৯

জ্যামাইকা-বাংলাদেশ ফ্রেন্ডস সোসাইটির এগিয়ে চলার ২০ বছর

এনআরবি নিউজ, নিউইয়র্ক থেকে

জ্যামাইকা-বাংলাদেশ ফ্রেন্ডস সোসাইটির এগিয়ে চলার ২০ বছর
‘জ্যামাইকা-বাংলাদেশ ফ্রেন্ডস সোসাইটি’র কর্মকর্তারা শপথ নিচ্ছেন। ছবি : এনআরবি নিউজ।

সর্বস্তরের প্রবাসীর সাথে এলাকার কংগ্রেসওম্যান, স্টেট সিনেটরসহ বিভিন্ন পর্যায়ের জনপ্রতিনিধির সরব অংশগ্রহণে নিউইয়র্ক সিটির ‘জ্যামাইকা বাংলাদেশ ফ্রেন্ডস সোসাইটি’ তাদের ২০ বছর পূর্তি উদযাপন করেছে। সেই সঙ্গে শপথ নেয় নব সংগঠনের নির্বাচিত কমিটি। 

রবিবার সন্ধ্যায় জ্যামাইকার অ্যাবিগেইল অ্যাডামস স্কুল (পিএস-১৩২) মিলনায়তনে বাংলাদেশ এবং যুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় সঙ্গীত দিয়ে শুরু হয় অনুষ্ঠান। পরিবেশন করে শ্রীচিন্ময় সেন্টার। স্বাগত বক্তৃতা করেন জ্যামাইকা বাংলাদেশ ফ্রেন্ডস সোসাইটির বিদায়ী কমিটির সাধারণ সম্পাদক ইফজাল চৌধুরী। নব-নির্বাচিত সভাপতি ফখরুল ইসলাম দেলোয়ারকে শপথ করান সংগঠনের প্রধান উপদেষ্টা এবিএম ওসমান গণি। পরে ফখরুল ইসলাম দেলোয়ার কার্যকরী পরিষদের অপর সদস্যদের শপথ করান।

এ অনুষ্ঠানের সদস্য সচিব রিজু মোহাম্মদের পরিচালনায় বক্তব্য রাখেন কংগ্রেসওম্যান গ্রেস মেং,স্টেট সিনেটর জন ল্যু, বাংলাদেশ সোসাইটির সভাপতি কামাল আহমেদ, অনুষ্ঠানের প্রধান পৃষ্ঠপোষক ও রিয়েল এস্টেট ইনভেস্টর মো. আনোয়ার হোসেন, সাপ্তাহিক ঠিকানার ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক ও সাবেক সংসদ সদস্য এম এম শাহীন, সাপ্তাহিক পরিচয় সম্পাদক নাজমুল আহসান, সাপ্তাহিক বাংলা পত্রিকা সম্পাদক আবু তাহের, কমিউনিটি লিডার বেদারুল ইসলাম বাবলা, অনুষ্ঠানের পৃষ্ঠপোষক ‘পিপল এন’টেকের সিইও প্রকৌশলী আবু বকর হানিপ, আহ্বায়ক বিলাল চৌধুরী, জ্যামাইকা বাংলাদেশ ফ্রেন্ডস সোসাইটির নব-নির্বাচিত সভাপতি ফখরুল ইসলাম দেলোয়ার, বিদায়ী সভাপতি শেখ হায়দার আলী, নব-নির্বাচিত সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ মোস্তফা আল-আমিন রাসেল, প্রধান সমন্বয়কারী এএফএম মিজবাহউজ্জামান।

কংগ্রেসনাল বাংলাদেশ ককাসের অন্যতম সদস্য এবং ডেমক্র্যাটিক পার্টির জাতীয় কমিটির ভাইস চেয়ার গ্রেস মেং নিউইয়র্কে প্রবাসীদের প্রশংসা করে বলেন, বহুজাতিক এ সমাজে উদিয়মান কমিউনিটি হিসেবে বাংলাদেশিরা আজ অনেকের সপ্রশংস দৃষ্টি কাড়তে সক্ষম হয়েছে। নিজেদের মধ্যেকার ওই ঐক্যকে নভেম্বরের নির্বাচনে ডেমক্র্যাটদের বিপুল বিজয়ে কাজে লাগানোর আহ্বান জানান গ্রেস মেং। 

তিনি বলেন, বাংলাদেশিরা নিজ নিজ দায়িত্ব নিষ্ঠার সাথে পালনে সিদ্ধহস্ত, এজন্যে আমি সবসময় তাদের পাশে থাকতে আনন্দবোধ করি। 
মার্কিন আইটি সেক্টরে উদ্যমী প্রবাসীদের মধ্যে ৬ সহস্রাধিককে উচ্চ বেতনে চাকরি পাইয়ে দিতে দেড় দশকেরও অধিক সময় যাবত নিরন্তরভাবে কর্মরত পিপল এন টেকের সিইও আবু হানিপ বলেন, ভাগ্য গড়ার সুবর্ণ সুযোগের এ দেশে আমরা যদি ঐক্যবদ্ধ থাকি তাহলে আমেরিকান স্বপ্ন পূরণে আর কোন বাধা থাকবে না। 

হানিপ বলেন, নিউইয়র্ক এবং ভার্জিনিয়া স্টেট বোর্ড অব এডুকেশনের অনুমোদনপ্রাপ্ত পিপল এন টেক নানাভাবে জ্যামাইকা বাংলাদেশ ফ্রেন্ডস সোসাইটির এগিয়ে চলার সাথে জড়িত। ইতিপূর্বে আমরা ৫ হাজার ডলারের স্টাইপেন্ড দেই তার সদস্যগণের কোর্স প্রদানের জন্যে। তিনি বিশেষভাবে উল্লেখ করেন যে, জ্যামাইকা হচ্ছে বর্তমানের একখণ্ড বাংলাদেশ। সে আলোকেই সকলকে ঐক্যবদ্ধ থাকতে হবে। 
এ সময় অপর বক্তারা মূলধারার রাজনীতিতে বাংলাদেশি জনপ্রতিনিধি নির্বাচনে বাংলাদেশিদের ঐক্যের উপর জোর দেন। 

তারা বলেন, নিজেদের নির্বাচিত জনপ্রতিনিধি থাকলে কমিউনিটির জন্য আরও বেশি কাজ করা সম্ভব। বক্তারা বলেন, গত ২০ বছর ধরে জ্যামাইকা বংলাদেশ ফ্রেন্ডস সোসাইটি কমিউনিটির মানুষের সেবায় নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে।

সব শেষে ছিল মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক পরিবেশনা। শামসুন নাহার নিম্মির উপস্থাপনায় অনুষ্ঠানে নৃত্য পরিবেশন করে প্রিয়া ড্যান্স একাডেমির শিল্পীরা। সঙ্গীত পরিবেশন করেন প্রবাসের জনপ্রিয় শিল্পী শাহ মাহবুব, রোকসানা মির্জা, লেমন চৌধুরী, সোনিয়া সুইটি ও মোস্তফা অনিক রাজ প্রমুখ।

এ উপলক্ষে হৃদয়ে বাংলা নামে একটি স্মরণিকা প্রকাশ করা হয়। অতীতের মত ভবিষ্যতেও সোসাইটির কর্মকাণ্ডে সকলের আন্তরিক সহায়তা অব্যাহত থাকবে বলে আশাপোষণ করেন অভিষিক্তরা। 

বিডি প্রতিদিন/এনায়েত করিম


আপনার মন্তব্য