শিরোনাম
প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ৭ নভেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ৬ নভেম্বর, ২০১৯ ২৩:০৭

চেলসি আয়াক্সের রোমাঞ্চকর এক ম্যাচ

বার্সা ড্র করলেও জিতেছে লিভারপুল

ক্রীড়া ডেস্ক

চেলসি আয়াক্সের রোমাঞ্চকর এক ম্যাচ

উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগে লিওনেল মেসি ঝলক এবার এখনো দেখতে পায়নি ভক্তরা। গত মঙ্গলবারও সে আশায় গুড়েবালি নিক্ষেপ করেছে চেক ক্লাব স্লাভিয়া প্রাগ। মেসির দুর্দান্ত শট গোলবার থেকে ফিরে এসেছে। আর চেকদের ডিফেন্স লাইনও খুব বেশি সুযোগ দেয়নি মেসিদের। ফলাফল, গোল শূন্য ড্র। অবশ্য ৪ ম্যাচে ৮ পয়েন্ট নিয়ে এফ গ্রুপে কাতালানরাই আছে শীর্ষে। এদিকে বার্সা ড্র করলেও লিভারপুল জিতেছে ২-১ গোলে। জর্জিনিয়ো ও চেম্বারলিনের গোলে এ জয়ে ই গ্রুপে ৯ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে অবস্থান করছে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের বর্তমান চ্যাম্পিয়নরা। তবে গত মঙ্গলবার ফুটবলের রোমাঞ্চ উপহার দিয়েছে চেলসি-আয়াক্স। স্ট্যামফোর্ড ব্রিজে ম্যাচটা ৪-৪ গোলের ড্রতে শেষ হয়েছে। ম্যাচের দ্বিতীয় মিনিটেই ট্যামি আব্রাহামের আত্মঘাতী গোলে এগিয়ে যায় আয়াক্স। দুই মিনিট পর পেনাল্টি থেকে এই গোল শোধ করেন চেলসির জর্জিনিয়ো। এরপর ২০ মিনিটে কুইন্সি প্রোমেস, ৩৫ মিনিটে কেপা অ্যারিজাবালাগা (আত্মঘাতী) ও ৫৫ মিনিটে ডনি বিকের গোলে ৪-১ ব্যবধানে পিছিয়ে যায় চেলসি। ম্যাচটায় ফেরার আশা ছেড়েই দিয়েছিল দর্শকরা। তবে ৬৩ মিনিটে সিজার গোল করলে চেলসি সমর্থকদের মধ্যে আশার সঞ্চার হয়।

এরপর জর্জিনিয়ো ৭৪ মিনিটে পেনাল্টি থেকে গোল করলে ম্যাজিক্যাল কিছুর আশা করতে থাকে ব্লুজরা। রিস জেমস ৭৪ মিনিটে গোল করে দলকে সমতায় ফেরান। এরপর দুই দলই জয়ের জন্য অনেক চেষ্টা করেও আর গোল করতে পারেনি। তবে দর্শকরা দারুণ রোমাঞ্চকর এক ম্যাচ দেখেই বাড়ি ফিরে। এ ড্রয়ে এইচ গ্রুপের হিসেব অনেকটাই জটিল হয়ে গেল। আয়াক্স, চেলসি ও ভ্যালেন্সিয়া তিন দলেরই সংগ্রহ ৭ পয়েন্ট করে। নকআউটপর্ব নিশ্চিত করার জন্য শেষ দুই ম্যাচে তিন দলেরই জয় প্রয়োজন। দেখা যাক, কারা নকআউটপর্ব নিশ্চিত করে শেষ পর্যন্ত।


আপনার মন্তব্য