শিরোনাম
প্রকাশ : শনিবার, ১৭ এপ্রিল, ২০২১ ০০:০০ টা
আপলোড : ১৬ এপ্রিল, ২০২১ ২৩:০৪

টাইগারদের দুই দিনের প্রস্তুতি ম্যাচ

ম্যাচ শেষে চূড়ান্ত স্কোয়াড

ক্রীড়া প্রতিবেদক

মুমিনুলরা শ্রীলঙ্কায় পা রাখেন গত সোমবার। এরপর নিগোম্বোতে তিন দিনের বাধ্যতামূলক হোম কোয়ারেন্টাইন করেন ক্রিকেটাররা। সেটা শেষ করে পরপর দুই দিন

ছোট ছোট গ্রুপে ২০ মিনিট করে অনুশীলনও করেছেন টাইগাররা। মাঝে আবার দুবার করোনা পরীক্ষা দিয়েছে মুমিনুল বাহিনী।

কোয়ারেন্টাইন ও ব্যক্তিগত অনুশীলন শেষে আজ কাতুনায়েক স্টেডিয়ামে নিজেরা বিভক্ত হয়ে দুই দিনের প্রস্তুতি ম্যাচ খেলবেন টাইগাররা। প্রস্তুতি ম্যাচ শেষে আইসিসি টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের দুই টেস্টের জন্য স্কোয়াড চূড়ান্ত করবেন টিম ম্যানেজমেন্ট। সফরের শিডিউলে কোনো প্রস্তুতি ম্যাচ ছিল না বলে ২১ সদস্যের প্রাথমিক স্কোয়াড নিয়ে যায় দ্বীপরাষ্ট্রে। সেখান থেকেই ১৬ সদস্যের স্কোয়াড চূড়ান্ত হবে। তবে স্কোয়াডে এক-দুজন ফিরতে পারেন। যার অন্যতম শুভাগত হোম। যিনি ৫ বছর পর ফিরেছেন স্কোয়াডে। তাকে বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসানের স্থলাভিষিক্ত করতেই নেওয়া হয়েছে। তিন স্পিনার মেহেদি হাসান মিরাজ, তাইজুল হাসান ও নাইম ইসলামের সঙ্গে চতুর্থ স্পিনার হিসেবেও ব্যবহারের পরিকল্পনা রয়েছে টিম ম্যানেজমেন্টের।

শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে এখন পর্যন্ত ২০টি টেস্ট খেলেছে বাংলাদেশ। ১২টিই আবার শ্রীলঙ্কার মাটিতে। দ্বীপরাষ্ট্রের বিপক্ষে এখন পর্যন্ত বাংলাদেশ সাকল্যে যে জয়টি পেয়েছে, সেটা শ্রীলঙ্কার মাটিতেই। ২০১৬ সালে কলম্বোয় বাংলাদেশ যে জয়টি পেয়েছিল টাইগাররা, সেটা ছিল নিজেদের ক্রিকেট ইতিহাসের ১০০ নম্বর টেস্ট। শ্রীলঙ্কার মাটিতে আরও একটি ড্র রয়েছে টাইগারদের। ২০১৩ সালে গলে ড্র হয়েছিল টেস্টটি। এই দুটি টেস্টের ফলও আত্মবিশ্বাস জোগাচ্ছে টাইগারদের। গতকাল এমনটাই বলেছেন মেহেদি হাসান মিরাজ, ‘সবাই সুস্থ আছেন। আমরা অনুশীলনে ঘাম ঝরাচ্ছি। অনুশীলন ম্যাচটা অনেক গুরুত্বপূর্ণ। এখানকার পরিবেশের সঙ্গে মানিয়ে নেওয়ার এটাই আমাদের সুযোগ। উইকেট কেমন হতে পারে, সেটাও বুঝে নেওয়া যাবে।’

করোনাকালে বাংলাদেশ এবার নিয়ে দ্বিতীয়বারের মতো দেশের বাইরে সফর করছে। গত ফেব্রুয়ারি-মার্চে ওয়ানডে ও টি-২০ সিরিজ খেলেছে নিউজিল্যান্ডে। ফলাফল যাচ্ছেতাই। এবার দ্বীপরাষ্ট্রে এসেছে টেস্ট সিরিজ খেলতে। যদিও বাংলাদেশের টেস্ট পারফরম্যান্স ইদানীং ভালো নয়। গত দুই বছরে ৯ টেস্ট খেলে জিতেছে মাত্র একটি। সেটা আবার জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে গত বছরের ফেব্রুয়ারিতে। হেরেছে বাকি ৮টিতে। আইসিসি টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপে ভারতের বিপক্ষে দুটি, পাকিস্তান একটি এবং ঘরের মাঠে ওয়েস্ট ই্িডজের বিপক্ষে দুটি টেস্ট খেলে হেরেছে সবগুলো। এবার মুমিনুল চাইছেন পুরনোকে ভুলে শ্রীলঙ্কার মাটিতে সাফল্যের স্বাদ নিতে।       

গতকালের দ্বিতীয় দিনের অনুশীলনে ক্রিকেটাররা ব্যাটিং, বোলিং ও ফিল্ডিং করেছেন। বিশেষ করে ফিল্ডিংয়ে ঘাম ঝরিয়েছেন। নিউজিল্যান্ডে যাচ্ছেতাই ফিল্ডিংয়ের খেসারত গুনেছে দল। প্রতিটি ম্যাচেই ক্যাচ মিস হয়েছিল একাধিক। এবার টেস্ট সিরিজে যেন এর দেখা না মিলে, সে জন্য হাই ক্যাচ অনুশীলন করেছেন গতকাল। নেটে থ্রোয়ার নিয়ে ব্যাটিং করেছেন দলের সবচেয়ে সিনিয়র ক্রিকেটার ও সেরা ব্যাটসম্যান মুশফিকুর রহিম। ওয়ানডে অধিনায়ক তামিম ইকবাল অবশ্য পেসারদের সামলেছেন। ইয়াসির আলী রাব্বি খেলেছেন স্পিনারদের।

কাতুনায়েকে দুই দিনের প্রস্তুতি ম্যাচ খেলে ক্রিকেটাররা চলে যাবেন পাল্লেকেলেতে। সেখানে ২১-২৫ এপ্রিল প্রথম টেস্ট। প্রথম টেস্টে খেলতে নামার আগে পাল্লেকেলেতে দুই দিন অনুশীলন করবেন মুমিনুলরা। পাল্লেকেলেতে এই প্রথম টেস্ট খেলবে বাংলাদেশ। এখানকার উইকেট শ্রীলঙ্কার অপরাপর উইকেটগুলো থেকে হার্ড ও বাউন্সি। পাল্লেকেলেতেই দ্বিতীয় টেস্ট ২৮ এপ্রিল-২ মে।