Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : ২৫ মার্চ, ২০১৯ ১৬:০১
আপডেট : ২৫ মার্চ, ২০১৯ ১৬:০১

বাংলাদেশকে তীব্র অবজ্ঞা করলেন শহীদ আফ্রিদি

অনলাইন ডেস্ক

বাংলাদেশকে তীব্র অবজ্ঞা করলেন শহীদ আফ্রিদি

ক্রিকেট মাঠে শক্তির লড়াই নিয়ে বাংলাদেশকে তীব্র অবজ্ঞা করলেন পাকিস্তানের সাবেক অধিনায়ক শহীদ আফ্রিদি। অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে চলমান পাকিস্তান সিরিজে বেশ কিছু সিনিয়র খেলোয়াড়কে বিশ্রামে রাখার জেরে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এমনটাই বলেন।

সংবাদ সম্মেলনে এক সাংবাদিক অফ্রিদিকে প্রশ্ন করেন, আসন্ন অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে হোম সিরিজে সরফরাজ আহমেদ ও বাবার আজমের মতো সিনিয়র বেশ কিছু খেলোয়াড়কে বিশ্রাম দেওয়া ঠিক হয়েছে কি? 

জবাবে শুরুতেই বাংলাদেশকে তীব্র অবজ্ঞা করেন আফ্রিদি। বলেন, দেখুন, সিরিজটা যদি বাংলাদেশ বা জিম্বাবুয়ের মতো র‍্যাঙ্কিংয়ের ষষ্ঠ, সপ্তম কিংবা অষ্টম দলের সঙ্গে হতো তাহলে না হয় বুঝতাম তাদের বিশ্রামে দেওয়া ঠিক হয়েছে। কিন্তু সিরিজটা অস্ট্রেলিয়ার মতো শক্তিশালী দলের সঙ্গে হওয়ায় এখানকার ম্যাচ জয়ের পারফরম্যান্স বিশ্বকাপের আগে খেলোয়াড়দের আত্মবিশ্বাস বাড়িয়ে দিতো। তাই আমার মনে হয় সিনিয়র খেলোয়াড়রা দলের সঙ্গে থাকলেই ভালো হতো। এমন তো না যে তারা ১৫-২০ বছর ক্রিকেট খেলেছে, তারাও তো কয়েক দিন আগে থেকেই খেলা শুরু করেছে। তাই তাদের দলে রাখলেই বোধ হয় ভালো হতো।’

ওপরের এই কথাগুলোর মধ্য দিয়ে যে বাংলাদেশ তীব্র অবজ্ঞা করেছেন শহীদ আফ্রিদি তা বুঝতে কারও অসুবিধা হওয়ার কথা নয়। অথচ পরিসংখ্যান বলছে, ২০১৫ সাল থেকে বাংলাদেশ আর পাকিস্তান ক্রিকেটের তিন সংস্করণে মুখোমুখি হয়েছে ৯ বার। এর মধ্যে দুটি টেস্টের একটি ড্র ও একটিতে জিতলেও ওয়ানডে আর টি-টোয়েন্টিতে বাংলাদেশের কাছে পাত্তাই পায়নি পাকিস্তান। তিন টি-টোয়েন্টির দুটিতেই হেরেছে, হেরেছে চারটি ওয়ানডের প্রত্যেকটিতে। এর মধ্যে ২০১৫ সালে টি-টোয়েন্টিতে হারানো ম্যাচের অধিনায়ক ছিলেন এই শহীদ আফ্রিদিই। আর সর্বশেষ এশিয়া কাপে এই পাকিস্তানকে হারিয়ে ফাইনালে উঠেছিল বাংলাদেশ। মাঝে বিশ্বকাপ মিসের শঙ্কায় পড়েছিল যে পাকিস্তান, এখন সেই দলের সাবেক অধিনায়ক কিনা বাংলাদেশকেই অবজ্ঞা করছেন।

অথচ বাংলাদেশ ক্রিকেটারদের সাম্প্রতিক পারফরম্যান্স নাড়িয়ে দিয়েছে 'বাংলাদেশ ক্রিকেট' বিদ্বেষী ভারতের সাবেক মারকুটে ওপেনার বীরেন্দ্র শেবাগকেও। আগামী ৩০ মে ইংল্যান্ড ও ওয়েলসে অনুষ্ঠিতব্য ২০১৯ ক্রিকেট বিশ্বকাপের দল নিয়ে মন্তব্য করতে গিয়ে যেখানে তিনি বাংলাদেশকে বাঘ বলে সম্বোধন করেছেন।  এবং পাকিস্তানকে দিয়েছেন অনিশ্চয়তার তকমা। 

ওয়ানডে র‍্যাঙ্কিংয়ে বর্তমানের পাকিস্তানের পরই ৭ নম্বরে বাংলাদেশ। ওয়ানডেতে তাই বাংলাদেশকে এভাবে অবজ্ঞা করার আগে বাংলাদেশের বিপক্ষে তাদের পরিসংখ্যানটার দিকে নজর দেওয়া উচিত ছিল বলে মনে করছেন বাংলাদেশিরা। তাদের দাবি, সাম্প্রতিক সময়ে বাংলাদেশের সামনে পড়লে পাকিস্তানের মাথা নিচু করে মাঠ ছাড়ার অভ্যাস তৈরি হয়েছে, এটা হয়তো আফ্রিদি দেখেও না দেখার ভান করছেন। আর না দেখতে পেলে সামনে দিনে মুখোমুখি লড়াইয়ে টাইগাররা সেটা ভালো করে দেখিয়ে দেবেন বলেও মনে করেন বাংলাদেশি ক্রিকেটভক্তরা।

বিডি-প্রতিদিন/২৫ মার্চ, ২০১৯/মাহবুব


আপনার মন্তব্য