শিরোনাম
প্রকাশ : ২১ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ১২:০৪

জেমিসনের বোলিং তোপে প্রথমদিন শেষে কোণঠাসা ভারত

অনলাইন ডেস্ক

জেমিসনের বোলিং তোপে প্রথমদিন শেষে কোণঠাসা ভারত
সংগৃহীত ছবি

ওয়েলিংটনে সকাল থেকেই মুখ ভার ছিল আকাশের। শেষবেলায় তা বৃষ্টি হয়ে ঝরে পড়ল ওয়েলিংটনে। যার ফলে বেসিন রিজার্ভে ভারত-নিউজিল্যান্ড প্রথম টেস্টের প্রথমদিন তৃতীয় সেশনে গড়াল না একটি বলও। তবে যে ৫৫ ওভার খেলা হল এদিন, তাতে প্রকৃতির মতো দুর্যোগ ভারতের তারকাখোচিত ব্যাটিং লাইনআপেও। কারণ নিউজিল্যান্ডের পক্ষে অভিষেক টেস্ট খেলতে নামা পেসার কাইল জেমিসন।

অকল্যান্ডে ওয়ানডে অভিষেকে ২ উইকেট নিয়ে নজর কেড়েছিলেন। আর ওয়েলিংটনে এদিন ক্রিকেটের লম্বা ফর্ম্যাটে অভিষেকের দিনে দীর্ঘকায় এ পেসার বুঝিয়ে দিলেন তিনি লম্বা রেসের ঘোড়া। আবহাওয়াকে হাতিয়ার করে ওয়েলিংটনে ভারতের প্রথম সারির ব্যাটিং লাইনআপে ধস নামালেন কিউয়ি পেসাররা। আর অভিষেক টেস্টে তা সামনে থেকে নেতৃত্ব দিলেন জেমিসন। দিনের শেষে ভারতের রান ৫ উইকেট হারিয়ে মাত্র ১২২। জেমিসনের একার দখলেই ৩ উইকেট। যার মধ্যে রয়েছে ভারত অধিনায়ক বিরাট কোহলির মূল্যবান উইকেটটি।

মেঘলা আবহাওয়ার ফায়দা তুলতে টস জিতে ওয়েলিংটনে প্রথমে বোলিং করার সিদ্ধান্ত নিতে কোনওরকম ভুল করেননি কেন উইলিয়ামসন। ভারতের ওপেনিংয়ে পৃথ্বী শাহ-মায়াঙ্ক আগরওয়ালের নতুন কম্বিনেশন দিনের পঞ্চম ওভারের দ্বিতীয় বলেই উইকেট ভেঙে দেন স্পিডস্টার ট্রেন্ট বোল্ট। ব্যক্তিগত ও দলীয় ১৬ রানে পৃথ্বী শাহকে বোল্ড করে প্যাভিলিয়নের রাস্তা দেখান এই বাঁহাতি পেসার। এরপর পূজারাকে ১১ রানে কট বিহাইন্ড করে টেস্ট ক্রিকেটে নিজের প্রথম উইকেটটি তুলে নেন জেমিসন। এরপর দীর্ঘকায় পেসারের অফস্ট্যাম্পের বাইরের বলে নিজের দুর্বলতা জানান দেন ভারত অধিনায়ক বিরাট কোহলি। চলতি সফরে রানের খরা দীর্ঘায়িত করে প্রথম স্লিপে টেলরের তালুবন্দি হয়ে ফেরেন ভারত অধিনায়ক। কোহলি করেন মাত্র ২ রান।
 
প্রথম সেশনের বাকি সময়টা নির্ভরতা জোগান আরেক ওপেনার মায়াঙ্ক ও ডেপুটি রাহানে। মধ্যাহ্নভোজের বিরতিতে দলের রান ছিল ৩ উইকেটে ৭৯। বিরতির পর ইনিংস দীর্ঘস্থায়ী হয়নি মায়াঙ্কের। ব্যক্তিগত ৩৪ রানে বোল্টের একটি শর্ট বলে পরাস্ত হন ডানহাতি ওপেনার। এরপর ৭ রানে উইকেটের পিছনে তালুবন্দি হয়ে জেমিসনের তৃতীয় শিকার হন প্রস্তুতি ম্যাচে শতরান হাঁকানো হনুমা বিহারী। ১০১ রানে ৫ উইকেট খুঁইয়ে বেকায়দায় পড়ে যায় ভারতীয় দল। দ্বিতীয় সেশনের বাকি সময়টা লড়াই চালান অপরাজিত ব্যাটসম্যান আজিঙ্কা রাহানে ও ঋদ্ধিমানকে সরিয়ে একাদশে স্থান করে নেওয়া ঋষভ পন্ত।

৫ উইকেট হারিয়ে ১২২ রান তুলে চা-বিরতিতে যায় ভারতীয় দল। কিন্তু এরপরই ওয়েলিংটনে শুরু হয় বৃষ্টি। যার জেরে তৃতীয় সেশনে আর মাঠে নামা সম্ভব হয়নি দু’দলের ক্রিকেটারদের। বেশ কিছুক্ষণ অপেক্ষার পর মাঠ পরীক্ষা করে প্রথমদিনের মতো খেলার সমাপ্তি ঘোষণা করেন আম্পায়াররা। প্রথমদিনের শেষে ক্রিজে ৩৮ রানে অপরাজিত রাহানে। ১০ রানে অপরাজিত পন্ত। প্রথমসারির ব্যাটিং বিপর্যয় সামলে দ্বিতীয়দিন রাহানে-পন্তের ব্যাটে ভারত ঘুরে দাঁড়াতে পারে কীনা, সেটাই দেখার।

 

বিডি প্রতিদিন/সিফাত আব্দুল্লাহ


আপনার মন্তব্য