শিরোনাম
প্রকাশ : ৬ মে, ২০২১ ০৮:৪৪
প্রিন্ট করুন printer

ভারতের দুরবস্থা দেখে অসহায় বোধ করছেন রায়না

অনলাইন ডেস্ক

ভারতের দুরবস্থা দেখে অসহায় বোধ করছেন রায়না
ফাইল ছবি
Google News

অতিমারী করোনার প্রকোপে বাতিল হয়ে গেছে চলতি বছরের আইপিএল। প্রায় প্রত্যেক দলেরই দুই থেকে তিনজন খেলোয়াড় করোনায় আক্রান্ত। কোনও কোনও দলের আক্রান্ত সাপোর্ট স্টাফ। চেন্নাই সুপার কিংসয়ের সদস্য সুরেশ রায়না বলছেন, এমন ভয়াবহ পরিস্থিতি আগে কখনও দেখেননি। ভারতের পরিস্থিতি দেখে অসহায় লাগছে তার।

আইপিএল বাতিল হয়ে গেলেও এখনো ঘরে ফেরা হয়নি ক্রিকেটারদের। কারণ দলের খেলোয়াড় রা করোনা আক্রান্ত হওয়ায় নিভৃতবাসে থাকতে হচ্ছে তাদের। যেমন চেন্নাইয়ের বোলিং কোচ লক্ষ্মীপতি বালাজি করোনায় আক্রান্ত। তাই দলের সঙ্গে বাধ্যতামূলক নিভৃতবাসে আছেন রায়না। 

বিগত কিছুদিন ক্রিকেট চলায় মন ছিল মাঠে, কিন্তু এখন নজর পড়েছে নিজ দেশের জনগণের ওপর। ভারতজুড়ে মানুষের মৃত্যু, হাসপাতালের বেডের অভাব, অক্সিজেনের অভাব কষ্ট দিচ্ছে রায়নাকে। টুইট করে রায়না লিখেছেন, যতই সাহায্য করি না কেন, তাই কম পড়ে যাচ্ছে। তবে এই বিপদের দিনে একে অন্যের পাশে থাকার জন্য ভারতের প্রতিটি মানুষকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন তিনি।

এর আগে করোনা আবহের মধ্যেই আইপিএল উৎসব চলার কারণে বিসিসিআইকে সমালোচিত হতে হয়েছে। একাধিক দেশি এবং বিদেশি ক্রিকেটার এই টুর্নামেন্ট থেকে নাম তুলে নিয়েছিলেন। তবু আইপিএল চালিয়ে যাওয়া নিয়ে অদম্য মনোভাব দেখিয়েছিল বোর্ড। কিন্তু প্রতিটি ফ্র্যাঞ্চাইজিতেই একজন বা দুইজন করে খেলোয়াড় করোনা আক্রান্ত হওয়ায় মাধ্যমে বাতিল করতে হয় টুর্নামেন্ট। 

সূত্রপাত হয়েছিল কেকেআর বনাম আরসিবি ম্যাচ দিয়ে। নাইট শিবির বরুণ চক্রবর্তী এবং সন্দীপ ওয়ারিয়ের কোভিড-১৯ আক্রান্ত হওয়ায় মাঠে নামতে চায়নি বিরাট কোহলির দল। শেষ পর্যন্ত বাতিল হয়ে গেল গোটা টুর্নামেন্টই।


বিডি-প্রতিদিন/আব্দুল্লাহ সিফাত