শিরোনাম
২৬ মে, ২০২২ ০৯:১০

৬১ বছর পর রোমার ইউরোপিয়ান শিরোপা জয়

অনলাইন ডেস্ক

৬১ বছর পর রোমার ইউরোপিয়ান শিরোপা জয়

সংগৃহীত ছবি

উয়েফা আয়োজিত উয়েফা ইউরোপা কনফারেন্স লিগের প্রথম আসরের শিরোপা জিতেছে এএস রোমা। যা ৬১ বছর পর রোমার ইউরোপিয়ান শিরোপা জয়। এর আগে সবশেষ ১৯৬১ সালে ফেয়ার্স কাপের শিরোপা জিতেছিল তারা। বুধবার (২৫ মে) দিবাগত রাতে আলবেনিয়ার তিরানা শহরের এয়ার আলবানিয়া স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত ফাইনালে নেদারল্যান্ডসের ক্লাব ফেইয়েনুর্ড রটারডামকে ১-০ গোলে হারিয়ে শিরোপা জিতে নেয় ইতালির ক্লাবটি।

শুধু তাই নয়, এই শিরোপা জয়ের ফলে রোমার কোচ হোসে মরিনহোও এই শিরোপা জিতে অনন্য মর্যাদা অর্জন করেছেন। তিনিই একমাত্র কোচ যিনি চারটি ভিন্ন ভিন্ন ক্লাবের হয়ে ইউরোপিয়ান শিরোপা জেতার নজির স্থাপন করেছেন। কোচিং ক্যারিয়ারের যে কয়বার ইউরোপীয় আসরের ফাইনালে উঠেছেন জয় ছাড়া মাঠ ছাড়েননি হোসে মরিনহো। দুইবার করে ছুঁয়ে দেখেছেন চ্যাম্পিয়ন্স লিগ আর ইউরোপা লিগের শিরোপা। এবার জিতলেন কনফারেন্স লিগের শিরোপা।

পুরো ম্যাচে মরিনহোর দল রোমা পাস দিয়েছে ২৮৯টি, গোল মুখে শট করেছে মাত্র তিনটি সবকটিই হয়েছে প্রথমার্ধে। তার একটি থেকেই গোল আদায় করে নেন নিকোলা জানিওলা। এই এক গোলেই ইতিহাসে ঢুকে যান নিকোলা। ২২ বছর ৩২৭ দিন বয়সে এই গোল করে তিনি বনে যান ইউরোপীয় কোনও ফাইনালে গোল করা দ্বিতীয় সর্বকনিষ্ঠ ইতালিয়ান ফুটবলার। ১৯৯৭ সালে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনালে আলেসান্দ্রো দেল পিয়েরো যখন গোল করেন তখন তার বয়স ছিল ২২ বছর ২২০ দিন।

ফাইনালে ফেইয়েনুর্ড রটারডামের বিপক্ষে ম্যাচের ৩২ মিনিটে এগিয়ে যায় রোমা। এ সময় জিয়ানলুকা মানচিনি মাঝ মাঠের একটু সামনে থেকে ক্রসে বল বাড়িয়ে দেন ফেইয়েনুর্ডের বক্সের মধ্যে। সেখানে বলটি বুকে রিসিভ করেন নিকোলো জানিওলো। তাকে বল পেতে দেখেই সামনে এগিয়ে আসেন ফেইয়েনুর্ডের গোলরক্ষক জাস্টিন বিজলো। তাকে পরাস্ত করে বাম পায়ের আলতো টোকায় বল জালে জড়ান জানিওলো। বাকি সময়ে অবশ্য এই গোলটি আর শোধ দিতে পারেনি ফেইয়েনুর্ড। তাতে জানিওলোর গোলে ৬১ বছর পর ইউরোপিয়ান শিরোপা জয় নিশ্চিত হয় রোমার। অন্যদিকে প্রথম আসরে রানার্স-আপ হয়েই সন্তুষ্ট থাকতে হয় ডাচ ক্লাবটিকে।


বিডি-প্রতিদিন/আব্দুল্লাহ

এই রকম আরও টপিক

এই বিভাগের আরও খবর

সর্বশেষ খবর