শিরোনাম
প্রকাশ : ১৩ ডিসেম্বর, ২০১৮ ১৩:০০
আপডেট : ১৩ ডিসেম্বর, ২০১৮ ১৩:০২
প্রিন্ট করুন printer

ঐক্যফ্রন্টের নির্বাচন পরিচালনা কমিটির সদস্য সচিব গ্রেফতার

মোজাম্মেল হক সজল, সখীপুর (টাঙ্গাইল) প্রতিনিধি

ঐক্যফ্রন্টের নির্বাচন পরিচালনা কমিটির সদস্য সচিব গ্রেফতার
অধ্যাপক জুলফিকার শামীম

টাঙ্গাইলের সখীপুর উপজেলা কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের সাধারণ সম্পাদক ও ঐক্যফ্রন্টের নির্বাচন পরিচালনা কমিটির সদস্য সচিব অধ্যাপক জুলফিকার শামীমকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

বুধবার (১২ ডিসেম্বর) রাত ১১ টার দিকে পৌর এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে বলে জানিয়েছে সখীপুর থানা পুলিশ।

গ্রেফতারের সংবাদ শুনে রাতেই এ আসনের ঐক্যফ্রন্টের প্রার্থী কুঁড়ি সিদ্দিকী, নাসরিন কাদের সিদ্দিকী, কেন্দ্রীয় যুব আন্দোলনের আহ্বায়ক হাবীবুন নবী সোহেলসহ অন্যান্য নেতাকর্মীরা থানায় তাকে দেখতে যান।

আজ বৃহস্পতিবার (১৩ ডিসেম্বর) সকালে গ্রেফতার অধ্যাপক জুলফিকার শামীমকে টাঙ্গাইল আদালতে পাঠানো হয়েছে।

সখীপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আমীর হোসেন বলেন, নাশকতার মামলার পলাতক আসামি উপজেলা কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের সাধারণ সম্পাদক জুলফিকার শামীমকে গ্রেফতার করে টাঙ্গাইল আদালতে পাঠানো হয়েছে।
এ ঘটনায় তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন বিএনপির প্রার্থী কুঁড়ি সিদ্দিকী। তিনি বলেন, ষড়যন্ত্র করে দলীয় নেতাকর্মীদের গ্রেফতার করা যাবে। কিন্তু গণতন্ত্র পুনরদ্ধারের এ নির্বাচনে সাধারণ জনগণকে থামানো যাবে না।

বিডি প্রতিদিন/কালাম


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর

প্রকাশ : ১০ জানুয়ারি, ২০১৯ ১৪:৪১
আপডেট : ১০ জানুয়ারি, ২০১৯ ১৬:৪৩
প্রিন্ট করুন printer

সোনিয়া-রাহুলের বিরুদ্ধে ১০০ কোটি রুপি কর ফাঁকির অভিযোগ

অনলাইন ডেস্ক

সোনিয়া-রাহুলের বিরুদ্ধে ১০০ কোটি রুপি কর ফাঁকির অভিযোগ
রাহুল গান্ধী ও সোনিয়া গান্ধী

ভারতীয় কংগ্রেস নেত্রী সোনিয়া গান্ধী ও তার ছেলে দলটির সভাপতি রাহুল গান্ধীর বিরুদ্ধে ১০০ কোটি রুপি কর ফাঁকির অভিযোগ এনেছে দেশটির আয়কর দফতর। 

ওই কর পরিশোধের জন্য নোটিশ পাঠিয়ে আয়কর দফতর থেকে বলা হয়েছে, ২০১১-১২ সালে সোনিয়া ও রাহুল গান্ধী যথাক্রমে ১৫৫ দশমিক ৪১ কোটি এবং ১৫৫ কোটি রুপি আয় গোপন করেছেন। 

আয়কর দফতরের অভিযোগ অস্বীকার করে সোনিয়ার পক্ষের আইনজীবী সাবেক কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী পি চিদম্বরম বলেছেন, তার মক্কেলের ওপর ৪৪ কোটি রুপি করের বোঝা চাপানো হয়েছে। কোনো প্রমাণ ছাড়াই আয়কর অধিদফতর সিদ্ধান্ত নিয়েছে যে, আয় গোপন করেছেন সোনিয়া ও রাহুল। 

রাহুল-সোনিয়ার বিরুদ্ধে কর ফাঁকির অভিযোগে তদন্ত শুরু করার অনুমতি পাওয়ার পরই তাদের আয়ের হিসাব খতিয়ে দেখা শুরু করে আয়কর দফতর।

অভিযোগ উঠেছে, ২০১১-১২ অর্থবছরে কোটি কোটি রুপি আয় গোপন করে গিয়েছেন কংগ্রেস সভাপতি এবং ইউপিএ চেয়ারপার্সন। অভিযোগ ২০১১-১২ অর্থবছরে রাহুলের আয় ছিল ১৫৪ কোটি রুপির কাছাকাছি। আর সোনিয়ার আয় ছিল ১৫৫ কোটির কিছু বেশি। অথচ কাগজে-কলমে কংগ্রেস সভাপতি নিজের আয় দেখিয়েছিলেন মাত্র ৬৮ লাখ রুপি।

আয়কর দফতরের অভিযোগ, কর ফাঁকি দেয়ার জন্য বিপুল পরিমাণ আয়ের তথ্য গোপন করেছেন রাহুল এবং সোনিয়া।

এর পাশাপাশি কর ফাঁকির অভিযোগ উঠেছে কংগ্রেস নেতা অস্কার ফার্নান্দেজের বিরুদ্ধেও। আয়কর দফতরের হিসাব অনুযায়ী, প্রায় ৪৯ কোটি রুপির আয় গোপন করেছেন তিনি। আয়কর দফতরের হিসাব অনুযায়ী, গান্ধী পরিবার মোট ৩০০ কোটিরও বেশি রুপি আয়ের কথা গোপন করেছে, যার কর প্রায় ১০০ কোটি রুপি।

বিডি প্রতিদিন/এনায়েত করিম


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর

প্রকাশ : ৯ জানুয়ারি, ২০১৯ ০৯:১০
আপডেট : ৯ জানুয়ারি, ২০১৯ ১০:০৮
প্রিন্ট করুন printer

ব্রাহ্মণবাড়িয়া-২

স্থগিত ৩ কেন্দ্রে ভোট আজ

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি

স্থগিত ৩ কেন্দ্রে ভোট আজ

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ব্রাহ্মণবাড়িয়া-২ আসনের স্থগিত ৩টি কেন্দ্রে আজ বুধবার পুনঃ ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হচ্ছে। কেন্দ্রগুলো হলো আশুগঞ্জের সোহাগপুর, যাত্রাপুর ও বাহাদুরপুর। এই তিন কেন্দ্রে মোট ভোটের সংখ্যা ১০ হাজার ৫৭৪।

‘৩ কেন্দ্রে মৃত-প্রবাসী ভোটার ৫৬৩’ : এদিকে ঐক্যফ্রন্টের প্রার্থী উকিল আবদুস সাত্তার নির্বাচন কমিশনে লিখিতভাবে জানিয়েছেন, আসনটির তিন কেন্দ্রের মোট ভোটারের মধ্যে মৃত ও প্রবাসী মিলে রয়েছে ৫৬৩ জন ভোটার। লিখিত অভিযোগে বলা হয়, এই ৫৬৩ ভোট বাদ দিয়ে স্থগিত তিন কেন্দ্রের শতভাগ ভোট কাস্ট হলে এবং এ সব ভোট তার প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীর পক্ষে পড়লেও তিনি ১৪৮ ভোটে বিজয়ী থাকেন। 

সড়ক দুর্ঘটনায় স্বতন্ত্র প্রার্থী আহত : আশুগঞ্জে মঙ্গলবার দুপুরে সড়ক দুর্ঘটনায় ওই আসনের স্বতন্ত্র প্রার্থী মঈনউদ্দিন মঈনসহ সাতজন আহত হয়েছেন। দুপুরে মঈনউদ্দিন কর্মী সমর্থকদের সঙ্গে নিয়ে মাইক্রোবাসে করে সোনারামপুর সেতু পার হয়ে আশুগঞ্জের উজান-ভাটি সেতুর দিকে যাওয়ার সময় মালবাহী ট্রাকের সঙ্গে গাড়িটির ধাক্কা লাগে। এতে ট্রাকটি উল্টে মঈনউদ্দিনের বহনকারী গাড়ি ও পেছনে থাকা তিনটি মোটরসাইকেলের ওপর পড়ে যায়।

বিডি প্রতিদিন/এনায়েত করিম


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর

প্রকাশ : ৩ জানুয়ারি, ২০১৯ ০৯:১৯
আপডেট : ৩ জানুয়ারি, ২০১৯ ১২:৩৪
প্রিন্ট করুন printer

ভোটে হেরেই অবসরের ঘোষণা বিএনপির সেই নেতার

নিজস্ব প্রতিবেদক, রংপুর

ভোটে হেরেই অবসরের ঘোষণা বিএনপির সেই নেতার

ভোটে হেরে রাজনীতি থেকে অবসরের ঘোষণা দিয়েছেন সাবেক সংসদ সদস্য ও একাদশ সংসদ নির্বাচনে রংপুর-৫ (মিঠাপুকুর) আসনে বিএনপির প্রার্থী শাহ্ সোলায়মান আলম ফকির। গতকাল দুপুরে গণমাধ্যমে পাঠানো বিবৃতিতে তিনি রাজনীতি থেকে সরে দাঁড়ানোর ঘোষণা দেন। শারীরিক অসুস্থতা ও পারিবারিক অসুবিধার কারণ উল্লেখ করে রাজনীতি থেকে অবসরের সিদ্ধান্তের কথা জানান শাহ্ সোলায়মান আলম ফকির। গত ৩০ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত নির্বাচনে রংপুর-৫ আসনে ব্যাপক ভোটের ব্যবধানে পরাজিত

হন তিনি। এ আসনে দুই লাখ ৪৪ হাজার ৭৫৮ ভোট পেয়ে জয়ী হয়েছেন আওয়ামী লীগের এইচ এন আশিকুর রহমান। শাহ্ সোলায়মান আলম ফকির ২০০১ সালের অষ্টম সংসদ নির্বাচনে জাতীয় পার্টির লাঙ্গল প্রতীক নিয়ে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়েছিলেন। ওই নির্বাচনে এক লাখ এক হাজার ৯৫৬ ভোট পেয়ে জয়ী হন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী এইচ এন আশিকুর রহমান পেয়েছিলেন ২৬ হাজার ৩৪৮ ভোট। জাতীয় পার্টি থেকে পদত্যাগ করে ২০১৩ সালে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার হাতে ফুলের তোড়া দিয়ে বিএনপিতে যোগ দেন শাহ্ সোলায়মান আলম ফকির। সাড়ে পাঁচ বছরের মাথায় তিনি রাজনীতি থেকে সরে অবসরের ঘোষণা দিলেন। উল্লেখ্য, জাতীয় পার্টির দুর্গখ্যাত রংপুরের মিঠাপুকুর আসনটি ২০০৮ সালের নবম সংসদ নির্বাচনের পর থেকেই জাতীয় পার্টির হাত ছাড়া হয়েছে।

বিডি-প্রতিদিন/০৩ ডিসেম্বর, ২০১৯/মাহবুব


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর

প্রকাশ : ৩ জানুয়ারি, ২০১৯ ০৯:০৩
আপডেট : ৩ জানুয়ারি, ২০১৯ ১২:৩৪
প্রিন্ট করুন printer

কত ভোট পেয়েছেন নাজমুল হুদা?

অনলাইন ডেস্ক

কত ভোট পেয়েছেন নাজমুল হুদা?

সদ্য সমাপ্ত একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ঢাকা-১৭ আসনে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন সাবেক মন্ত্রী ও বিএনপির সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান ব্যরিস্টার নাজমুল হুদা। নির্বাচন কমিশনের ফলাফলের তালিকা থেকে দেখা গেছে, এই আসনে ২ লাখ ৮ হাজার ৬৮৭টি ভোট পড়ে। এর মধ্যে ১ লাখ ৬৪ হাজার ৬১০ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন আওয়ামী লীগের প্রার্থী চিত্রনায়ক ফারুক (আকবর হোসেন পাঠান)। সেখানে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে সিংহ মার্কায় নির্বাচনে অংশ নিয়ে ১৬৮ ভোট পেয়েছেন নাজমুল হুদা। 

সাবেক যোগাযোগমন্ত্রী নাজমুল হুদা বিএনপি থেকে বেরিয়ে এসে ২০১২ তিনি ১০ আগস্ট বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী ফ্রন্ট (বিএনএফ) নামে একটি দল গঠন করেন। কিন্তু কিছুদিনের মাথায় তাকে এ দল থেকেও বহিষ্কার করা হয়। ২০১৫ সালে তিনি গঠন করেন তৃণমূল বিএনপি নামের আরেকটি দল। নির্বাচন কমিশনে নিবন্ধন না পাওয়ায় নির্বাচনে অংশ নিতে নাজমুল হুদা আওয়ামী লীগ থেকে মনোনয়নপত্র ক্রয় করেন। কিন্তু মনোনয়ন না পাওয়ায় শেষ পর্যন্ত স্বতন্ত্র থেকে ভোটের অংশ নেন তিনি।

 

বিডি-প্রতিদিন/০৩ ডিসেম্বর, ২০১৯/মাহবুব


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর

প্রকাশ : ২ জানুয়ারি, ২০১৯ ২০:১১
আপডেট : ২ জানুয়ারি, ২০১৯ ২০:১৫
প্রিন্ট করুন printer

বগুড়ায় নির্বাচনী সহিংসতায় আহত আওয়ামী লীগ নেতার মৃত্যু

নিজস্ব প্রতিবেদক, বগুড়া

বগুড়ায় নির্বাচনী সহিংসতায় আহত আওয়ামী লীগ নেতার মৃত্যু

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের (৩০ ডিসেম্বর) দিন ভোট কেন্দ্রের বাহিরে সংঘর্ষে আহত আওয়ামী লীগ নেতা নাজমুল হুদা ডুয়েল মারা গেছেন। তিনি বুধবার বিকেল ৫টার দিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে মারা যান। 

জানা যায়, বগুড়া-৪ (কাহালু-নন্দীগ্রাম) আসনে ৩০ ডিসেম্বর সকাল আটটা থেকে উপজেলার ইউনিয়নের বাঘইল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ভোটগ্রহণ শুরু হয়। পরে দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে কেন্দ্রের বাহিরে বিএনপি ও জামায়াত-শিবিরের নেতা-কর্মীরা আওয়ামী লীগ নেতা-কর্মীদের ওপর হামলা চালায়। এসময় পাইকড় ইউনিয়নের ৩ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি নাজমুল হুদা ডুয়েল গুরুতর আহত হয়। পরে আহতাবস্থায় ডুয়েলকে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।এসময় একই এলাকার যুব লীগের সহ-সভাপতি আজিজুর রহমান নিহত হন। 

উপজেলার পাইকড় ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মিঠু চৌধুরী জানান, আহত ডুয়েল বগুড়া হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন। কিন্তু সেখানে তার অবস্থার অবনতি হওয়ায় তাকে বুধবার ঢামেক হাসপাতালে নেয়া হয়। সেখানে বিকাল ৫টার দিকে চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

বিডি-প্রতিদিন/বাজিত হোসেন


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর