Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : সোমবার, ১০ ডিসেম্বর, ২০১৮ ০০:০০ টা
আপলোড : ১০ ডিসেম্বর, ২০১৮ ০০:২৩

বান্দরবানে লড়াই হবে হাড্ডাহাড্ডি

কবির হোসেন সিদ্দিকী, বান্দরবান

বান্দরবানে লড়াই হবে হাড্ডাহাড্ডি

বান্দরবান ৩০০ নং আসনে আওয়ামী লীগ বিএনপি তাদের প্রার্থী নিশ্চিত করেছে। আওয়ামী লীগের নৌকা নিয়ে মাঠে নেমেছেন ৫ বারের নির্বাচিত এমপি ও পার্বত্য প্রতিমন্ত্রী বীর বাহাদুর। আর বিএনপির দলীয় মনোনয়ন নিশ্চিত করেছেন সাবেক বিএনপির সভাপতি ও রাজপুত্র সাচিং প্র“ জেরী। অন্যবারের চেয়ে এবার মাঠে ভোটের হিসাব অনেক কঠিন। আওয়ামী লীগ ও বিএনপিতে দলীয় কোন্দল আর জেএসএসের ভূমিকা ভোটের ফল নির্ধারণে ভূমিকা রাখবে। বান্দরবানে বীর বাহাদুরের রয়েছে আকাশছোঁয়া জনপ্রিয়তা। বিগত ১০ বছরে আকাশসম উন্নয়ন সাধিত হয়েছে বান্দরবানে। কিন্তু বিগত ৫বার বীর বাহাদুর সহজে পার পেলেও এবার তাকে পাড়ি দিতে হবে কঠিন পথ। দল থেকে বহিষ্কৃত সাবেক সভাপতি প্রসন্ন ও সাবেক সাধারণ সম্পাদক কাজী মুজিবুর রহমান প্রকাশ্যে না হলেও তলে তলে বীর বাহাদুরের বিরুদ্ধে কোমর বেঁধে মাঠে নেমেছে। অপরদিকে প্রতিবার বীর বাহাদুর জনসংহতি সমিতির মনোনয়ন পেলেও এবার জেএসএসের সঙ্গে আওয়ামী লীগের দূরত্ব বেড়েছে। একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বান্দরবান ৩০০ নং আসনে ভোটের রাজনীতিতে তৃতীয় অবস্থানে আছে পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতি (জেএসএস)। এবারের জাতীয় সংসদ নির্বাচনে দলীয় কোনো প্রার্থী ঘোষণা করেনি জেএসএস। আওয়ামী লীগ নাকি বিএনপির প্রার্থীকে সমর্থন দিচ্ছে দলটি সে ব্যাপারে কৌতূহল আছে স্থানীয় ভোটারদের মাঝে। তবে বিষয়টির আনুষ্ঠানিক ঘোষণার জন্য কেন্দ্রীয় সিদ্ধান্তের অপেক্ষায় আছে জেএসএস। স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, বিগত সময়ে আওয়ামী লীগের তৃণমূল নেতা মং প্র“ মার্মাকে অপহরণের জন্য জেএসএসকে দায়ী করা হয়।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর