শিরোনাম
প্রকাশ : ২৯ অক্টোবর, ২০২০ ১২:৩৭

ট্রাম্পের জন্য দুঃসংবাদ, সুপ্রিম কোর্টে রিপালিকান পার্টির আবেদন প্রত্যাখ্যান!

অনলাইন ডেস্ক

ট্রাম্পের জন্য দুঃসংবাদ, সুপ্রিম কোর্টে রিপালিকান পার্টির আবেদন প্রত্যাখ্যান!

মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে আগামী ৩ নভেম্বর মুখোমুখি হতে যাচ্ছেন বর্তমান প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প এবং ডেমোক্র্যাট প্রার্থী জো বাইডেন। নির্বাচনের আগে ট্রাম্প এবং বাইডেন জোরেসোরে চালিয়ে যাচ্ছেন প্রচারণাও। কিন্তু এরইমধ্যে নর্থ ক্যারোলিনাতে পোস্টাল ভোট গ্রহণে বর্ধিত সময়সীমা আটকে দেয়ার জন্য রিপালিকান পার্টির আবেদনকে প্রত্যাখ্যান করেছে যুক্তরাষ্ট্রের সুপ্রিম কোর্ট। যাকে ট্রাম্পের জন্য দুঃসংবাদ আর ডেমোক্রেটদের জয় হিসেবে বিবেচনা করা হচ্ছে অন্যতম ব্যাটলগ্রাউন্ড রাজ্য নর্থ ক্যারোলাইনায়।

যুক্তরাষ্ট্রে এমন কিছু অঙ্গরাজ্য রয়েছে যে রাজ্যগুলোর ভোট প্রার্থীদের কারণে যেকোন শিবিরেই যেতে পারে। আর এ রাজ্যগুলোকে বলা হয় ব্যাটলগ্রাউন্ড বা নির্বাচনী রণক্ষেত্র। এই অঙ্গরাজ্য গুলোর ভোটই শেষ পর্যন্ত হয়ে দাঁড়ায় জয়-পরাজয়ের মূল চাবিকাঠি। আর অন্যতম ব্যাটলগ্রাউন্ড বলা হয় নর্থ ক্যারোলাইনাকে।

যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন অঙ্গরাজ্যে পোস্টাল ভোট গণনার ক্ষেত্রে বিভিন্ন নিয়ম রয়েছে। সব পোস্টাল ভোট যে নির্বাচনের তারিখের (৩ নভেম্বর) মধ্যেই গণনা সম্ভব হবে তা নয়। নর্থ ক্যারোলাইনার নিম্ন আদালত তাই সেগুলো গণনার জন্য ১২ নভেম্বর পর্যন্ত সময় বাড়ানোর অনুমতি দিয়েছিল। নর্থ ক্যারোলাইনার রিপাবলিকান আইন প্রণেতারা এ রায়টিকেই সুপ্রিম কোর্টে আটকে দিতে চেয়েছিলেন। কারণ সবাই ধারণা করছেন, পোস্টাল ভোটের বেশির ভাগই পাবেন ডেমোক্রেটরা। কিন্তু রিপালিকান পার্টির আবেদনকে প্রত্যাখ্যান করেছে যুক্তরাষ্ট্রের সুপ্রিম কোর্ট। জানা যায়, মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের পছন্দের এবং মনোনীত বিচারপতি অ্যামি কোনে ব্যারেট সম্প্রতি সুপ্রিম কোর্টের এই বেঞ্চে ছিলেন না।

এদিকে, স্বামীর পক্ষে সমর্থন চেয়ে প্রচারণায় নেমেছেন মার্কিন ফার্স্ট লেডি মেলানিয়া ট্রাম্প। ২০১৬ সালের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের সময় ট্রাম্পের পক্ষে ভোট চেয়ে মেলানিয়াকে অনেক বেশি প্রচারণা চালাতে দেখা গেলেও এ বছরের চিত্র কিছুটা ভিন্ন।

করোনায় আক্রান্ত হওয়ার পর থেকেই মেলানিয়াকে জনসমাগম এড়িয়ে চলতে দেখা গেছে। তবে ট্রাম্পের হয়ে তাকে নির্বাচনী প্রচারণায় অংশ নিতে দেখা গেছে। করোনা থেকে সেরে ওঠার পর তিনি বিভিন্ন সমাবেশে অংশ নেন। নির্বাচনী প্রচারণায় প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের প্রশংসা করে মেলানিয়াকে বলতে শোনা গেছে, ট্রাম্প একজন যোদ্ধা এবং তিনি করোনা মহামারিতে ক্ষতিগ্রস্তদের সহায়তা দিচ্ছেন। পেনসিলভানিয়ায় ট্রাম্পের সমর্থকদের উদ্দেশে ৫০ বছর বয়সী মেলানিয়া বলেন, ডোনাল্ড ট্রাম্প একজন যোদ্ধা। তিনি তার দেশকে ভালোবাসেন এবং তিনি প্রত্যেকটা দিন যুদ্ধ করে যাচ্ছেন। 

বিডি প্রতিদিন/ মজুমদার


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর