Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : ১৬ মে, ২০১৯ ১৫:২৮

কৃষকদের ক্ষতিপূরণে ‘ক্রপ ইনস্যুরেন্স’র দাবি

সড়কে ধান ছিটিয়ে শেকৃবি শিক্ষার্থীদের মানববন্ধন

ওলী আহম্মেদ, শেকৃবি


সড়কে ধান ছিটিয়ে শেকৃবি শিক্ষার্থীদের মানববন্ধন

ধানসহ সকল কৃষিপণ্যের ন্যায্য মূল্য নির্ধারণ, ভর্তুকি প্রদান এবং মধ্যস্বত্বভোগীদের দৌরাত্ম্য নিয়ন্ত্রণের দাবিতে সড়কে ধান ছিটিয়ে ও ধানের ছড়া হাতে নিয়ে বৃহস্পতিবার দুপুরে মানববন্ধন করেছে শেরেবাংলা কষি বিশ্ববিদ্যালয়ের (শেকৃবি) শিক্ষার্থীরা। এসময় তারা 'গায়ের রক্ত ঘাম হয়ে ঝরে, কৃষক কেন না খেয়ে মরে'; 'কৃষিপ্রধান দেশ, তাহলে কৃষকের অধিকার কোথায়'; 'বঙ্গবন্ধুর বাংলায় কৃষক কেন ধান পোড়ায়'; 'ঋণখেলাপির মওকুফ হয়, কৃষকের ভর্তুকি নাই'- এরকম বিভিন্ন স্লোগান সম্বলিত প্ল্যাকার্ড প্রদর্শন করে। 

শেকৃবি মেডিসিন এন্ড পাবলিক হেলথ বিভাগের চেয়ারম্যান ড. কেবিএম সাইফুল ইসলাম, কৃষিতত্ত্ব বিভাগের সহকারি অধ্যাপক শিমুল চন্দ্র সরকার, আসাদুজ্জামান, মোবাশ্বেরুল হক ও শিক্ষার্থী হুমাযুন কবিরসহ অনেকেই মানববন্ধনে কৃষকের অধিকার আদায়ে সোচ্চার হয়ে বক্তৃতা করেন।

শেকৃবির সহকারি অধ্যাপক ড. আনিসুর রহমান বলেন, ১ কেজি চাল উৎপাদনে প্রায় দেড় কেজির মতো ধান লাগে, যেখানে ১ কেজি চাল কিনতে ৪০ টাকা লাগে সেখানে প্রতিকেজি ধান বিক্রি হয় মাত্র ১২ টাকায়। অর্থনীতি বাঁচাতে কৃষকরা যাতে কৃষিবিমুখ না হয় সেজন্য অসাধু সিন্ডিকেট চক্রের তৎপরতা রোধের পাশাপাশি সরকার কর্তৃক কৃষি প্রণোদনা নিশ্চিত করা এখন সময়ের দাবি।

মাববন্ধনের সমন্বয়ক শেকৃবি শিক্ষার্থী নজরুল ইসলাম তুহিন বলেন, আজকে ধনীদের গাড়ি ক্ষতিগ্রস্থ হলে তার জন্য ইনস্যুরেন্সের ব্যবস্থা থাকে। অথচ আমাদের দেশে কৃষকশ্রেণির দূরবস্থায় সামান্য ভর্তুকি পেতেও বেগ পেতে হয়। তিনি কৃষকদের ক্ষতিপূরণে শিগগিরই বিশেষ ‘ক্রপ ইনস্যুরেন্স’ ব্যবস্থা চালু করার দাবি জানান।

বিশ্ববিদ্যালয়ের সাধারণ শিক্ষার্থীদের পাশাপাশি নানা শ্রেণি-পেশার মানুষও মানববন্ধনে এসে যোগ দেন।

বিডি প্রতিদিন/ফারজানা


আপনার মন্তব্য