শিরোনাম
প্রকাশ : ২৮ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ০১:১২
প্রিন্ট করুন printer

যেসব পৌরসভায় আজ ভোট

নিজস্ব প্রতিবেদক

যেসব পৌরসভায় আজ ভোট

পঞ্চম ধাপে ২৯ পৌরসভায় নির্বাচনী লড়াই হবে আজ। উৎসবমুখর এ নির্বাচন নিয়ে যেমন রয়েছে উত্তেজনা, তেমন শঙ্কা ভোটার ও প্রার্থীদের মধ্যে।

রবিবার সকাল ৮টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত ভোট গ্রহণ চলবে। এ ধাপে সব পৌরসভায় ইভিএমে হবে ভোট। 

বিগত চার ধাপের পৌরসভা নির্বাচনে সংঘাত-সহিংসতা হওয়ায় এ ধাপের ভোট নিয়ে উত্তেজনা রয়েছে সব নির্বাচনী এলাকায়। অনেক প্রার্থী কেন্দ্র দখলের শঙ্কাও প্রকাশ করেছেন। এ ছাড়া ভোটার, এজেন্ট ও প্রার্থীদের হুমকি-ধমকি দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। করোনাকালে এ নির্বাচনে যথাযথ স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার নির্দেশনাও দিয়েছে ইসি। ভোট দেওয়ার আগে-পরে কেন্দ্রে হাত ধোয়ার ব্যবস্থা রাখা হচ্ছে। এ ছাড়া আজ কুমিল্লার দেবিদ্বার, ঝিনাইদহের শৈলকুপা, ফরিদপুরের মধুখালী, রাজশাহীর পবা উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে উপনির্বাচন হবে। 

এদিকে পৌরসভার মেয়র পদে দলীয় প্রতীকে ভোট হলেও বিদ্রোহী এবং কাউন্সিলর প্রার্থীদের মধ্যে অনেক সময় সংঘাতের ঘটনা দেখা দিয়েছে। চার ধাপের ভোটে বিভিন্ন এলাকায় সহিংসতা-গোলযোগের ঘটনা ঘটেছে, পঞ্চম ধাপে সংঘাত-সহিংসতা হবে বলে মনে করছেন নির্বাচন কমিশনের (ইসি) সচিব মো. হুমায়ুন কবীর খোন্দকার। 

নির্বাচনে সহিংসতার বিষয়ে তিনি বলেন, যেখানেই কোনো ধরনের সমস্যা হচ্ছে। সেখানেই ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে। নির্বাচনে সহিংসতায় মারা যাওয়া, এটা অবশ্যই দুঃখজনক। তবে আমরা আশা করছি আগামী দিনে এরকম ঘটনা আর না ঘটে। এটাই আমাদের আশা। আমরা ওয়েট করি, দেখি।

সচিব বলেন, রবিবার ২৯টি পৌরসভায় সাধারণ ও চারটি উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে উপনির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। এসব নির্বাচনের শান্তিপূর্ণ পরিবেশ বজায় রাখার জন্য সব ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। আমরা আশা করি একটা ফ্রি, ফেয়ার, অংশগ্রহণমূলক এবং উৎসবমুখর পরিবেশে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। 

ভোটারদের ভোট কেন্দ্রে আসার মতো পরিবেশ তৈরি হয়েছে কি না? এ প্রশ্নে তিনি বলেন, আমরা আশা করি সেই পরিবেশ তৈরি করা হয়েছে। রিটার্নিং অফিসারদের সঙ্গে কথা বলেছি। তারা জানিয়েছেন, সিচুয়েশন ভালো। এবার সব পৌরসভায় আমরা ইভিএমের মাধ্যমে ভোট গ্রহণ করছি, সুতরাং ব্যালট পেপার ছেঁড়াছিঁড়ির কোনো বিষয় নেই। এবার ইভিএমের মাধ্যমে ভোট হবে। যার ভোট শুধু তিনি ভোট দিতে পারবেন।  

তিনি বলেন, রবিবার চার উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে উপনির্বাচন হবে। তা হলো-ঝিনাইদহের শৈলকুপা, ফরিদপুরের মধুখালী, রাজশাহীর পবা ও কুমিল্লার দেবিদ্বারে চেয়ারম্যান পদে উপনির্বাচন হবে। 

সচিব বলেন, অনিয়ম রোধে প্রতি কেন্দ্রে ৩-৪ জন অস্ত্রধারী পুলিশ থাকবে। অঙ্গীভুক্ত আনসারসহ সব মিলিয়ে প্রতি কেন্দ্রে ১১ থেকে ১৩ জন সদস্য থাকবেন। এর বাইরে র‌্যাবের টিম থাকবে, পুলিশের টিম থাকবে। প্রতিটি কেন্দ্রে একজন করে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট থাকবে। রিটার্নিং কর্মকর্তার চাহিদার ভিত্তিতে বিজিবি ও র‌্যার থাকছে। পঞ্চম ধাপের নির্বাচনে আইনশৃঙ্খলা রক্ষায় অস্ত্রধারী পুলিশ থাকছেন ২ হাজার ৫০০ জন, অঙ্গীভূত আনসার (পিসি/এপিসি) ১ হাজার ২৫০ জন, অঙ্গীভূত আনসার (লাঠিসহ) ৪ হাজার ৩৭৫ জন। এ ছাড়া মোবাইল ফোর্স ৯৭টি, স্ট্রাইকিং ফোর্স ২৯টি। র‌্যাবের ১০০ মোবাইল টিম। প্রত্যেক পৌরসভায় গড়ে দুই প্লাটুন বিজিবি মোতায়েন করা হয়েছে। নির্বাহী ও জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেটরা মাঠে থাকছেন। 

এ ধাপে ২৯ পৌরসভায় মেয়র পদে ১০০ জন ও ২৯১টি সাধারণ ওয়ার্ডে ১ হাজার ২৭০ জন, ৯৭টি সংরক্ষিত ওয়ার্ডে ৩৪২ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। ৬২৫টি ভোট কেন্দ্রের ৪ হাজার ২২৯ ভোটকক্ষে ১৩ লাখ ৮৪ হাজার ১৬৫ জন ভোটার তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করবেন।  এর মধ্যে পুরুষ ৬ লাখ ৯৩ হাজার ৯০ এবং মহিলা ভোটার ৭ লাখ ১১ হাজার ৮৫০ জন।

ইসি জানিয়েছে, পঞ্চম ধাপে নির্বাচনের জন্য ৩১ পৌরসভার তফসিল ঘোষণা করে ইসি। অন্য ধাপ থেকে পঞ্চমে ধাপের যুক্ত হয় করা হয় সৈয়দপুর পৌরসভা নির্বাচনকে। এরমধ্যে আইনি জটিলাতায় আটকে যায় যশোর ও  জামালপুরের দেওয়ানগঞ্জ পৌরসভার নির্বাচন। এ ছাড়া চট্টগ্রামের রাউজান পৌরসভায় মেয়র ও কাউন্সিলরসহ সব পদে প্রার্থীরা বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হন, তাই এ পৌরসভায় ভোটের প্রয়োজন নেই। সব মিলে ২৯ পৌরসভায় ভোট গ্রহণ হবে।

অন্যদিকে চতুর্থ ধাপের কয়েকটি পৌরসভায় বন্ধ ঘোষিত সাত ভোট কেন্দ্রে পুনরায় ভোট হবে আজ। মৃত্যুজনিত কারণে চট্টগ্রাম সিটির ৩১ নম্বর সাধারণ ওয়ার্ডের কাউন্সিলর পদে এবং শৈলকুপার ৮ নম্বর সাধারাণ ওয়ার্ড, স্বরূকাঠীর ৮ নম্বর সাধারাণ ওয়ার্ড ও সিরাজগঞ্জ পৌরসভার ৬ নম্বর সাধারণ ওয়ার্ডে আজ উপনির্বাচন হবে। এ ছাড়া ১২টি ইউনিয়নের বিভিন্ন পদে উপনির্বাচন এবং রাজবাড়ী জেলা পরিষদের ১ নম্বর সদস্য পদে উপনির্বাচন হবে আজ।

করোনাভাইরাস মহামারীর মধ্যে এবার বেশ কয়েক ধাপে পৌরসভা নির্বাচন করছে কমিশন। প্রথম ধাপের তফসিলের ২৪টি পৌরসভায় ইভিএমে ভোট হয় ২৮ ডিসেম্বর। গত ১৬ জানুয়ারি দ্বিতীয় ধাপের ভোট হয়। তৃতীয় ধাপে ৬৩টি পৌরসভায় ভোট হয় ৩০ জানুয়ারি। চতুর্থ ধাপে ৫৫ পৌরসভায় ভোট গ্রহণ হয় ১৪ ফেব্রুয়ারি। এ ছাড়া পঞ্চম ধাপে ২৯ পৌরসভায় ভোট গ্রহণ হবে আজ। আর ১১ এপ্রিল ষষ্ঠ ধাপের ৯ পৌরসভায় ভোট হওয়ার কথা রয়েছে। আইন অনুযায়ী, মেয়াদ শেষের পূর্ববর্তী ৯০ দিনের মধ্যেই পৌরসভার ভোট করতে হয়। স্থানীয় সরকার আইন সংশোধনের পর ২০১৫ সালে প্রথম দলীয় প্রতীকে ভোট হয় পৌরসভায়। সেবার ২০টি দল ভোটে ছিল।

আমাদের নিজস্ব প্রতিবেদক ও প্রতিনিধিদের পাঠানো খবর

ব্রাহ্মণবাড়িয়া : ব্রাহ্মণবাড়িয়া পৌরসভা নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী নায়ার কবিরের নির্বাচনী প্রচারণা ক্যাম্প ও মিছিলে ককটেল হামলার ঘটনায় পৃথক দুটি মামলা হয়েছে। এ ছাড়া ব্রাহ্মণবাড়িয়া পৌরসভা নির্বাচনে ১৬টি ভোট কেন্দ্র দখল হওয়ার আশঙ্কা করছে জেলা আওয়ামী লীগ। এ বিষয়ে গত শুক্রবার জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ও রিটার্নিং কর্মকর্তার কাছে লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আল মামুন সরকার।

বগুড়া : দেশের সবচেয়ে বড় বগুড়া পৌরসভা নির্বাচনকে ঘিরে আটটি ওয়ার্ডে ৫০টিতে সিসি ক্যামেরা স্থাপন করা হয়েছে। ওয়ার্ডগুলো হলো- ৪, ৮, ৯, ১০, ১১, ১৩, ১৫ এবং ১৯। এর মধ্যে ১০ এবং ১১ নম্বর ওয়ার্ড কেন্দ্রগুলো বাদে অন্য কেন্দ্রগুলো বেশি ঝুঁকিপূর্ণ হিসেবে চিহ্নিত করেছে পুলিশ।

চট্টগ্রাম : চট্টগ্রামের রাঙ্গুনীয়া, মিরসরাই ও বারইয়ারহাটে নির্বাচন আজ। এ তিন পৌরসভায় ভোটের উৎসবের মধ্যে নানা শঙ্কায় রয়েছেন একাধিক প্রার্থী। এর আগে সম্প্রতি চট্টগ্রামে অনুষ্ঠিত পটিয়া পৌরসভা নির্বাচনে কাউন্সিলর প্রার্থীদের হামলার ঘটনায় একজন নিহত হয়েছিলেন। 

বিডি-প্রতিদিন/বাজিত হোসেন


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর