১২ জুন, ২০২২ ১৪:২০

আসামি ধরতে গিয়ে হামলার শিকার পুলিশ

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি

আসামি ধরতে গিয়ে হামলার শিকার পুলিশ

সাদা পোশাকে আসামি গ্রেফতার করতে গিয়ে হামলার শিকার হয়েছেন নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁ থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মো. ফারুক হোসেন ও মেরাজুল ইসলাম সোহাগ। আসামির স্বজনসহ ১০-১২ জনের একটি দল লোহার রড ও লাঠিসোটা দিয়ে তাদের পিটিয়ে আহত করে। আহত পুলিশ কর্মকর্তা মেরাজুল ইসলাম সোহাগের অবস্থা আশঙ্কাজনক। তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় কেন্দ্রীয় পুলিশ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। আর ফারুক হোসেন সোনারগাঁ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন। 

গতকাল শনিবার দুপুরে রূপগঞ্জের যাত্রামূড়া এলাকার পানি উন্নয়ন বোর্ড কার্যালয়ের সামনে এই ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় আজ রবিবার সকালে সোনারগাঁ থানায় মামলা হয়েছে।

মামলা সূত্রে জানা যায়, হামলাকারীরা একটি ওয়াকিটকি ওয়ারলেস, ইস্যুকৃত ওয়ারেন্টের কাগজ ও দু’টি মোবাইল ফোন ছিনিয়ে নিয়েছে। খবর পেয়ে সোনারগাঁ থানা পুলিশের কয়েকটি দল ঘটনাস্থলে গিয়ে আহত পুলিশ কর্মকর্তাদের উদ্ধার করে। 

জানা যায়, উপজেলার সাদিপুর ইউনিয়নের ভারগাঁও গ্রামের আব্দুল আউয়ালের ছেলে মো. আমিনের বিরুদ্ধে একটি মামলায় ওয়ারেন্ট রয়েছে। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে তার অবস্থান জানতে পারে পুলিশ। শনিবার দুপুরে সোনারগাঁ থানার এসআই ফারুক হোসেন ও মেরাজুল ইসলাম সোহাগ সাদা পোশাকে কাঁচপুর সিনহা ওপেক্স গার্মেন্টসের সামনে অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেফতার করে দেহ তল্লাশি করেন। 

তল্লাশি শেষে পুলিশ ভ্যানে ওঠানোর সময় কৌশলে তিনি ভ্যান থেকে পালিয়ে যান। পরে পার্শ্ববর্তী রূপগঞ্জ উপজেলার যাত্রামূড়া এলাকার পানি উন্নয়ন বোর্ড কার্যালয়ের সামনে থেকে তাকে পুনরায় গ্রেফতারের জন্য অভিযান পরিচালনা করা হয়। এ সময় আসামি আমিনের নেতৃত্বে তার স্বজন হাফিজউদ্দিন, বিনা বেগম, আছমা বেগম, আউয়াল, শরীফ আরমানসহ ১০-১২ জনের একটি দল লোহার রড ও লাঠিসোটা নিয়ে অতর্কিত হামলা করে। 

সোনারগাঁ থানার ওসি মোহাম্মদ হাফিজুর রহমান বলেন, জড়িতদের গ্রেফতারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে। ছিনিয়ে নেওয়ার আসামিসহ ওয়াকিটকি ওয়ারলেস, ইস্যুকৃত ওয়ারেন্টের কাগজ ও মোবাইল ফোন উদ্ধারের চেষ্টা চলছে।

বিডি প্রতিদিন/আবু জাফর

এই বিভাগের আরও খবর

সর্বশেষ খবর