Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : ১১ মে, ২০১৯ ১৬:৫৭
আপডেট : ১১ মে, ২০১৯ ২১:১১

রাস্তা নির্মাণ করে বরিশাল সিটি মেয়রের বাজিমাত

রাহাত খান, বরিশাল

রাস্তা নির্মাণ করে বরিশাল সিটি মেয়রের বাজিমাত

এক রাস্তা নির্মাণ করে বাজিমাত করছেন সিটি মেয়র সাদিক আবদুল্লাহ। বরিশাল নগরীর অভ্যন্তরে প্রথমবারের মতো আধুনিক পেভার মেশিন দিয়ে রাস্তা নির্মাণ করে সবাইকে তাক লাগিয়ে দিয়েছেন তিনি। 

এর আগে এত সুন্দর রাস্তায় দেখেননি নগরবাসী। যা প্রথমবারের মতো নগরবাসীকে উপহার দিচ্ছেন মেয়র সাদিক আবদুল্লাহ। গত প্রায় ৩ সপ্তাহ ধরে নগরীর অভ্যন্তরে আধুনিক মেশিন দিয়ে রাস্তা নির্মাণ করে সবার মুখে প্রশংসায় ভাসছেন সাদিক আবদুল্লাহ। 

বর্তমান পরিষদের গত প্রায় ৮ মাসে নগরীর মধ্যে দৃশ্যমান বড় ধরনের কোন অবকাঠামো উন্নয়ন কাজ চোখে না পড়লেও সদ্য নির্মিত রাস্তায় চোখ পড়েছে সবার। নির্মিত রাস্তার ৫ বছরের গ্যারান্টি দিচ্ছেন তিনি। ৫ বছরের মধ্যে যে কোন ধরনের সংস্কার কিংবা মেরামত প্রয়োজন হলে ঠিকাদার নিজ দায়িত্বে সেগুলো মেরামত করে দেবেন বলে জানিয়েছেন মেয়র সাদিক আবদুল্লাহ।

ভোলা, পটুয়াখালী, কুয়াকাটা, পায়রা, বরগুনা, ঝালকাঠী, পিরোজপুর, বাগেরহাট, বাকেরগঞ্জ ও নলছিটি সহ নগরীর দক্ষিনাংশের লাখ লাখ মানুষের বরিশাল নগরীর অভ্যন্তরে প্রবেশ করতে ব্যবহার করতে হয় আমতলা বিজয় বিহঙ্গ মোড় থেকে নূরিয়া স্কুল-বাংলাবাজার-পুলিশ লাইনস- জিলা স্কুল সড়ক (কাগুজে নাম শহীদ নজরুল ইসলাম সড়ক)।

বরিশাল নগরীর অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ সড়ক এটি। ২০০২ সালে সিটি করপোরেশন গঠিত হওয়ার পর থেকে প্রতি বছর অন্তত ২-৩ বার মেরামত-সংস্কার করা হতো গুরুত্বপূর্ণ এই সড়কটি। প্রতি বারই হতো অর্থের অপচয়। মেরামতের কিছুদিন পরই খানাখন্দে ভেরে যেত সড়কটি। আর ভোগান্তিতে পড়তে হতো নগরবাসী সহ দূর-দূরান্ত থেকে আগত লাখো মানুষকে। বর্ষায় ভোগান্তির মাত্রা আরও বেড়ে যেত। এবার সেই সড়কে ‘ডেঞ্চ কার্পেটিং’ করছেন সাদিক আবদুল্লাহ।

শুধু ওই সড়কই নয়, আমতলা বিজয় বিহঙ্গ মোড় থেকে সদর রোড, নাজিরের পোল এবং সোনালী আইসক্রিম মোড় হয়ে পলাশপুর পর্যন্ত ৩ কিলোমিটার এবং জেলাখানা মোড় থেকে নথুল্লাবাদ কেন্দ্রিয় বাস টার্মিনাল পর্যন্ত সোয়া ২ কিলোমিটার সড়কে ‘ডেঞ্চ কার্পেটিং’ এর কাজ চলছে। ইতিমধ্যে আমতলা থেকে পলাশপুর পর্যন্ত ৩ কিলোমিটারের কাজ শেষ হয়েছে। গত শুক্রবার রাতে জেলখানা মোড় থেকে নথুল্লাবাদ পর্যন্ত সোয়া ২ কিলোমিটার সড়কের ‘ডেঞ্চ কার্পেটিং’ কাজের ভিত্তি প্রস্থর উদ্বোধন করেন মেয়র সাদিক আবদুল্লাহ।

নগরীর আমতলার বাসিন্দা রেজাউল কবির জানান, মহাসড়কের আদলে সিটির মধ্যে রাস্তা নির্মাণ করা হচ্ছে। এতে দির্ঘ মেয়াদী ফল পাওয়া যাবে। নগরবাসী ভোগান্তি থেকে রেহাই পাবে।

সিটি করপোরেশনের ভারপ্রাপ্ত তত্ত্বাবাধায়ক প্রকৌশলী মু. আনিচুজ্জামান জানান, আমতলা থেকে পলাশপুর ব্রিজ এবং জেলখানা মোড় থেকে নথুল্লাবাদ কেন্দ্রিয় বাস টার্মিনাল পর্যন্ত প্রায় সোয়া ৫ কিলোমিটার ‘ডেঞ্চ কার্পেটিং’ কাজ করছেন এম. খান গ্রুপ নামে একটি ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান।

প্রায় ৮ কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মানাধীন এই সড়কের কাজ আরও অন্তত ২ সপ্তাহ চলবে বলে জানিয়েছেন তিনি।

সিটি মেয়র সাদিক আবদুল্লাহ বলেন, আগে এসব সড়ক বছরে দুই তিনবার সংস্কার মোরামত হতো। এবার তিনি বরিশালে সড়ক বিভাগের সব চেয়ে বড় ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানের সাথে কথা বলে কাজ শুরু করেছেন। তারা ৫ বছরের গ্যারান্টি দিয়ে সড়ক নির্মান করছেন। এই সময়ের মধ্যে সড়কে যে কোন প্রকার সংস্কার প্রয়োজন হলে ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান করে দেবে।

বিডি-প্রতিদিন/সালাহ উদ্দীন

 


আপনার মন্তব্য