শিরোনাম
প্রকাশ : ২৮ সেপ্টেম্বর, ২০২০ ১১:২০
আপডেট : ২৮ সেপ্টেম্বর, ২০২০ ১৪:১৬

রাজধানীতে ব্যবসায়ী দম্পতিকে ৫০ লাখ টাকা চাঁদা চেয়ে প্রাণ নাশের হুমকি

নিজস্ব প্রতিবেদক

রাজধানীতে ব্যবসায়ী দম্পতিকে ৫০ লাখ টাকা চাঁদা চেয়ে প্রাণ নাশের হুমকি
স্বপন কিবরিয়া ও স্ত্রী জুঁই কিবরিয়া

সম্প্রতি বাংলাদেশ টেলিভিশনের সুরকার, সংগীত পরিচালক ও কণ্ঠশিল্পী স্বপন কিবরিয়া এবং তার স্ত্রী জুঁই কিবরিয়াকে তাদের দুজন বাচ্চা সহ প্রাণে মেরে ফেলবে এমন হুমকি প্রদান করেছে এক দল সন্ত্রাসী। অজ্ঞাত পরিচয়ের এসব সন্ত্রাসী চক্র হুমকি দিয়ে ৫০ লক্ষ টাকা দাবীও করে তাদের কাছে।

জানা গেছে, এই দম্পতির বাসার ঠিকানায় ডাকযোগে সন্ত্রাসীরা কয়েকদিন আগে একটি চিঠি পাঠিয়েছিল,  একই চিঠির পুনরাবৃত্তি ঘটে গত ২৭ সেপ্টেম্বরে তার উত্তরা অফিসের ঠিকানায় চিঠি দেয়ার মধ্য দিয়ে। ব্যবসায়ী স্বপন কিবরিয়া জানান, এই ঘটনায় তিনি ভাটারা থানা ও উত্তরা পশ্চিম থানাতে দুটি পৃথক পৃথক জিডি করেছেন। জিডি নাম্বার ভাটারা থানা- ২০৮৫ এবং উত্তরা পশ্চিম থানা জিডি নাম্বার - ১২৩২। 

উল্লেখ্য, স্বপন কিবরিয়া এবং জুঁই কিবরিয়া তাদের দুটি বাচ্চা সহ সাংস্কৃতিক অঙ্গনের সাথে বিভিন্নভাবে জড়িত। সম্প্রতি তাদের মেয়ে স্পর্শ কিবরিয়া পূর্ণ দৈর্ঘ্য ‘অর্পিতা’ চলচ্চিত্রে কেন্দ্রীয় শিশু শিল্পী চরিত্রে অভিনয় করে বেশ প্রশংসিত হয়েছে। এছাড়া মেয়েরা ইংলিশ মিডিয়ামে পড়া লেখার ফাঁকে তাদের নিজস্ব ইউটিউব চ্যানেলে বিভিন্ন গান, নাটক, কবিতা এইসব সাংস্কৃতিক এক্টিভিটিতে সক্রিয় আছে।

সাংস্কৃতিক অঙ্গনের সাথে জড়িত থাকার পাশাপাশি এই দম্পতির রয়েছে বাংলাদেশের ট্যুরিজম সেক্টরে শীর্ষস্থানীয় নিজস্ব ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ‘ড্রীম ওয়ার্ল্ড ট্যুরিজম লিমিটেড’। এই ব্যবসা প্রতিষ্ঠান পরিচালনার মাধ্যমে তারা সফল ব্যবসায়ী হিসেবে বেশ সুনাম অর্জন করেছে। সন্ত্রাসী চক্র এই দম্পতির কাছে ৫০ লক্ষ টাকা দাবী করে এবং পাশাপাশি তাদের দুইজন মেয়ের ইংলিশ মিডিয়াম স্কুলে পড়া-লেখা বন্ধের হুমকিও দিয়েছে।

সন্ত্রাসীরা চিঠিতে স্বপন কিবরিয়াকে গান বাদ্য বন্ধসহ তাদের সমস্ত সাংস্কৃতিক কারিকুলাম বন্ধ করে দেয়া এবং তার স্ত্রী মিসেস জুঁই কিবরিয়াকে ব্যবসা প্রতিষ্ঠান থেকে বিরত থেকে ঘরে বসে থাকতে বলেছে। অন্যথায় তাদের প্রাণে মারার কথা বলেছে। সন্ত্রাসীদের কাছ থেকে এক সপ্তাহের ব্যবধানে বাসা ও অফিসে দুই দুটি হুমকির চিঠি পাওয়ায় এই পরিবার আতঙ্কের মধ্য দিয়ে দিন কাটাচ্ছে।

স্বপন কিবরিয়া জানান, জিডির পরে দুই থানা থেকেই তদন্ত শুরু হয়েছে। সন্ত্রাসীদের খুঁজে বের করতে পুলিশ আন্তরিকতার সঙ্গে কাজ করে যাচ্ছে।

বিডি প্রতিদিন/আবু জাফর


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর